করোনা আতঙ্কে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে টয়লেট টিস্যু ডাকাতি
jugantor
করোনা আতঙ্কে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে টয়লেট টিস্যু ডাকাতি

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২২:২৭:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনা আতঙ্কে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে টয়লেট টিস্যু ডাকাতি
ছবি: বিবিসি

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে হংকংয়ে টয়লেট টিস্যুর শত শত রোল ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে। 

বিবিসি বলছে, এসব টয়লেট টিস্যুর দাম মাত্র ১ হাজার হংকং ডলার (১৩০ মার্কিন ডলার)। তবুও রীতিমতো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে টিস্যুগুলো ডাকাতি হয়েছে। 

পরিচ্ছন্নতা পণ্যটি কিনতে আতঙ্কগ্রস্ত মানুষের হিড়িক পড়ে যাওয়ায় সরবরাহ সংকট দেখা দিয়েছে। এরই মধ্যে সোমবার মং কক এলাকায় এ ডাকাতি হয়। 

ঘটনার সঙ্গে জড়িত দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পাশাপাশি টয়লেট টিস্যুর কয়েকটি রোলও উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাতে বিবিসি বলছে, সকালের দিকে মং কক এলাকার একটি সুপার মার্কেটের বাইরে কয়েকজন ছুরি হাতে এসে এক সরবরাহকারীর কাছ থেকে এসব টয়লেট টিস্যু ছিনিয়ে নেয়। ওই এলাকায় ‘সশস্ত্র গ্রুপের’ সন্ত্রাসী কার্যক্রমের ইতিহাস রয়েছে। 

অ্যাপল ডেইলির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, টয়লেট টিস্যুর ৬০০টি রোল ছিনতাই হয়, যার বাজারমূল্য এক হাজার ৬৯৫ হংকং ডলার (২১৮ মার্কিন ডলার)।

টয়লেট টিস্যুর আকালের মধ্যে নতুন সরবরাহ আসার সঙ্গে সঙ্গে শহরজুড়ে দোকানগুলোতে কেনার জন্য বাসিন্দাদের দীর্ঘ লাইন দিতে দেখা গেছে। 

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সরবরাহে কোনো সংকট নেই বলে সরকারের পক্ষ থেকে আশ্বস্ত করা হলেও নাগরিকরা টয়লেট টিস্যু মজুদ করতে শুরু করে। আতঙ্কের কারণে অন্যান্য পরিচ্ছন্নতা পণ্যসহ চাল ও পাস্তার মতো নানা গৃহস্থালি সামগ্রীও ব্যাপক হারে কিনেছে মানুষ।

মং ককের ঘটনা নিয়ে পুলিশের এক মুখপাত্র বলেন, ‘ছুরি হাতে নিয়ে তিন ব্যক্তি একজন সরবরাহকারীকে হুমকি দিয়ে তার কাছ থেকে টয়লেট টিস্যুগুলো ছিনিয়ে নেয়।’ 

অস্বাভাবিক কেনাকাটার জন্য অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া গুজবকে দায়ী করে কর্তৃপক্ষ বলছে, খাদ্য ও গৃহস্থালির পণ্যের সরবরাহ স্থিতিশীল রয়েছে। এছাড়া সিঙ্গাপুরেও টয়লেট টিস্যু, হ্যান্ড ওয়াশ এবং মাস্কের মতো পণ্যগুলো কিনতে হিড়িক পড়েছে। দেশটিতে ৭৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

করোনা আতঙ্কে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে টয়লেট টিস্যু ডাকাতি

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনা আতঙ্কে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে টয়লেট টিস্যু ডাকাতি
ছবি: বিবিসি

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে হংকংয়ে টয়লেট টিস্যুর শত শত রোল ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে।

বিবিসি বলছে, এসব টয়লেট টিস্যুর দাম মাত্র ১ হাজার হংকং ডলার (১৩০ মার্কিন ডলার)। তবুও রীতিমতো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে টিস্যুগুলো ডাকাতি হয়েছে।

পরিচ্ছন্নতা পণ্যটি কিনতে আতঙ্কগ্রস্ত মানুষের হিড়িক পড়ে যাওয়ায় সরবরাহ সংকট দেখা দিয়েছে। এরই মধ্যে সোমবার মং কক এলাকায় এ ডাকাতি হয়।

ঘটনার সঙ্গে জড়িত দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পাশাপাশি টয়লেট টিস্যুর কয়েকটি রোলও উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাতে বিবিসি বলছে, সকালের দিকে মং কক এলাকার একটি সুপার মার্কেটের বাইরে কয়েকজন ছুরি হাতে এসে এক সরবরাহকারীর কাছ থেকে এসব টয়লেট টিস্যু ছিনিয়ে নেয়। ওই এলাকায় ‘সশস্ত্র গ্রুপের’ সন্ত্রাসী কার্যক্রমের ইতিহাস রয়েছে।

অ্যাপল ডেইলির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, টয়লেট টিস্যুর ৬০০টি রোল ছিনতাই হয়, যার বাজারমূল্য এক হাজার ৬৯৫ হংকং ডলার (২১৮ মার্কিন ডলার)।

টয়লেট টিস্যুর আকালের মধ্যে নতুন সরবরাহ আসার সঙ্গে সঙ্গে শহরজুড়ে দোকানগুলোতে কেনার জন্য বাসিন্দাদের দীর্ঘ লাইন দিতে দেখা গেছে।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সরবরাহে কোনো সংকট নেই বলে সরকারের পক্ষ থেকে আশ্বস্ত করা হলেও নাগরিকরা টয়লেট টিস্যু মজুদ করতে শুরু করে। আতঙ্কের কারণে অন্যান্য পরিচ্ছন্নতা পণ্যসহ চাল ও পাস্তার মতো নানা গৃহস্থালি সামগ্রীও ব্যাপক হারে কিনেছে মানুষ।

মং ককের ঘটনা নিয়ে পুলিশের এক মুখপাত্র বলেন, ‘ছুরি হাতে নিয়ে তিন ব্যক্তি একজন সরবরাহকারীকে হুমকি দিয়ে তার কাছ থেকে টয়লেট টিস্যুগুলো ছিনিয়ে নেয়।’

অস্বাভাবিক কেনাকাটার জন্য অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া গুজবকে দায়ী করে কর্তৃপক্ষ বলছে, খাদ্য ও গৃহস্থালির পণ্যের সরবরাহ স্থিতিশীল রয়েছে। এছাড়া সিঙ্গাপুরেও টয়লেট টিস্যু, হ্যান্ড ওয়াশ এবং মাস্কের মতো পণ্যগুলো কিনতে হিড়িক পড়েছে। দেশটিতে ৭৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস