ব্রিটেনে ধর্ষণের অভিযোগে ক্ষমতাসীন দলের এমপি গ্রেফতার
jugantor
ব্রিটেনে ধর্ষণের অভিযোগে ক্ষমতাসীন দলের এমপি গ্রেফতার

  অনলাইন ডেস্ক  

০২ আগস্ট ২০২০, ১৮:৪১:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

ধর্ষণের অভিযোগে ব্রিটেনের ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টির এক এমপিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তবে তার নাম-পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।ব্রিটিশ সংসদের সাবেক এক কর্মী ওই আইনপ্রণেতার বিরুদ্ধে ৩১ জুলাই পুলিশের কাছে অভিযোগ করার পর ১ আগস্ট তাকে গ্রেফতার করা হয়।খবর বিবিসির।

পরে তিনি জামিনে মুক্তি পান।দেশটির মেট্রোপলিটন পুলিশ এ নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, কনজারভেটিভ পার্টির ওই এমপির(৫০) বিরুদ্ধে অভিযোগকারী গত বছরের জুলাই থেকে চলতি বছরের জানুয়ারি পর্যন্ত চারটি পৃথক ঘটনার উল্লেখ করেছেন।

তিনি কনজারভেটিভ আইনপ্রণেতার বিরুদ্ধে তাকে যৌন নিপীড়ন ও যৌন সম্পর্ক করতে বাধ্য করার অভিযোগ এনেছেন।

ব্রিটেনের পার্লামেন্ট ভবন ওয়েস্ট মিনিস্টারের লামবেথ ও হ্যাকনেতে ২০১৯ সালের জুলাই থেকে ২০২০ সালের জানুয়ারির মধ্যে ধর্ষণের এসব ঘটনা ঘটেছে।

চলতি মাসের মাঝামাঝিতে তিনি হাজিরা দেবেন এই শর্তে তাকে জামিন দেয়া হয়েছে। কনজারভেটিভ পার্টি বলেছে, তারা এ ধরনের যে কোনো অভিযোগ খুবই গুরুত্ব সহকারে নেন।

তবে তদন্তনাধীন বিষয় হওয়ায় এখনই তারা কোনো সিদ্ধান্ত জানাবেন না বলেও ঘোষণা দেন।

ব্রিটেনে ধর্ষণের অভিযোগে ক্ষমতাসীন দলের এমপি গ্রেফতার

 অনলাইন ডেস্ক 
০২ আগস্ট ২০২০, ০৬:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ধর্ষণের অভিযোগে ব্রিটেনের ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টির এক এমপিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

তবে তার নাম-পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।ব্রিটিশ সংসদের সাবেক এক কর্মী ওই আইনপ্রণেতার বিরুদ্ধে ৩১ জুলাই পুলিশের কাছে অভিযোগ করার পর ১ আগস্ট তাকে গ্রেফতার করা হয়।খবর বিবিসির।

পরে তিনি জামিনে মুক্তি পান।দেশটির মেট্রোপলিটন পুলিশ এ নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, কনজারভেটিভ পার্টির ওই এমপির(৫০) বিরুদ্ধে অভিযোগকারী গত বছরের জুলাই থেকে চলতি বছরের জানুয়ারি পর্যন্ত চারটি পৃথক ঘটনার উল্লেখ করেছেন।

তিনি কনজারভেটিভ আইনপ্রণেতার বিরুদ্ধে তাকে যৌন নিপীড়ন ও যৌন সম্পর্ক করতে বাধ্য করার অভিযোগ এনেছেন। 

ব্রিটেনের পার্লামেন্ট ভবন ওয়েস্ট মিনিস্টারের লামবেথ ও হ্যাকনেতে ২০১৯ সালের জুলাই থেকে ২০২০ সালের জানুয়ারির মধ্যে ধর্ষণের এসব ঘটনা ঘটেছে। 

চলতি মাসের মাঝামাঝিতে তিনি হাজিরা দেবেন এই শর্তে তাকে জামিন দেয়া হয়েছে। কনজারভেটিভ পার্টি বলেছে, তারা এ ধরনের যে কোনো অভিযোগ খুবই গুরুত্ব সহকারে নেন। 

তবে তদন্তনাধীন বিষয় হওয়ায় এখনই তারা কোনো সিদ্ধান্ত জানাবেন না বলেও ঘোষণা দেন।