যুক্তরাষ্ট্র ২৪৩ বছরের ইতিহাসে ২২৭ বছরই যুদ্ধ করেছে: ইরান

  যুগান্তর ডেস্ক ২৬ মে ২০২০, ১৬:৩১:৪৪ | অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের অব্যাহত অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে ইরান। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইয়্যেদ আব্বাস মুসাভি বলেছেন, অন্য দেশের ব্যাপারে কথা বলার রাজনৈতিক, আইনি ও নৈতিক অধিকার হারিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।অন্যকে দোষারুপের আগে যুক্তরাষ্ট্রের উচিত আয়নায় নিজেদের নোংরা চেহারাটা দেখা।
সম্প্রতি মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, বিশ্বের বহু দেশে ইরান সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে।ওই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে মুসাভি বলেন, এটি হচ্ছে কল্পনা ও বিভ্রান্তির এমন এক সংমিশ্রণ যার পক্ষে কখনোই কোনো দলিল-প্রমাণ উপস্থাপন করতে পারেনি ওয়াশিংটন। আর এ অভিযোগ সেই দেশের পক্ষ থেকে উত্থাপিত হয়েছে যেটি গত এক দশকে নানা অজুহাতে বিশ্বের ৫৫টি দেশে হস্তক্ষেপ করেছে।
২০১৭ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্র একতরফা নিষেধাজ্ঞা বিশ্বের ৩৩টি দেশের ওপর ধ্বংসাত্মক প্রভাব ফেলেছে বলে জানান ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র। তিনি বলেন, মার্কিন সরকার তার ইতিহাসে ১৩৫টি বড় যুদ্ধ শুরু করেছে এবং ২৪৩ বছরের ইতিহাসে মাত্র ১৬ বছর যুদ্ধ করেনি যুক্তরাষ্ট্র।
মার্কিন সরকারকে সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষক উল্লেখ করে মুসাভি বলেন, হাতে থাকা দলিল-প্রমাণে দেখা যায়, আমেরিকা ১৯৬০’র দশক থেকে পশ্চিম এশিয়া, ইউরোপ ও লাতিন আমেরিকার অন্তত আটটি স্বীকৃত সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছে। তিনি বলেন, কাজেই অন্য দেশের দিকে অঙ্গুলি নির্দেশ করা আগে যুক্তরাষ্ট্রের উচিত নিজের নোংরা ও কলুষিত অতীতের দিকে তাকানো।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত