ইরানের ৫ জাহাজ ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা
jugantor
ইরানের ৫ জাহাজ ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ জুন ২০২০, ১২:২০:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ইরানের ৫ জাহাজ ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা
ছবি: সংগৃহীত

ইরানি জাহাজের পাঁচ ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে বুধবার নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এসব জাহাজ ভেনিজুয়েলায় তেল সরবরাহ করেছিল।

একই সঙ্গে ভেনিজুয়েলার বিরোধীদলীয় নেতা জোয়ান গুয়াইডোকে সমর্থনের কথা জানিয়েছে ওয়াশিংটন।

এক সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেন, ওই জাহাজে করে ১৫ লাখ ব্যারেল পেট্রল ও সংশ্লিষ্ট উপাদান সরবরাহ করা হয়েছে। এ সময় ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর সঙ্গে ব্যবসা করতে নাবিকদের হুশিয়ারি করেছেন।

মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। এক বিবৃতিতে পম্পেও বলেন, আজকের নিষেধাজ্ঞার ফলে এই ক্যাপ্টেনদের সম্পদ জব্দ করা হবে। কালোতালিকাভুক্ত হওয়ায় তাদের ক্যারিয়ার ও ভবিষ্যৎ অনেক ভোগান্তিতে পড়বে।

তিনি বলেন, আমরা জাতীয় পরিষদ, অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট গুইডো ও গণতন্ত্রকামী ভেনিজুয়েলার নাগরিকদের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখব।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন একদিকে ইরানের তেল রফতানি বন্ধ করে দিতে চাচ্ছে, অন্যদিকে মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চেষ্টা করছে।

এ কারণে যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন বিভিন্ন বন্দর, শিপিং কোম্পানি এবং ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিগুলোকে এ দুই দেশের সঙ্গে বাণিজ্যে কোনোরকম সহায়তা না করার ব্যাপারে সতর্ক করেছে। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুমকিও দিয়েছে।

ইরান গত এপ্রিল থেকে প্রায় ১৫ লাখ ব্যারেল তেলের ৫টি ট্যাংকার ভেনিজুয়েলায় পাঠিয়েছে।

তবে ক্যাপ্টেনদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞাকে অতিরিক্ত ঔদ্ধত্য বলে আখ্যা দিয়েছেন ভেনিজুয়েলার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোর্জ আরিজা।

ইরানের ৫ জাহাজ ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ জুন ২০২০, ১২:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ইরানের ৫ জাহাজ ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা
ছবি: সংগৃহীত

ইরানি জাহাজের পাঁচ ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে বুধবার নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এসব জাহাজ ভেনিজুয়েলায় তেল সরবরাহ করেছিল।

একই সঙ্গে ভেনিজুয়েলার বিরোধীদলীয় নেতা জোয়ান গুয়াইডোকে সমর্থনের কথা জানিয়েছে ওয়াশিংটন।

এক সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেন, ওই জাহাজে করে ১৫ লাখ ব্যারেল পেট্রল ও সংশ্লিষ্ট উপাদান সরবরাহ করা হয়েছে। এ সময় ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর সঙ্গে ব্যবসা করতে নাবিকদের হুশিয়ারি করেছেন।

মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। এক বিবৃতিতে পম্পেও বলেন, আজকের নিষেধাজ্ঞার ফলে এই ক্যাপ্টেনদের সম্পদ জব্দ করা হবে। কালোতালিকাভুক্ত হওয়ায় তাদের ক্যারিয়ার ও ভবিষ্যৎ অনেক ভোগান্তিতে পড়বে।

তিনি বলেন, আমরা জাতীয় পরিষদ, অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট গুইডো ও গণতন্ত্রকামী ভেনিজুয়েলার নাগরিকদের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রাখব।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন একদিকে ইরানের তেল রফতানি বন্ধ করে দিতে চাচ্ছে, অন্যদিকে মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চেষ্টা করছে।

এ কারণে যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন বিভিন্ন বন্দর, শিপিং কোম্পানি এবং ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিগুলোকে এ দুই দেশের সঙ্গে বাণিজ্যে কোনোরকম সহায়তা না করার ব্যাপারে সতর্ক করেছে। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুমকিও দিয়েছে।

ইরান গত এপ্রিল থেকে প্রায় ১৫ লাখ ব্যারেল তেলের ৫টি ট্যাংকার ভেনিজুয়েলায় পাঠিয়েছে।

তবে ক্যাপ্টেনদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞাকে অতিরিক্ত ঔদ্ধত্য বলে আখ্যা দিয়েছেন ভেনিজুয়েলার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোর্জ আরিজা।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন-ইরান সংকট