ভারতে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের ভূমিকার সমালোচনা, অতঃপর...
jugantor
ভারতে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের ভূমিকার সমালোচনা, অতঃপর...

  অনলাইন ডেস্ক  

১৪ আগস্ট ২০২০, ১৭:২১:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রবীণ আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ
প্রবীণ আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ। ছবি: এইচডব্লিউ নিউজ

ভারতের গণতন্ত্র নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের ভূমিকা ও ৪ জন বিচারপতির ভূমিকা নিয়ে সমালোচনা করে টুইট বার্তা দেয়া দেশটির প্রবীণ আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণকে আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করেছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।  

বিচারপতি অরুণ মিশ্র, বিচারপতি বিআর গাভাই ও কৃষ্ণ মুরারিকে নিয়ে গঠিত তিন বিচারপতির সুপ্রিম বেঞ্চ প্রশান্ত ভূষণের ওই বিতর্কিত টুইট প্রসঙ্গে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে শুক্রবার এ রায় দেন। খবর এনডিটিভির। 

খবরে বলা হয়, দোষী সাব্যস্ত হলেও তাকে কী সাজা দেয়া হবে তা এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। প্রবীণ ওই আইনজীবীকে কী শাস্তি দেওয়া হবে, তা  আগামী ২০ আগস্ট নির্দেশ দেবে সুপ্রিম কোর্ট। 

মূলত দুটি টুইট করার কারণে প্রাক্তন আম আদমি পার্টির নেতা ও  প্রবীণ আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করা হয়। 

গত মাসে নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে আদমি পার্টির নেতা প্রশান্ত ভূষণ লেখেন,  “ভবিষ্যতে ইতিহাসবিদরা যখন গত ৬ বছরের দিকে ফিরে তাকাবেন তখন দেখতে পাবেন যে ঘোষিত জরুরি অবস্থা না হলেও কীভাবে দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস করা হয়েছে।” 

তিনি আরও উল্লেখ করেন, সুপ্রিম কোর্টের ভূমিকা ও ৪ জন বিচারপতির ভূমিকাও সেসময় বিশেষভাবে চিহ্নিত হবে। তাঁর টুইট ঘিরে বিতর্কের ঝড় ওঠে।

আরও একটি টুইটে তিনি প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদের হার্লে ডেভিডসন বাইকে চড়ার ছবি নিয়ে লেখেন । টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘এমন একটা সংকটের সময় প্রধান বিচারপতি মাস্ক ও হেলমেট না পরে বাইকে চড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। অথচ এই লকডাউনে দেশের নাগরিকরা বিচার পাচ্ছেন না।’

ভারতে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের ভূমিকার সমালোচনা, অতঃপর...

 অনলাইন ডেস্ক 
১৪ আগস্ট ২০২০, ০৫:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
প্রবীণ আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ
প্রবীণ আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ। ছবি: এইচডব্লিউ নিউজ

ভারতের গণতন্ত্র নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের ভূমিকা ও ৪ জন বিচারপতির ভূমিকা নিয়ে সমালোচনা করে টুইট বার্তা দেয়া দেশটির প্রবীণ আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণকে আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করেছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

বিচারপতি অরুণ মিশ্র, বিচারপতি বিআর গাভাই ও কৃষ্ণ মুরারিকে নিয়ে গঠিত তিন বিচারপতির সুপ্রিম বেঞ্চ প্রশান্ত ভূষণের ওই বিতর্কিত টুইট প্রসঙ্গে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে শুক্রবার এ রায় দেন। খবর এনডিটিভির।

খবরে বলা হয়, দোষী সাব্যস্ত হলেও তাকে কী সাজা দেয়া হবে তা এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। প্রবীণ ওই আইনজীবীকে কী শাস্তি দেওয়া হবে, তা আগামী ২০ আগস্ট নির্দেশ দেবে সুপ্রিম কোর্ট।

মূলত দুটি টুইট করার কারণে প্রাক্তন আম আদমি পার্টির নেতা ও প্রবীণ আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করা হয়।

গত মাসে নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে আদমি পার্টির নেতা প্রশান্ত ভূষণ লেখেন, “ভবিষ্যতে ইতিহাসবিদরা যখন গত ৬ বছরের দিকে ফিরে তাকাবেন তখন দেখতে পাবেন যে ঘোষিত জরুরি অবস্থা না হলেও কীভাবে দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস করা হয়েছে।”

তিনি আরও উল্লেখ করেন, সুপ্রিম কোর্টের ভূমিকা ও ৪ জন বিচারপতির ভূমিকাও সেসময় বিশেষভাবে চিহ্নিত হবে। তাঁর টুইট ঘিরে বিতর্কের ঝড় ওঠে।

আরও একটি টুইটে তিনি প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদের হার্লে ডেভিডসন বাইকে চড়ার ছবি নিয়ে লেখেন । টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘এমন একটা সংকটের সময় প্রধান বিচারপতি মাস্ক ও হেলমেট না পরে বাইকে চড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। অথচ এই লকডাউনে দেশের নাগরিকরা বিচার পাচ্ছেন না।’