চার বিতর্কিত এলাকা থেকে সরছে চীন-ভারতের বাহিনী
jugantor
চার বিতর্কিত এলাকা থেকে সরছে চীন-ভারতের বাহিনী

  অনলাইন ডেস্ক  

০৮ জুলাই ২০২০, ১৬:৪৬:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

সীমান্তের বিতর্কিত এলাকা

চীন-ভারতের সীমান্তবর্তী চারটি বিতর্কিত এলাকা থেকে উভয় দেশ সেনা সরাতে রাজি হয়েছে। এসব বিতর্কিত জায়গা থেকে দেশ দুটির সেনাবাহিনী দুই কিলোমিটার দূরে অবস্থান করবে। উভয় দেশের সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে এই সমঝোতা হয়।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, হটস্প্রিং ও গোগরা এলাকায় আগামীকাল পিছু হটবে চীন-ভারত বাহিনী। প্যাংগং লেকের ফিঙ্গার ৪ এলাকায় চীনা বাহিনীর গতিবিধি পরিলক্ষিত হয়েছে। তাবু থেকে সামরিক সজ্জা সরানোর উদ্যোগ নিয়েছে সে দেশের বাহিনী।

খবরে বলা হয়েছে, যে চারটি জায়গা থেকে বাহিনী সরাবে দুই বাহিনী, সেগুলো হল লাদাখের গালওয়ান উপত্যকা, হটস্প্রিংস, গোগরা এবং প্যাংগংয়ের ফিঙার রিজিয়ন।

এদিকে সোমবারের উপগ্রহ চিত্রে দেখা গেছে, ১৪ নম্বর পেট্রল পয়েন্টে অস্থায়ী কাঠামোগুলো ভেঙে দেওয়া হয়েছে। সেই জায়গাটি পরিষ্কার। ওই এলাকায় ১৫ জুন দুই দেশের সেনা সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হন। সেনাবাহিনীর পদস্থ কর্তাদের ধারণা, সেখানে অন্তত ৪৫ জন চীনা সেনার মৃত্যু হয়েছে, তাদের মধ্যে কর্নেল পদ মর্যাদার এক কর্মকর্তাও রয়েছেন।

রোববারের আলোচনার পর, নয়াদিল্লির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, দ্রুততার সঙ্গে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর ডিসএগেজমেন্ট প্রক্রিয়া শেষ করতে সম্মত হয়েছে দুই পক্ষই।

সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদ মাধ্যমটির খবরে বলা হয়েছে, জুলাইয়ের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে সব এলাকা থেকে চীনের সরে যাওয়া নিয়ে সাবধানীভাবে আশাবাদী এবং দুই দেশের মধ্যে ওই সময়ের মধ্যে সেনাপর্যায়ের আরও উচ্চ-স্তরের বৈঠক হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

চার বিতর্কিত এলাকা থেকে সরছে চীন-ভারতের বাহিনী

 অনলাইন ডেস্ক 
০৮ জুলাই ২০২০, ০৪:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সীমান্তের বিতর্কিত এলাকা
স্যাটেলাইট ছবি

চীন-ভারতের সীমান্তবর্তী চারটি বিতর্কিত এলাকা থেকে উভয় দেশ সেনা সরাতে রাজি হয়েছে। এসব বিতর্কিত জায়গা থেকে দেশ দুটির সেনাবাহিনী দুই কিলোমিটার দূরে অবস্থান করবে। উভয় দেশের সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে এই সমঝোতা হয়। 

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, হটস্প্রিং ও গোগরা এলাকায় আগামীকাল পিছু হটবে চীন-ভারত বাহিনী। প্যাংগং লেকের ফিঙ্গার ৪ এলাকায় চীনা বাহিনীর গতিবিধি পরিলক্ষিত হয়েছে। তাবু থেকে সামরিক সজ্জা সরানোর উদ্যোগ নিয়েছে সে দেশের বাহিনী। 

খবরে বলা হয়েছে, যে চারটি জায়গা থেকে বাহিনী সরাবে দুই বাহিনী, সেগুলো হল লাদাখের গালওয়ান উপত্যকা, হটস্প্রিংস, গোগরা এবং প্যাংগংয়ের ফিঙার রিজিয়ন। 

এদিকে সোমবারের উপগ্রহ চিত্রে দেখা গেছে, ১৪ নম্বর পেট্রল পয়েন্টে অস্থায়ী কাঠামোগুলো ভেঙে দেওয়া হয়েছে। সেই  জায়গাটি পরিষ্কার। ওই এলাকায় ১৫ জুন দুই দেশের সেনা সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হন। সেনাবাহিনীর পদস্থ কর্তাদের ধারণা, সেখানে অন্তত ৪৫ জন চীনা সেনার মৃত্যু হয়েছে, তাদের মধ্যে কর্নেল পদ মর্যাদার এক কর্মকর্তাও রয়েছেন। 

রোববারের আলোচনার পর, নয়াদিল্লির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, দ্রুততার সঙ্গে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর ডিসএগেজমেন্ট প্রক্রিয়া শেষ করতে সম্মত হয়েছে দুই পক্ষই।

সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদ মাধ্যমটির খবরে বলা হয়েছে, জুলাইয়ের মাঝামাঝি সময়ের  মধ্যে সব এলাকা থেকে চীনের সরে যাওয়া নিয়ে সাবধানীভাবে আশাবাদী এবং দুই দেশের মধ্যে ওই সময়ের মধ্যে সেনাপর্যায়ের আরও উচ্চ-স্তরের বৈঠক হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : সীমান্তে চীন-ভারত উত্তেজনা

০৯ জানুয়ারি, ২০২১