ফিলিস্তিন সমস্যার সমাধান ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি আসবে না: রাশিয়া
jugantor
ফিলিস্তিন সমস্যার সমাধান ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি আসবে না: রাশিয়া

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:২২:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

ফিলিস্তিন সমস্যার সমাধান ছাড়া মধ্যপ্রচ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা হবে না: রাশিয়া

রাশিয়া বলেছে, ইসরাইলি-ফিলিস্তিনি সংঘাতের অবসান ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠার চিন্তা করা হবে ভুল।

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে দীর্ঘ দিনের শত্রু দেশ বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে ইসরাইলের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার পর রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে একথা বলা হয়।-খবর এএফপির

রাশিয়া জানায়, এমন চুক্তির ফলে ইসরাইল ও আরব বিশ্বের অনেক দেশের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার ক্ষেত্রে অগ্রগতি হলেও ফিলিস্তিন সমস্যা এখনো চরম পর্যায়ে রয়েছে।

তারা জানায়, ফিলিস্তিন সমস্যার সমাধান খুঁজে বের করা ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যের স্থায়ী স্থিতিশীলতা অর্জনের ক্ষেত্রে এটি একটি ভুল সিদ্ধান্ত হবে।
মস্কো এ সংকট সমাধানের সমন্বিত প্রচেষ্টা জোরদারে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, রাশিয়া এ ধরনের যৌথ প্রচেষ্টা চালানোর জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

এদিকে হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ মার্ক মিডোসও বলেছেন, ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণ করতে আরও পাঁচটি দেশ গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করছে।

এর আগে চলতি সপ্তাহে দখলদার রাষ্ট্রটির সঙ্গে শান্তি চুক্তি করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার এয়ার ফোর্স ওয়ানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব তথ্য দিলেও সেই পাঁচটি দেশ নিয়ে বিস্তারিত কোনো বক্তব্য দেননি।

উইসকনসিনে নির্বাচনী প্রচারে যোগ দিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল এয়ার ফোর্স ওয়ান।

মিডোস বলেন, তিনটি দেশই ওই অঞ্চলের। কিন্তু এর বেশি কিছু তিনি বলতে অস্বীকার করেন।

আরও অনেক দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে চায় বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন ট্রাম্প। তবে সম্ভাব্য এসব দেশের মধ্যে ওমান একটি।

দেশটির রাষ্ট্রদূত মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে ইসরাইলের সঙ্গে আমিরাতের শান্তি চুক্তির অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সৌদি আরবও অবৈধ রাষ্ট্রটির সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনে অবশেষে রাজি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প।

ফিলিস্তিন সমস্যার সমাধান ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি আসবে না: রাশিয়া

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:২২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফিলিস্তিন সমস্যার সমাধান ছাড়া মধ্যপ্রচ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা হবে না: রাশিয়া
ছবি: সংগৃহীত

রাশিয়া বলেছে, ইসরাইলি-ফিলিস্তিনি সংঘাতের অবসান ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠার চিন্তা করা হবে ভুল। 

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে দীর্ঘ দিনের শত্রু দেশ বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে ইসরাইলের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার পর রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে একথা বলা হয়।-খবর এএফপির

রাশিয়া জানায়, এমন চুক্তির ফলে ইসরাইল ও আরব বিশ্বের অনেক দেশের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার ক্ষেত্রে অগ্রগতি হলেও ফিলিস্তিন সমস্যা এখনো চরম পর্যায়ে রয়েছে। 

তারা জানায়, ফিলিস্তিন সমস্যার সমাধান খুঁজে বের করা ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যের স্থায়ী স্থিতিশীলতা অর্জনের ক্ষেত্রে এটি একটি ভুল সিদ্ধান্ত হবে। 
মস্কো এ সংকট সমাধানের সমন্বিত প্রচেষ্টা জোরদারে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, রাশিয়া এ ধরনের যৌথ প্রচেষ্টা চালানোর জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

এদিকে হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ মার্ক মিডোসও বলেছেন, ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণ করতে আরও পাঁচটি দেশ গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করছে।

এর আগে চলতি সপ্তাহে দখলদার রাষ্ট্রটির সঙ্গে শান্তি চুক্তি করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার এয়ার ফোর্স ওয়ানে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব তথ্য দিলেও সেই পাঁচটি দেশ নিয়ে বিস্তারিত কোনো বক্তব্য দেননি।

উইসকনসিনে নির্বাচনী প্রচারে যোগ দিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল এয়ার ফোর্স ওয়ান।

মিডোস বলেন, তিনটি দেশই ওই অঞ্চলের। কিন্তু এর বেশি কিছু তিনি বলতে অস্বীকার করেন।

আরও অনেক দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে চায় বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন ট্রাম্প। তবে সম্ভাব্য এসব দেশের মধ্যে ওমান একটি।

দেশটির রাষ্ট্রদূত মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে ইসরাইলের সঙ্গে আমিরাতের শান্তি চুক্তির অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সৌদি আরবও অবৈধ রাষ্ট্রটির সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনে অবশেষে রাজি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প।