করোনা: ড. ফাউচিকে আক্রমণ ট্রাম্প প্রশাসনের

  অনলাইন ডেস্ক ১৪ জুলাই ২০২০, ১৯:০১:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

ড. অ্যান্থনি ফাউচি। ছবি: বিবিসি

যুক্তরাষ্ট্রের করোনাবিষয়ক টাস্কফোর্সের সদস্য ও ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজের পরিচালক ড. অ্যান্থনি ফাউচির সমালোচনায় নেমেছে ট্রাম্প প্রশাসন।

বিবিসি জানিয়েছে, ড. ফাউচি দেশটির করোনাভাইরাস মোকাবেলায় একসময় পুরোধা ব্যক্তি হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু হোয়াইট হাউজ দিনে দিনে তার সমালোচনায় মুখর হয়ে উঠেছে।

জনস হপকিন্স ইউনির্ভাসিটির বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩ লাখ ছাড়িয়েছে। আর এ পর্যন্ত ১ লাখ ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন।

হোয়াইট হাউজের একজন কর্মকর্তা রোববার একটি তালিকা শেয়ার করে দেখাতে চেয়েছেন ড. ফাউচি অতীতে কী কী ভ্রান্ত মন্তব্য করেছেন।

তার মধ্যে রয়েছে মাস্ক ও কোভিড-১৯ সম্পর্কে ড. ফাউচির উপদেশ ও মন্তব্য কীভাবে পরিবর্তিত হয়েছে।

এর আগে করোনাভাইরাস মহামারী নিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে ড. ফাউচির বেশ কয়েকবার মতবিরোধ হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে ড. ফাউচিকে আক্রমণ করে ট্রাম্প প্রশাসনের কথাবার্তাও তীব্র হচ্ছে।

এদিকে স্ট্যানফোর্ড মেডিসিনকে দেওয়া এক সাক্ষৎকারে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস বাড়ার কারণ জানিয়েছেন ড. ফাউচি। এতে তিনি বলেন, পুরোপুরি শাটডাউন না করা আর বিধিনিষেধ শিথিলে তাড়াহুড়ার কারণেই যুক্তরাষ্ট্রে ফের ভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে।

আমরা পুরোপুরি শাটডাউন করতে পারিনি, এ কারণেই আমাদের সংক্রমণের হার আবার ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে। আমাদের আক্রান্তের সংখ্যা নামতে শুরু করেছিল, কিন্তু যখন (গ্রাফ) খানিকটা সমতল ছিল, তখনও এ সংখ্যা তুলনামূলক বেশিই ছিল, দিনে প্রায় ২০ হাজারের মতো আক্রান্ত শনাক্ত হচ্ছিল।


ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত