‘খয়রাতি’ লিখে ক্ষমা চাইল আনন্দবাজার পত্রিকা

  অনলাইন ডেস্ক ২৩ জুন ২০২০, ১৩:৪৮:০০ | অনলাইন সংস্করণ

স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে চীনের বাজারে আরও ৫ হাজার ১৬১ পণ্যের ৯৭ শতাংশ শুল্কমুক্ত সুবিধা পেয়েছে বাংলাদেশ। চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে বাংলাদেশ এ সুবিধা পাবে। আর এটি বলবৎ থাকবে ২০২৪ সাল পর্যন্ত।

চীনের বাজারে রফতানিতে বাংলাদেশে তৈরি শুল্কমুক্ত ওই সুবিধাকে ‘খয়রাতি’ হিসেবে উল্লেখ করে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে কলকাতার প্রভাবশালী আনন্দবাজার পত্রিকা।

গত ২০ জুন প্রকাশিত ‘লাদাখের পর ঢাকাকে পাশে টানছে বেইজিং’ শিরোনামের ওই প্রতিবেদনের শুরুতেই ‘বাণিজ্যিকলগ্নি আর খয়রাতির সাহায্য ছড়িয়ে বাংলাদেশকে পাশে পাওয়ার চেষ্টা চীনের নতুন নয়’ বলে লেখা হয়।

প্রতিবেদনের এই বাক্যে ‘খয়রাতি’ শব্দের ব্যবহারে তীব্র সমালোচনার ঝড় ওঠে। বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশের সচেতন নাগরিক সমাজ সরব হন সামাজিকমাধ্যমে।

এরই প্রেক্ষিতে পত্রিকাটি নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে ক্ষমা চেয়েছে।

মঙ্গলবারের পত্রিকায় ‘ভ্রম সংশোধন’ দিয়ে ক্ষমা চায় আনন্দবাজার কর্তৃপক্ষ। ভ্রম সংশোধন শিরোনামে লিখেছে- ‘লাদাখের পরে ঢাকাকে পাশে টানছে বেজিং’- শীর্ষক খবরে খয়রাতি শব্দের ব্যবহারে অনেক পাঠক আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। অনিচ্ছাকৃত এই ভুলের জন্য আমরা দুঃখিত ও নিঃশর্ত ক্ষমাপ্রার্থী।’

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত