১০ লাখ ডলারের লটারি জিতলেন মোহাম্মদ সালাহ!
jugantor
১০ লাখ ডলারের লটারি জিতলেন মোহাম্মদ সালাহ!

  স্পোর্টস ডেস্ক  

০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:৫৯:৩৮  |  অনলাইন সংস্করণ

১০ লাখ ডলারের লটারি জিতলেন মোহাম্মদ সালাহ!
ছবি: আরব নিউজ

মিসরীয় ফুটবল কিংবদন্তি ও লিভারপুল স্ট্রাইকার মোহাম্মদ সালাহ মাঠে জয় উৎসবের জন্যই বেশি বিখ্যাত। সারা দুনিয়াতে তার অসংখ্য ভক্ত। তাকে ভালোবাসে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কষ্টকর।

এবার তার নামে নাম রাখা ১১ মাস বয়সী একটি শিশু দশ লাখ ডলারের লাটারি জিতেছেন। মোহাম্মদ সালাহর ভক্ত শিশুটির বাবা। সেই কারণে এই কিংবদন্তির নামে নিজের সন্তানের নাম রাখেন।-খবর আরব নিউজের

চলতি সপ্তাহে দুবাই ডিউটি ফ্রি (ডিডিএফ) লটারি জয়ের ভাগ্যবানে পরিণত হয় শিশুটি। তার বাবার নাম রামিস রহমান। দক্ষিণ ভারতের কেরালা থেকে তিনি দুবাইয়ে অভিবাসী হন।

গত ১৫ জানুয়ারি টিকিটটি কেনার পর বিষয়টি আর মাথায় রাখেননি তিনি বলে জানান। ৪ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার লটারির ড্র ঘোষণা করা হয়েছে। এরপর ডিডিএফ থেকে রামিস রহমানের কাছে ফোন আসে যে তার ছেলে মোহাম্মদ সালাহ এই লটারির বিজয়ী।

আবুধাবিতে হিসাবরক্ষকের কাছ করেন এই ভারতীয়। তিনি বলেন, এই লটারি জয়ে আমি খুবই আনন্দিত।

ছেলের নাম মোহাম্মদ সালাহ রাখার কারণ জানিয়ে রামিস বলেন, মোহাম্মদ সালাহ কিংবদন্তি ফুটবল খেলোয়াড়। আমি তাকে পছন্দ করি। তার পরিশ্রম ও যে শৈলীতে তিনি খেলেন তা আমি ভালোবাসি।

ফুটবলের প্রতি নিজের অনুরাগের কথা জানিয়ে ওই ভারতীয় বলেন, আমি ভালো খেলতে পারি না। কিন্তু টেলিভিশনে খেলা দেখতে পছন্দ করি।

১০ লাখ ডলারের লটারি জিতলেন মোহাম্মদ সালাহ!

 স্পোর্টস ডেস্ক 
০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
১০ লাখ ডলারের লটারি জিতলেন মোহাম্মদ সালাহ!
ছবি: আরব নিউজ

মিসরীয় ফুটবল কিংবদন্তি ও লিভারপুল স্ট্রাইকার মোহাম্মদ সালাহ মাঠে জয় উৎসবের জন্যই বেশি বিখ্যাত। সারা দুনিয়াতে তার অসংখ্য ভক্ত। তাকে ভালোবাসে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কষ্টকর।

এবার তার নামে নাম রাখা ১১ মাস বয়সী একটি শিশু দশ লাখ ডলারের লাটারি জিতেছেন। মোহাম্মদ সালাহর ভক্ত শিশুটির বাবা। সেই কারণে এই কিংবদন্তির নামে নিজের সন্তানের নাম রাখেন।-খবর আরব নিউজের

চলতি সপ্তাহে দুবাই ডিউটি ফ্রি (ডিডিএফ) লটারি জয়ের ভাগ্যবানে পরিণত হয় শিশুটি। তার বাবার নাম রামিস রহমান। দক্ষিণ ভারতের কেরালা থেকে তিনি দুবাইয়ে অভিবাসী হন।

গত ১৫ জানুয়ারি টিকিটটি কেনার পর বিষয়টি আর মাথায় রাখেননি তিনি বলে জানান। ৪ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার লটারির ড্র ঘোষণা করা হয়েছে। এরপর ডিডিএফ থেকে রামিস রহমানের কাছে ফোন আসে যে তার ছেলে মোহাম্মদ সালাহ এই লটারির বিজয়ী।

আবুধাবিতে হিসাবরক্ষকের কাছ করেন এই ভারতীয়। তিনি বলেন, এই লটারি জয়ে আমি খুবই আনন্দিত।

ছেলের নাম মোহাম্মদ সালাহ রাখার কারণ জানিয়ে রামিস বলেন, মোহাম্মদ সালাহ কিংবদন্তি ফুটবল খেলোয়াড়। আমি তাকে পছন্দ করি। তার পরিশ্রম ও যে শৈলীতে তিনি খেলেন তা আমি ভালোবাসি।

ফুটবলের প্রতি নিজের অনুরাগের কথা জানিয়ে ওই ভারতীয় বলেন, আমি ভালো খেলতে পারি না। কিন্তু টেলিভিশনে খেলা দেখতে পছন্দ করি।