অবশেষে গালওয়ান থেকে সেনা সরাচ্ছে চীন ও ভারত

  অনলাইন ডেস্ক ০৬ জুলাই ২০২০, ১৫:১৯:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

চীন ও ভারতের সেনা। ফাইল ছবি

অবশেষে পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকা থেকে সেনা সরানো শুরু করেছে ভারত ও চীন।

উত্তেজনা কমাতে ‘বাফার জোন’ তৈরির উদ্দেশ্যেই এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

ভারত সরকারের সূত্রের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

খবরে বলা হয়, আপাতত গালওয়ানেই সেনা পেছনোর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। গোগরা হট স্প্রিং এলাকাতেও প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

তবে পূর্ব লাদাখের প্যাংগং লেকের উত্তরের ‘ফিঙ্গার এরিয়া’য় পরিস্থিতির কোনো পরিবর্তন হয়নি।

ভারতীয় সেনার একটি সূত্রের উল্লেখ করে সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, গালওয়ানে প্রায় এক-দুই কিলোমিটার পিছিয়ে গেছে চীন সেনা। তবে গালওয়ান নদীর তীরে এখনও পিপলস লিবারেশন আর্মির সাঁজোয়া গাড়ি রয়েছে। ভারতীয় সেনা পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে।

গত ১৫ জুন গালওয়ানের পেট্রোলিং পয়েন্ট-১৪ অদূরে চীনা বাহিনীর হামলায় কর্নেল, মেজরসহ ২০ জন ভারতীয় সেনার নিহত হয়। আহত হয় আরও ৭৬ ভারতীয় সেনা।

ভারতের কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানানো হয়েছে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (এলএসি) থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার পেছনে সরেছে চীন সেনা। গালওয়ান উপত্যকায় মোতায়েন ভারতীয় বাহিনীও আগের অবস্থান থেকে কিছুটা পিছিয়ে এসেছে।

এনএনআই জানিয়েছে, গালওয়ানে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর গত ২২ এবং ৩০ জুন দুই সেনার কোর কমান্ডার স্তরের বৈঠকের ফলশ্রুতিতেই এই ‘ডিসএনগেজমেন্ট’। রোববার থেকেই চীন সেনার তরফে পিছু হঠা শুরু হয়।

তবে গালওয়ান ও গোগরা হট স্প্রিং এলাকায় প্রক্রিয়া কার্যকর হলেও প্যাংগং লেকের উত্তরে চীন সেনা সরবে কি না, সে বিষয়ে সন্দিহান নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞেরা।

কারণ সেখানে ফিঙ্গার এরিয়া ৪ থেকে ৮-এর মধ্যে একাধিক স্থানে রাস্তা, কালভার্ট, কংক্রিটের বাঙ্কার তৈরি করে স্থায়ী ঘাঁটি বানিয়ে ফেলেছে চীন। ফলে এলএসি সংলগ্ন এলাকায় টহলদারিতে যেতে পারছে না ভারতীয় সেনা।

পাশাপাশি, উত্তর লাদাখের দৌলত বেগ ওল্ডি বিমানবাহিনীর ঘাঁটির অদূরে দেপাসাং এলাকায় এলএসি পেরিয়ে ঢুকে আসা লালফৌজ এখনও পিছু হটেনি বলে প্রকাশিত খবরে জানানো হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : সীমান্তে চীন-ভারত উত্তেজনা

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত