আফগানিস্তানে কারাগারে আইএসের হামলায় নিহত বেড়ে ৩৯
jugantor
আফগানিস্তানে কারাগারে আইএসের হামলায় নিহত বেড়ে ৩৯

  অনলাইন ডেস্ক  

০৪ আগস্ট ২০২০, ১৪:৫৫:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের নানগারহার প্রদেশের জালালাবাদে কারাগারে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের হামলায় কমপক্ষে ৩৯ জন নিহত হয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে ২০ জন সাধারণ মানুষ এবং তিনজন হামলাকারীও রয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। খবর আরব নিউজের।

কারাগারটিতে গত রবি থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে আইএস জঙ্গিদের গোলাগুলি হয়। খবর বিবিসির।

রোববার বিকালে কারাগারের প্রধান ফটকের সামনে প্রথমে একটি গাড়িবোমা বিস্ফোরিত হয়। এর পরই নিরাপত্তারক্ষীদের ওপর হামলা চালায় বন্দুকধারীরা।

এ সময় চার শতাধিক বন্দি কারাগার থেকে পালিয়ে যান। নানগারহার প্রদেশের সরকারি মুখপাত্র আতাউল্লাহ খোজিয়ানি আইএসের হামলায় কমপক্ষে ৩৯ জন নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন।

আহত হয়েছেন কমপক্ষে আরও শতাধিক। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কারাগারটিতে এক হাজার ৭০০ কয়েদি ছিল।

তবে কয়েদিদের মুক্ত করতেই এ হামলা চালিয়েছে, না অন্য কারণে আইএস ওই হামলা চালিয়েছে তা এখনও পরিষ্কার হওয়া যায়নি।

ঈদ উপলক্ষে তালেবানদের সঙ্গে তিন দিনের যে অস্ত্রবিরতির চুক্তি হয়েছে, তার মধ্যেই ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

 

আফগানিস্তানে কারাগারে আইএসের হামলায় নিহত বেড়ে ৩৯

 অনলাইন ডেস্ক 
০৪ আগস্ট ২০২০, ০২:৫৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের নানগারহার প্রদেশের জালালাবাদে কারাগারে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের হামলায় কমপক্ষে ৩৯ জন নিহত হয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে ২০ জন সাধারণ মানুষ এবং তিনজন হামলাকারীও রয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। খবর আরব নিউজের।

কারাগারটিতে গত রবি থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে আইএস জঙ্গিদের গোলাগুলি হয়। খবর বিবিসির।

রোববার বিকালে কারাগারের প্রধান ফটকের সামনে প্রথমে একটি গাড়িবোমা বিস্ফোরিত হয়। এর পরই নিরাপত্তারক্ষীদের ওপর হামলা চালায় বন্দুকধারীরা।

এ সময় চার শতাধিক বন্দি কারাগার থেকে পালিয়ে যান। নানগারহার প্রদেশের সরকারি মুখপাত্র আতাউল্লাহ খোজিয়ানি আইএসের হামলায় কমপক্ষে ৩৯ জন নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন।

আহত হয়েছেন কমপক্ষে আরও শতাধিক। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কারাগারটিতে এক হাজার ৭০০ কয়েদি ছিল।

তবে কয়েদিদের মুক্ত করতেই এ হামলা চালিয়েছে, না অন্য কারণে আইএস ওই হামলা চালিয়েছে তা এখনও পরিষ্কার হওয়া যায়নি।

ঈদ উপলক্ষে তালেবানদের সঙ্গে তিন দিনের যে অস্ত্রবিরতির চুক্তি হয়েছে, তার মধ্যেই ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে।