দক্ষিণ আফ্রিকায় সিগারেট বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হচ্ছে
jugantor
দক্ষিণ আফ্রিকায় সিগারেট বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হচ্ছে

  শওকত বিন আশরাফ, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে  

১২ আগস্ট ২০২০, ২০:০৭:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনা সংক্রমণ শনাক্ত ও মৃত্যুর হার কমে আসায় এবং অর্থনীতির গতিশীলতা বজায় রাখতে শীঘ্রই লকডাউন নীতিমালা ২য় স্তরে নামিয়ে আনা হবে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাপুসার সঙ্গে পরামর্শ করে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে এ সিদ্ধান্ত জানাবে করোনা কমান্ড কাউন্সিল।

স্থানীয় বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন সংবাদমাধ্যম বুধবার সকালে এমন তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, এ সময় সিগারেট ও অ্যালকোহল বিক্রির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে।

তবে হোম অ্যাফেয়ার্স, ভিএফএস ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হবে কিনা- এ ব্যাপারে কিছু এখনও জানা যায়নি।

দেশটিতে মঙ্গলবার সর্বনিম্ন সংক্রমণ ২৫১১ জন শনাক্তের মাধ্যমে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ৬৬ হাজার ১০৯ জন এবং সর্বনিম্ন ১৩০ জন মৃত্যুর রেকর্ডের মধ্য দিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৭৫১ জন।

তবে সুস্থ হয়েছে ৪ লাখ ২৬ হাজার ১২৫ জন; যা মোট আক্রান্তের ৭৫ শতাংশ। দক্ষিণ আফ্রিকা বর্তমানে বিশ্বে করোনা আক্রান্ত দেশের তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছে।
 

দক্ষিণ আফ্রিকায় সিগারেট বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হচ্ছে

 শওকত বিন আশরাফ, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে 
১২ আগস্ট ২০২০, ০৮:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনা সংক্রমণ শনাক্ত ও মৃত্যুর হার কমে আসায় এবং অর্থনীতির গতিশীলতা বজায় রাখতে শীঘ্রই লকডাউন নীতিমালা ২য় স্তরে নামিয়ে আনা হবে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাপুসার সঙ্গে পরামর্শ করে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে এ সিদ্ধান্ত জানাবে করোনা কমান্ড কাউন্সিল।

স্থানীয় বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন সংবাদমাধ্যম বুধবার সকালে এমন তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, এ সময় সিগারেট ও অ্যালকোহল বিক্রির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে।

তবে হোম অ্যাফেয়ার্স, ভিএফএস ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হবে কিনা- এ ব্যাপারে কিছু এখনও জানা যায়নি।

দেশটিতে মঙ্গলবার সর্বনিম্ন সংক্রমণ ২৫১১ জন শনাক্তের মাধ্যমে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ৬৬ হাজার ১০৯ জন এবং সর্বনিম্ন ১৩০ জন মৃত্যুর রেকর্ডের মধ্য দিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৭৫১ জন।

তবে সুস্থ হয়েছে ৪ লাখ ২৬ হাজার ১২৫ জন; যা মোট আক্রান্তের ৭৫ শতাংশ। দক্ষিণ আফ্রিকা বর্তমানে বিশ্বে করোনা আক্রান্ত দেশের তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছে।