দক্ষিণ কোরিয়ায় ২২২০ জন করোনায় আক্রান্ত
jugantor
দক্ষিণ কোরিয়ায় ২২২০ জন করোনায় আক্রান্ত

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:৪৮:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে চীনের পর এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে নতুন করে ২৫৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে ২০২২ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে শুক্রবার সকালে সিএনএন ও আলজাজিরার খবরে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় এ পর্যন্ত ১৩ জন মারা গেছেন।

গত কয়েকদিনে যে কয়টি দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব খুব দ্রুত ছড়িয়েছে এর মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ার এক নম্বরে। একটি ধর্মীয় গোষ্ঠী ও একটি হাসপাতালে শুরু হয় এই ভাইরাসের সংক্রমণ।

দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনার সংক্রমণ ছড়িয়েছে মূলত দেইগুতে। নতুন করে আক্রান্ত ২৫৬ জনের মধ্যে শুধুমাত্র এই শহরটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮২ জন। দেইগুতে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩১৪ জনে।

গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনার অস্তিত্ব ধরা পড়ে। এরপর তা ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বব্যাপী।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানায়, চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়ে পড়েছে বিশ্বের ৪৮ দেশে। এ ছাড়া চীনসহ সারা বিশ্বে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮২ হাজার এবং মোট মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৮০০ জনেরও বেশি।

অন্যদিকে করোনাভাইরাসের ঝুঁকি মোকাবেলায় ওমরাহ ও পর্যটন ভিসা স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব।

চীনের বাইরে করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ইরানে। দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা ২৬ জন। সবশেষ ইরানের ভাইস প্রেসিডেন্টও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

চীনের পর করোনাভাইরাস এশিয়ায় সবচেয়ে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে এরই মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের।

এশিয়ার বাইরে সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা ইতালিতে, সেখানে মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। এ ছাড়া জাপানে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে ৮ জন।

এদিকে ভারতে বিমানবাহিনীর একটি বিমানে করে উহান থেকে ভারতীয় নাগরিকদের সঙ্গে ২৩ বাংলাদেশিকে দিল্লিতে নিয়ে আসা হয়েছে। সেখানে তাদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় ২২২০ জন করোনায় আক্রান্ত

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:৪৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে চীনের পর এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে নতুন করে ২৫৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে ২০২২ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে শুক্রবার সকালে সিএনএন ও আলজাজিরার খবরে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় এ পর্যন্ত ১৩ জন মারা গেছেন।

গত কয়েকদিনে যে কয়টি দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব খুব দ্রুত ছড়িয়েছে এর মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ার এক নম্বরে। একটি ধর্মীয় গোষ্ঠী ও একটি হাসপাতালে শুরু হয় এই ভাইরাসের সংক্রমণ।

দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনার সংক্রমণ ছড়িয়েছে মূলত দেইগুতে। নতুন করে আক্রান্ত ২৫৬ জনের মধ্যে শুধুমাত্র এই শহরটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮২ জন। দেইগুতে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩১৪ জনে।

গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনার অস্তিত্ব ধরা পড়ে। এরপর তা ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বব্যাপী।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানায়, চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়ে পড়েছে বিশ্বের ৪৮ দেশে। এ ছাড়া চীনসহ সারা বিশ্বে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮২ হাজার এবং মোট মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৮০০ জনেরও বেশি।

অন্যদিকে করোনাভাইরাসের ঝুঁকি মোকাবেলায় ওমরাহ ও পর্যটন ভিসা স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব।

চীনের বাইরে করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ইরানে। দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা ২৬ জন। সবশেষ ইরানের ভাইস প্রেসিডেন্টও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। 

চীনের পর করোনাভাইরাস এশিয়ায় সবচেয়ে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে এরই মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের। 

এশিয়ার বাইরে সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা ইতালিতে, সেখানে মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। এ ছাড়া জাপানে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে ৮ জন।

এদিকে ভারতে বিমানবাহিনীর একটি বিমানে করে উহান থেকে ভারতীয় নাগরিকদের সঙ্গে ২৩ বাংলাদেশিকে দিল্লিতে নিয়ে আসা হয়েছে। সেখানে তাদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস