মুহান্দিসের স্থলাভিষিক্ত হওয়া কে এই আবু-ফাদাক?
jugantor
মুহান্দিসের স্থলাভিষিক্ত হওয়া কে এই আবু-ফাদাক?

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:৪৮:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

মুহান্দিসের স্থলাভিষিক্ত হওয়া কে এই আবু-ফাদাক?
ছবি: আল-আরাবিয়াহ

ইরানসংশ্লিষ্ট পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিট (পিএমইউ) বা হাশেদ আশ-শাবির নতুন কমান্ডার হিসেবে আবু ফাদাক আল-মোহাম্মাদির নাম ঘোষণা করা হয়েছে। 

তিনি মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত আবু মাহদি আল-মুহান্দিসের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন। গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বের হওয়ার সময় ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানির সঙ্গে নিহত হন মুহান্দিস।

মোহাম্মাদিকে নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বেশ কয়েকজন ইরাকি রাজনীতিবিদ। পিএমইউ কর্মকর্তা আবু আলী বাসারির বরাতে ইরানি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে, ইরাকি আধাসামরিক বাহিনী হাশেদ আশ-শাবির প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে মোহাম্মাদিকে।

নতুন পিএমইউ নেতার আসল নাম আবদুল আজিজ আল-মোহাম্মাদি। তিনি আল-খাল বা চাচা নামেও পরিচিত। তাকে কাসেম সোলাইমানির ঘনিষ্ঠ হিসেবেই বিবেচনা করা হচ্ছে। 

পিএমইউ নেতা হিসেবে তার নাম ঘোষণার খবর বেরিয়ে আসলে মোহাম্মাদির ঘাড়ে কাসেম সোলাইমানির চুমো দেয়ার একটি ছবি সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

এর আগে ১৯৮৩ সালে তিনি বদর অরগানাইজেশনে সক্রিয় ছিলেন। হাদি আল-আমিরি পরিচালিত ওই বাহিনীকে যুক্তরাষ্ট্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে বিবেচনা করে।

ইরাকের বিরুদ্ধে ইরানের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন মোহাম্মাদি। এছাড়া ইরাকি বন্দিদের নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

সম্প্রতি মিলিশিয়া গোষ্ঠী কাতায়েব হিজবুল্লাহর মহাসচিব হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। ২০০৩ সালে এটি গঠিত হওয়ার অল্পসময় পরেই যোগ দেন তিনি।

মুহান্দিসের স্থলাভিষিক্ত হওয়া কে এই আবু-ফাদাক?

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৩:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মুহান্দিসের স্থলাভিষিক্ত হওয়া কে এই আবু-ফাদাক?
ছবি: আল-আরাবিয়াহ

ইরানসংশ্লিষ্ট পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিট (পিএমইউ) বা হাশেদ আশ-শাবির নতুন কমান্ডার হিসেবে আবু ফাদাক আল-মোহাম্মাদির নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

তিনি মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত আবু মাহদি আল-মুহান্দিসের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন। গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বের হওয়ার সময় ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানির সঙ্গে নিহত হন মুহান্দিস।

মোহাম্মাদিকে নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বেশ কয়েকজন ইরাকি রাজনীতিবিদ। পিএমইউ কর্মকর্তা আবু আলী বাসারির বরাতে ইরানি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে, ইরাকি আধাসামরিক বাহিনী হাশেদ আশ-শাবির প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে মোহাম্মাদিকে।

নতুন পিএমইউ নেতার আসল নাম আবদুল আজিজ আল-মোহাম্মাদি। তিনি আল-খাল বা চাচা নামেও পরিচিত। তাকে কাসেম সোলাইমানির ঘনিষ্ঠ হিসেবেই বিবেচনা করা হচ্ছে।

পিএমইউ নেতা হিসেবে তার নাম ঘোষণার খবর বেরিয়ে আসলে মোহাম্মাদির ঘাড়ে কাসেম সোলাইমানির চুমো দেয়ার একটি ছবি সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

এর আগে ১৯৮৩ সালে তিনি বদর অরগানাইজেশনে সক্রিয় ছিলেন। হাদি আল-আমিরি পরিচালিত ওই বাহিনীকে যুক্তরাষ্ট্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে বিবেচনা করে।

ইরাকের বিরুদ্ধে ইরানের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন মোহাম্মাদি। এছাড়া ইরাকি বন্দিদের নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

সম্প্রতি মিলিশিয়া গোষ্ঠী কাতায়েব হিজবুল্লাহর মহাসচিব হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। ২০০৩ সালে এটি গঠিত হওয়ার অল্পসময় পরেই যোগ দেন তিনি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ইরানি শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহত