ফ্রান্সে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণে জমি বরাদ্দ
jugantor
ফ্রান্সে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণে জমি বরাদ্দ

  শাহ সুহেল আহমদ, ফ্রান্স (প্যারিস) থেকে  

২৪ জুলাই ২০২০, ২১:৩৯:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

দীর্ঘদিনের চেষ্টার পর ফ্রান্সে বাস্তবে রূপ পেতে যাচ্ছে বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে স্থায়ী শহীদ মিনার। রাজধানী প্যারিস থেকে প্রায় ৭শ' কিলোমিটার দূরের শহর তুলুজে শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য ইতোমধ্যে জমি বরাদ্দ দিয়েছে স্থানীয় পৌরসভা। আর এতেই নড়েচড়ে বসেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

বাংলাদেশি কমিউনিটি অ্যাসোসিয়েশন তুলুজের সভাপতি কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ফকরুল আকম সেলিম জানান, দীর্ঘ প্রায় ১০ বছর চেষ্টার পর মেরি থেকে আমরা জায়গা বরাদ্দ পেতে সক্ষম হলাম।

তার তথ্যমতে, পূর্ণাঙ্গ শহীদ মিনার নির্মাণ করতে প্রাথমিকভাবে ৪০ হাজার ইউরো (প্রায় ৪০ লাখ টাকা) বাজেট নির্ধারণ করা হয়েছে। এই পুরো অর্থই কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিরা জোগান দেবেন। সবকিছু ঠিক থাকলে সেপ্টেম্বরের শেষদিকে নির্মাণ কাজ শেষ হতে পারে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। শহীদ মিনারের জন্য মেরি (পৌরসভা) থেকে জমি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ১২ মিটার। মূল শহীদ মিনারের নকশায় রয়েছে প্রস্থ ৬ মিটার ও উচ্চতা ৩ মিটার।

উল্লেখ্য, ফ্রান্সে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য এর আগে আরও বহুবার চেষ্টা করা হয়। ২০১৩ সালে তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি ফ্রান্সে এসে একটি শহীদ মিনারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেও কোনোটিই পূর্ণাঙ্গ রূপ পায়নি।

এদিকে রাজধানী প্যারিসেও স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন ফ্রাঙ্কো বাংলাদেশ কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সোহেল ইবনে হোসাইন।
 

ফ্রান্সে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণে জমি বরাদ্দ

 শাহ সুহেল আহমদ, ফ্রান্স (প্যারিস) থেকে 
২৪ জুলাই ২০২০, ০৯:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দীর্ঘদিনের চেষ্টার পর ফ্রান্সে বাস্তবে রূপ পেতে যাচ্ছে বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে স্থায়ী শহীদ মিনার। রাজধানী প্যারিস থেকে প্রায় ৭শ' কিলোমিটার দূরের শহর তুলুজে শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য ইতোমধ্যে জমি বরাদ্দ দিয়েছে স্থানীয় পৌরসভা। আর এতেই নড়েচড়ে বসেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

বাংলাদেশি কমিউনিটি অ্যাসোসিয়েশন তুলুজের সভাপতি কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ফকরুল আকম সেলিম জানান, দীর্ঘ প্রায় ১০ বছর চেষ্টার পর মেরি থেকে আমরা জায়গা বরাদ্দ পেতে সক্ষম হলাম।

তার তথ্যমতে, পূর্ণাঙ্গ শহীদ মিনার নির্মাণ করতে প্রাথমিকভাবে ৪০ হাজার ইউরো (প্রায় ৪০ লাখ টাকা) বাজেট নির্ধারণ করা হয়েছে। এই পুরো অর্থই কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিরা জোগান দেবেন। সবকিছু ঠিক থাকলে সেপ্টেম্বরের শেষদিকে নির্মাণ কাজ শেষ হতে পারে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। শহীদ মিনারের জন্য মেরি (পৌরসভা) থেকে জমি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ১২ মিটার। মূল শহীদ মিনারের নকশায় রয়েছে প্রস্থ ৬ মিটার ও উচ্চতা ৩ মিটার।

উল্লেখ্য, ফ্রান্সে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য এর আগে আরও বহুবার চেষ্টা করা হয়। ২০১৩ সালে তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি ফ্রান্সে এসে একটি শহীদ মিনারের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেও কোনোটিই পূর্ণাঙ্গ রূপ পায়নি।

এদিকে রাজধানী প্যারিসেও স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন ফ্রাঙ্কো বাংলাদেশ কালচারাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সোহেল ইবনে হোসাইন।