ইমরান খানের ‘খুনে হাসিতে’ মজেছেন নারী মন্ত্রী, ভিডিও ভাইরাল
jugantor
ইমরান খানের ‘খুনে হাসিতে’ মজেছেন নারী মন্ত্রী, ভিডিও ভাইরাল

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৯ জানুয়ারি ২০২০, ১১:২৯:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ইমরান খানের ‘খুনে হাসিতে’ মজেছেন নারী মন্ত্রী, ভিডিও ভাইরাল

পাকিস্তানের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়কমন্ত্রী জারতাজ গুল ওয়াজির এবার সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছেন। তবে তা প্রতিবেশী ভারতের বিরোধিতা করে কোনো মন্তব্য করার জন্য না। বরং প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রশংসা করে এক সাক্ষাৎকার দিয়ে তিনি আলোচনায় চলে এসেছেন।

এতে তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাজের কোনো প্রশংসা করেননি, বরং তার হাসি ও আকর্ষণীয় শারীরিক ভঙ্গিতে মজে যাওয়ার কথাই বলেছেন।

জারতাজ বলেন, আপনি যদি ইমরান খানের শরীরিক ভাষা নিয়ে কথা বলতে চান, তিনি খুবই আকর্ষণীয় ও ক্যারিশম্যাটিক। আমরা যখন কোনো সমস্যা নিয়ে আলোচনা করি, রুমে ঢোকার পর তার খুনে হাসি আমাদের সব সমস্যা দূর করে দেয়। তার শারীরিক ভাষা খুবই ইতিবাচক, যাতে লোকজন উত্তেজিত হয়ে যান।

সুদর্শন ক্রিকেট তারকা হিসেবে ইমরান খানের প্রেমে মজেছিলেন বহু নারী। পাকিস্তানকে ক্রিকেট বিশ্বকাপ উপহার দেয়ার পর তার ভক্ত দর্শকদের অভাব নেই। এরপর রাজনীতিতে যোগ দিয়ে তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হলেন।

এবার তার ওপর ফিদা হয়েছেন তার চেয়ে অর্ধেক বয়সী এই নারী। ইমরান খানের হাসি ও শরীরী ভাষায় তিনি অভিভূত।

ওই নারী হলেন পাকিস্তানের জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক মন্ত্রী জারতাজ গুল ওয়াজির। এক সাক্ষাৎকারে এভাবে কোনো রাখঢাক না করেই সাবেক এই ক্রিকেট তারকার বিভিন্ন গুণের কথা বলেন তিনি।

ইমরান খানের প্রতি মুগ্ধ হওয়ার কথা বলার পর সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিকমাধ্যমে। জারতাজ গুল ওয়াজিরের বয়স এখন ৩৫। তিনি বলেন, আপনি যদি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের শরীরী ভাষা নিয়ে কথা বলতে চান, তবে আমি মনে করি তিনি অন্যতম সেরা। তিনি একজন ক্যারিশমাটিক নেতা।

ইমরান খানের ‘খুনে হাসিতে’ মজেছেন নারী মন্ত্রী, ভিডিও ভাইরাল

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৯ জানুয়ারি ২০২০, ১১:২৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ইমরান খানের ‘খুনে হাসিতে’ মজেছেন নারী মন্ত্রী, ভিডিও ভাইরাল
ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তানের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়কমন্ত্রী জারতাজ গুল ওয়াজির এবার সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছেন। তবে তা প্রতিবেশী ভারতের বিরোধিতা করে কোনো মন্তব্য করার জন্য না। বরং প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রশংসা করে এক সাক্ষাৎকার দিয়ে তিনি আলোচনায় চলে এসেছেন।

এতে তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাজের কোনো প্রশংসা করেননি, বরং তার হাসি ও আকর্ষণীয় শারীরিক ভঙ্গিতে মজে যাওয়ার কথাই বলেছেন।

জারতাজ বলেন, আপনি যদি ইমরান খানের শরীরিক ভাষা নিয়ে কথা বলতে চান, তিনি খুবই আকর্ষণীয় ও ক্যারিশম্যাটিক। আমরা যখন কোনো সমস্যা নিয়ে আলোচনা করি, রুমে ঢোকার পর তার খুনে হাসি আমাদের সব সমস্যা দূর করে দেয়। তার শারীরিক ভাষা খুবই ইতিবাচক, যাতে লোকজন উত্তেজিত হয়ে যান।

সুদর্শন ক্রিকেট তারকা হিসেবে ইমরান খানের প্রেমে মজেছিলেন বহু নারী। পাকিস্তানকে ক্রিকেট বিশ্বকাপ উপহার দেয়ার পর তার ভক্ত দর্শকদের অভাব নেই। এরপর রাজনীতিতে যোগ দিয়ে তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হলেন।

এবার তার ওপর ফিদা হয়েছেন তার চেয়ে অর্ধেক বয়সী এই নারী। ইমরান খানের হাসি ও শরীরী ভাষায় তিনি অভিভূত।

ওই নারী হলেন পাকিস্তানের জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক মন্ত্রী জারতাজ গুল ওয়াজির। এক সাক্ষাৎকারে এভাবে কোনো রাখঢাক না করেই সাবেক এই ক্রিকেট তারকার বিভিন্ন গুণের কথা বলেন তিনি।

ইমরান খানের প্রতি মুগ্ধ হওয়ার কথা বলার পর সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিকমাধ্যমে। জারতাজ গুল ওয়াজিরের বয়স এখন ৩৫। তিনি বলেন, আপনি যদি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের শরীরী ভাষা নিয়ে কথা বলতে চান, তবে আমি মনে করি তিনি অন্যতম সেরা। তিনি একজন ক্যারিশমাটিক নেতা।