সোলাইমানিকে হত্যার পক্ষে সাফাই পম্পেওর
jugantor
সোলাইমানিকে হত্যার পক্ষে সাফাই পম্পেওর

  যুগান্তর ডেস্ক  

২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩:৪৬:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সোলাইমানিকে হত্যার পক্ষে সাফাই পম্পেওর

ইরানের কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার পক্ষে সাফাই গাইলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। তিনি বলেছেন, সোলাইমানিকে হত্যা সময়োচিত পদক্ষেপ। পম্পেও মার্কিন টিভি চ্যানেল ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন।

চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ড্রোন হামলা চালিয়ে জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যা করেন মার্কিন সেনারা।
ইরাক সরকারের আমন্ত্রণে বাগদাদে রাষ্ট্রীয় সফরে গিয়েছিলেন কাসেম সোলাইমানি। সেখানে তাকে হত্যা করা হয়। এই হত্যার নিন্দা জানিয়েছে মুসলিম বিশ্ব।

পম্পেও ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এই হত্যার পক্ষে সাফাই গেয়ে বলেন, তাকে হত্যা ‘অত্যন্ত ভালো পদক্ষেপ’।
এর আগেও এক বক্তব্যে পম্পেও জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যার ঘটনাকে ‘সাহসী পদক্ষেপ’ হিসেবে বর্ণনা করে বলেছিলেন– ইরানি এই জেনারেলকে হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেয়ার ঘটনায় তিনি ভূমিকা রেখেছেন।

মার্কিন সেনাদের ড্রোন হামলায় জেনারেল সোলাইমানি মারা যাওয়ার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রকাশ্যে ঘোষণা করেছিলেন, তার সরাসরি নির্দেশে এই বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। আইআরজিসির কমান্ডার হোসেইন সালামি রোববার এই হত্যার বদলা নেয়ার ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, যারা এই হত্যায় প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভূমিকা রেখেছে ইরান তাদের বিরুদ্ধে সময়োচিত জবাব দেবে।

সোলাইমানিকে হত্যার পক্ষে সাফাই পম্পেওর

 যুগান্তর ডেস্ক 
২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সোলাইমানিকে হত্যার পক্ষে সাফাই পম্পেওর
ফাইল ছবি

ইরানের কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার পক্ষে সাফাই গাইলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। তিনি বলেছেন, সোলাইমানিকে হত্যা সময়োচিত পদক্ষেপ। পম্পেও মার্কিন টিভি চ্যানেল ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব  কথা বলেন।

চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ড্রোন হামলা চালিয়ে জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যা করেন মার্কিন সেনারা।
ইরাক সরকারের আমন্ত্রণে বাগদাদে রাষ্ট্রীয় সফরে গিয়েছিলেন কাসেম সোলাইমানি। সেখানে তাকে হত্যা করা হয়। এই হত্যার নিন্দা জানিয়েছে মুসলিম বিশ্ব।

পম্পেও ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এই হত্যার পক্ষে সাফাই গেয়ে বলেন, তাকে হত্যা ‘অত্যন্ত ভালো পদক্ষেপ’। 
এর আগেও এক বক্তব্যে পম্পেও জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যার ঘটনাকে ‘সাহসী পদক্ষেপ’ হিসেবে বর্ণনা করে বলেছিলেন– ইরানি এই জেনারেলকে হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেয়ার ঘটনায় তিনি ভূমিকা রেখেছেন।

মার্কিন সেনাদের ড্রোন হামলায় জেনারেল সোলাইমানি মারা যাওয়ার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রকাশ্যে ঘোষণা করেছিলেন, তার সরাসরি নির্দেশে এই বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। আইআরজিসির কমান্ডার হোসেইন সালামি রোববার এই হত্যার বদলা নেয়ার ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, যারা এই হত্যায় প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভূমিকা রেখেছে ইরান তাদের বিরুদ্ধে সময়োচিত জবাব দেবে। 

 

ঘটনাপ্রবাহ : ইরানি শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহত