পুলিশ সংস্কারের নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর ট্রাম্পের

  অনলাইন ডেস্ক ১৬ জুন ২০২০, ২২:১৯:১৬ | অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

পুলিশ বাহিনী সংস্কারের এক নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করতে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কৃষ্ণাঙ্গ বা অন্যদের সঙ্গে পুলিশ কেমন আচরণ করবে তার একটি দিকনির্দেশনা দেওয়া আছে ওই আদেশে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার পুলিশ বাহিনী সংস্কার সংক্রান্ত নির্বাহী আদেশটিতে স্বাক্ষর করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

ট্রাম্প প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বর্ণবাদ সম্পর্কে পুলিশ সদস্যদের সচেতন করতে প্রশিক্ষণ এবং মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টি এতে যুক্ত করা হয়েছে।

মিনিয়াপোলিসে পুলিশী নির্যাতনে আফ্রো-আমেরিকান নাগরিক জর্জ ফ্লয়েডের হত্যার প্রতিবাদে পুরো যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। বিক্ষোভ থেকে পুলিশের বরাদ্দ বাতিলের এবং বাহিনীটি বিলোপ করে দেওয়ার দাবি ওঠে। সেই আন্দোলন কঠোর হাতে দমন করে ‘আইন-শৃঙ্খলা’ প্রতিষ্ঠায় হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন ট্রাম্প।

এক পর্যায়ে বিক্ষোভের তীব্রতায় কংগ্রেসে পুলিশ সংস্কারের বিল তোলেন ডেমোক্র্যাটরা। কয়েকটি রাজ্য ও শহর কর্তৃপক্ষ পুলিশের শক্তি প্রয়োগে লাগাম টানে। এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে অনেকটা চাপে পড়েই ‘তুলনামূলক নরম মাত্রায়’ পুলিশ সংস্কারের নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করতে যাচ্ছেন রক্ষণশীল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

যদিও ট্রাম্প বরাবরই অতিরিক্ত শক্তি প্রয়োগ করে পুলিশি নির্যাতন ও বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভ দমনের পক্ষে কথা বলে আসছেন। প্রেসিডেন্টের এমন কথাবার্তা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে তুমুল সমালোচনা চলছে। ডেমোক্র্যাটদের পাশাপাশি ট্রাম্পের অনেক রিপাবলিকান সতীর্থও এতে ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

২৫ মে মিনিয়াপোলিসে পুলিশের বর্বোরোচিত নিপীড়নে নিহত জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুতে গোটা বিশ্বে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ার কিছুদিন পরেই ব্রুকসের হত্যাকাণ্ড সেই বিক্ষোভের তীব্রতা বাড়িয়ে তোলে।

গত শুক্রবার রাতে স্থানীয় সময় সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশের গুলিতে নিহত রেশার্ড ব্রুকস।তার মৃত্যুকে রোববার হত্যাকাণ্ড ঘোষণা করেছে ফুল্টন কাউন্টি মেডিক্যাল এক্সামিনারস অফিস।

রোববার ময়নাতদন্তের পরে তদন্তকারী মেডিক্যাল এক্সামিনার জানান, ২৭ বছর বয়সী ব্রুকসের গায়ে দুটি বুলেট আঘাত হানলে তিনি আহত হন। এতে রক্তক্ষরণ ও অঙ্গপ্রতঙ্গ কার্যকারিতা হারালে তিনি মারা যান।তার মৃত্যুর পদ্ধতিটি ছিল হত্যাকাণ্ড।

ঘটনাপ্রবাহ : কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় অগ্নিগর্ভ যুক্তরাষ্ট্র

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত