নাইজারে ফ্রান্সের ৬ নাগরিকসহ ৮ জনকে গুলি করে হত্যা
jugantor
নাইজারে ফ্রান্সের ৬ নাগরিকসহ ৮ জনকে গুলি করে হত্যা

  অনলাইন ডেস্ক  

১০ আগস্ট ২০২০, ১১:১০:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ নাইজারে বন্দুকধারীদের হামলায় ফ্রান্সের ছয়জন নাগরিক, তাদের স্থানীয় পথপ্রদর্শক ও গাড়িচালক নিহত হয়েছেন।

ফ্রান্সের ওই ছয় নাগরিক একটি আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থায় কাজ করত বলে জানা গেছে। 

রোববার দেশটির একটি বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যে মোটরসাইকেলে করে আসা বন্দুকধারীরা এ হামলা চালায়। রয়টার্স।

স্থানীয় টিলাবেরি অঞ্চলের গভর্নর টিজানি ইব্রাহিম কাটিয়ালা জানিয়েছেন, নাইজারের রাজধানী নিয়ামে থেকে মাত্র ৬৫ কিলোমিটার দূরে একটি জিরাফ অভয়ারণ্যে হামলার ঘটনাটি ঘটে। পথরোধ করার পর তাদের হত্যা করা হয় বলে জানান তিনি।

নাইজারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইউসুফু কেতমবি বলেন, ফ্রান্সের ওই ছয় নাগরিক একটি আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থায় কাজ করত।

পৃথকভাবে ফরাসি মানবিক ত্রাণ সংস্থা এসিটিইডি’র একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে তাদের কর্মীরাও রয়েছেন।

তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী হামলা দায় স্বীকার করেনি। তবে নাইজারের কয়েকটি অঞ্চলে যেখানে বোকো হারাম ও ইসলামিক স্টেটের অনুগত গোষ্ঠীসহ জঙ্গিদের তৎপরতা আছে, সেসব এলাকায় ভ্রমণ না করতে লোকজনকে সতর্ক করেছিল ফ্রান্স ও অন্যান্য কয়েকটি দেশ।

নাইজারে ফ্রান্সের ৬ নাগরিকসহ ৮ জনকে গুলি করে হত্যা

 অনলাইন ডেস্ক 
১০ আগস্ট ২০২০, ১১:১০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ নাইজারে বন্দুকধারীদের হামলায় ফ্রান্সের ছয়জন নাগরিক, তাদের স্থানীয় পথপ্রদর্শক ও গাড়িচালক নিহত হয়েছেন।

ফ্রান্সের ওই ছয় নাগরিক একটি আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থায় কাজ করত বলে জানা গেছে।

রোববার দেশটির একটি বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যে মোটরসাইকেলে করে আসা বন্দুকধারীরা এ হামলা চালায়। রয়টার্স।

স্থানীয় টিলাবেরি অঞ্চলের গভর্নর টিজানি ইব্রাহিম কাটিয়ালা জানিয়েছেন, নাইজারের রাজধানী নিয়ামে থেকে মাত্র ৬৫ কিলোমিটার দূরে একটি জিরাফ অভয়ারণ্যে হামলার ঘটনাটি ঘটে। পথরোধ করার পর তাদের হত্যা করা হয় বলে জানান তিনি।

নাইজারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইউসুফু কেতমবি বলেন, ফ্রান্সের ওই ছয় নাগরিক একটি আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থায় কাজ করত।

পৃথকভাবে ফরাসি মানবিক ত্রাণ সংস্থা এসিটিইডি’র একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে তাদের কর্মীরাও রয়েছেন।

তাৎক্ষণিকভাবে কোনো গোষ্ঠী হামলা দায় স্বীকার করেনি। তবে নাইজারের কয়েকটি অঞ্চলে যেখানে বোকো হারাম ও ইসলামিক স্টেটের অনুগত গোষ্ঠীসহ জঙ্গিদের তৎপরতা আছে, সেসব এলাকায় ভ্রমণ না করতে লোকজনকে সতর্ক করেছিল ফ্রান্স ও অন্যান্য কয়েকটি দেশ।