চীনা দূতাবাসের সামনে যুক্তরাষ্ট্র-ভারতের যৌথ বিক্ষোভ
jugantor
চীনা দূতাবাসের সামনে যুক্তরাষ্ট্র-ভারতের যৌথ বিক্ষোভ

  যুগান্তর ডেস্ক  

২০ জুলাই ২০২০, ১৮:৫৭:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনা দূতাবাসের সামনে যুক্তরাষ্ট্র-ভারতের যৌথ বিক্ষোভ
ছবি: সংগৃহীত

ভারত-চীনের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় ‘শি জিনপিংয়ের আগ্রাসন’ নিয়ে আরেকবার নয়াদিল্লির পাশে দাঁড়াল যুক্তরাষ্ট্র। ওয়াশিংটনে অবস্থিত চীনা দূতাবাসের সামনে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ দেখিয়েছে ভারতীয় এবং আমেরিকানরা। 

প্রতিবাদকারীরা চীনাবিরোধী পোস্টার নিয়ে বিক্ষোভ দেখান। স্লোগান দিতে থাকেন,‘চায়না কমিউনিস্ট: ডাউন, ডাউন’। 

রোববার বিক্ষোভকারীরা বলেন, ‘চীনারা ভাইরাস ছড়িয়ে বিশ্বের লক্ষ লক্ষ মানুষের প্রাণ কেড়েছে। বিশ্বের অর্থনৈতিক পরিস্থিতিকেও স্তব্ধ করে দিয়েছে।’ 

কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট মনোজ শ্রীনিলায়াম বলেন, ‘লাদাখে ভারতীয় ভূখণ্ডে অবৈধ চীনা আগ্রাসন, জমি অধিগ্রহণ এবং ভারতীয় সেনা হত্যার তীব্র নিন্দা জানাই।’

এদিকে লাদাখে রাফাল জেট মোতায়েন নিয়ে এ সপ্তাহেই আলোচনায় বসছেন ভারতের বিমান বাহিনীর কমান্ডাররা। 

সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, চলতি মাসের শেষদিকেই ভারতে আসছে রাফাল জেট। এই যুদ্ধবিমান দ্রুত লাদাখে মোতায়েন করা নিয়ে ও বৈঠকে আলোচনা হবে। আগামী ২২ জুলাই থেকে দু’দিন চলবে কমান্ডারদের ওই বৈঠক। 

সূত্রের খবর, বিমানবাহিনীর প্রধান আর কে এস ভাদুরিয়ার নেতৃত্বে ওই বৈঠকে মূল আলোচনার বিষয় হবে লাদাখের বর্তমান পরিস্থিতি। পাশাপাশি উত্তর ও পশ্চিম সীমান্তে যেসব সমরাস্ত্র মোতায়েন করা হয়েছে তা নিয়েও আলোচনা হবে। 

সম্প্রতি চীন ও ভারতের মধ্যে সংঘষের্র পর লাদাখে মিরেজ ২০০০, সুখোই-৩০ , মিগ-২৯ এর মতো ফাইটার জেট মোতায়েন করেছে ভারত।  

চীনা দূতাবাসের সামনে যুক্তরাষ্ট্র-ভারতের যৌথ বিক্ষোভ

 যুগান্তর ডেস্ক 
২০ জুলাই ২০২০, ০৬:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
চীনা দূতাবাসের সামনে যুক্তরাষ্ট্র-ভারতের যৌথ বিক্ষোভ
ছবি: সংগৃহীত

ভারত-চীনের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় ‘শি জিনপিংয়ের আগ্রাসন’ নিয়ে আরেকবার নয়াদিল্লির পাশে দাঁড়াল যুক্তরাষ্ট্র। ওয়াশিংটনে অবস্থিত চীনা দূতাবাসের সামনে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ দেখিয়েছে ভারতীয় এবং আমেরিকানরা।

প্রতিবাদকারীরা চীনাবিরোধী পোস্টার নিয়ে বিক্ষোভ দেখান। স্লোগান দিতে থাকেন,‘চায়না কমিউনিস্ট: ডাউন, ডাউন’।

রোববার বিক্ষোভকারীরা বলেন, ‘চীনারা ভাইরাস ছড়িয়ে বিশ্বের লক্ষ লক্ষ মানুষের প্রাণ কেড়েছে। বিশ্বের অর্থনৈতিক পরিস্থিতিকেও স্তব্ধ করে দিয়েছে।’

কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট মনোজ শ্রীনিলায়াম বলেন, ‘লাদাখে ভারতীয় ভূখণ্ডে অবৈধ চীনা আগ্রাসন, জমি অধিগ্রহণ এবং ভারতীয় সেনা হত্যার তীব্র নিন্দা জানাই।’

এদিকে লাদাখে রাফাল জেট মোতায়েন নিয়ে এ সপ্তাহেই আলোচনায় বসছেন ভারতের বিমান বাহিনীর কমান্ডাররা।

সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, চলতি মাসের শেষদিকেই ভারতে আসছে রাফাল জেট। এই যুদ্ধবিমান দ্রুত লাদাখে মোতায়েন করা নিয়ে ও বৈঠকে আলোচনা হবে। আগামী ২২ জুলাই থেকে দু’দিন চলবে কমান্ডারদের ওই বৈঠক।

সূত্রের খবর, বিমানবাহিনীর প্রধান আর কে এস ভাদুরিয়ার নেতৃত্বে ওই বৈঠকে মূল আলোচনার বিষয় হবে লাদাখের বর্তমান পরিস্থিতি। পাশাপাশি উত্তর ও পশ্চিম সীমান্তে যেসব সমরাস্ত্র মোতায়েন করা হয়েছে তা নিয়েও আলোচনা হবে।

সম্প্রতি চীন ও ভারতের মধ্যে সংঘষের্র পর লাদাখে মিরেজ ২০০০, সুখোই-৩০ , মিগ-২৯ এর মতো ফাইটার জেট মোতায়েন করেছে ভারত।

 

ঘটনাপ্রবাহ : সীমান্তে চীন-ভারত উত্তেজনা