পরিবার নিয়ে ঘরে নামাজের জামায়াত করুন: মাওলানা ফজলুর রহমান
jugantor
পরিবার নিয়ে ঘরে নামাজের জামায়াত করুন: মাওলানা ফজলুর রহমান

  যুগান্তর ডেস্ক  

৩১ মার্চ ২০২০, ২১:১৩:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তানের জমিয়ত উলামাঢে ইসলাম-ফজলের প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের সংক্রমন কমাতে নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে চিকিৎসকদের পরামর্শ ও রাষ্ট্রীয় নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তান জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান।

তিনি বলেন, যখন চিকিৎসকরা এ প্রস্তাবনা জানিয়েছে যে, জনগণের সর্বোচ্চ সতর্কতামূলক পদক্ষেপগুলো মেনে চলা উচিৎ এবং আক্রান্ত সদস্যদের কাছে যাওয়া ঠিক হবে না, তখন জনগণ অবশ্যই সেসব নির্দেশনা ও জেলা প্রশাসকদের নির্দেশনা মেনে চলতে বাধ্য।

পাকিস্তানের প্রভাবশালী গণমাধ্যম ডনকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে মাওলানা ফজলুর রহমান এসব কথা বলেন।

পাকিস্তানে করোনায় প্রথম আক্রান্ত হওয়ার খবর শোনার পর থেকেই সব কার্যক্রম ও পদচারণা নিজ বাসভবনে সীমিত করে রেখেছেন বলে জানান তিনি। এমনকি জুমার নামাজও বাসার কম্পাউন্ডে অবস্থিত মসজিদে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে আদায় করছেন।

মাওলানা ফজলুর রহমান বলেন, ধর্মীয় সব মতাদর্শের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আলেমরা এই সংকটে যেন সম্মিলিতভাবে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন যে, শুধু মুয়াজ্জিন, ইমাম ও মসজিদ কমিটির সদস্যরা জামাতের সঙ্গে মসজিদে নামাজ আদায় করবেন।

তিনি বলেন,যদি মসজিদে নামাজের জন্য জমায়েতের ফলে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশংকা থাকে তাহলে জনগণের করণীয় হল, তারা মসজিদে যাবে না এবং ঘরেই নামাজ আদায় করবে।

ফজলুর রহমান আরও বলেন, করোনাভাইরাস এ মুহূর্তে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে এবং এটাকে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করা হয়েছে। এই বৈশ্বিক মহামারী বিশ্বমানবতাকে আল্লাহর দিকে প্রত্যাবর্তন করতে বাধ্য করেছে। আমাদের ধর্ম এ ধরনের অস্বাভাবিক পরিস্থিতিতে কিছু সহজ বিকল্প পদ্ধতি দিয়েছে।

জেইউআই (এফ) প্রধান বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে জনগণ নিজ নিজ ঘরে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে জামায়াতসহকারে নামাজ আদায় করতে পারেন।

পরিবার নিয়ে ঘরে নামাজের জামায়াত করুন: মাওলানা ফজলুর রহমান

 যুগান্তর ডেস্ক 
৩১ মার্চ ২০২০, ০৯:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পাকিস্তানের জমিয়ত উলামাঢে ইসলাম-ফজলের প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান। ছবি: সংগৃহীত
পাকিস্তানের জমিয়ত উলামায়ে ইসলামের প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের সংক্রমন কমাতে নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে চিকিৎসকদের পরামর্শ ও রাষ্ট্রীয় নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তান জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান।

তিনি বলেন, যখন চিকিৎসকরা এ প্রস্তাবনা জানিয়েছে যে, জনগণের সর্বোচ্চ সতর্কতামূলক পদক্ষেপগুলো মেনে চলা উচিৎ এবং আক্রান্ত সদস্যদের কাছে যাওয়া ঠিক হবে না, তখন জনগণ অবশ্যই সেসব নির্দেশনা ও জেলা প্রশাসকদের নির্দেশনা মেনে চলতে বাধ্য।

পাকিস্তানের প্রভাবশালী গণমাধ্যম ডনকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে মাওলানা ফজলুর রহমান এসব কথা বলেন।

পাকিস্তানে করোনায় প্রথম আক্রান্ত হওয়ার খবর শোনার পর থেকেই সব কার্যক্রম ও পদচারণা নিজ বাসভবনে সীমিত করে রেখেছেন বলে জানান তিনি। এমনকি জুমার নামাজও বাসার কম্পাউন্ডে অবস্থিত মসজিদে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে আদায় করছেন।

মাওলানা ফজলুর রহমান বলেন, ধর্মীয় সব মতাদর্শের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আলেমরা এই সংকটে যেন সম্মিলিতভাবে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন যে, শুধু মুয়াজ্জিন, ইমাম ও মসজিদ কমিটির সদস্যরা জামাতের সঙ্গে মসজিদে নামাজ আদায় করবেন।

তিনি বলেন, যদি মসজিদে নামাজের জন্য জমায়েতের ফলে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশংকা থাকে তাহলে জনগণের করণীয় হল, তারা মসজিদে যাবে না এবং ঘরেই নামাজ আদায় করবে।

ফজলুর রহমান আরও বলেন, করোনাভাইরাস এ মুহূর্তে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে এবং এটাকে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করা হয়েছে। এই বৈশ্বিক মহামারী বিশ্বমানবতাকে আল্লাহর দিকে প্রত্যাবর্তন করতে বাধ্য করেছে। আমাদের ধর্ম এ ধরনের অস্বাভাবিক পরিস্থিতিতে কিছু সহজ বিকল্প পদ্ধতি দিয়েছে।

জেইউআই (এফ) প্রধান বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে জনগণ নিজ নিজ ঘরে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে জামায়াত সহকারে নামাজ আদায় করতে পারেন।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন