সীমান্তে মুখোমুখি অবস্থানের মধ্যেই ভারতের রাফায়েল উড়ল লাদাখে
jugantor
সীমান্তে মুখোমুখি অবস্থানের মধ্যেই ভারতের রাফায়েল উড়ল লাদাখে

  অনলাইন ডেস্ক  

২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:১৮:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

রাফায়েল যুদ্ধবিমান

চীনের সঙ্গে পাঁচ ধরে সীমান্তে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে ভারত। দুই দেশের পক্ষ থেকেই অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে কয়েকবার ব্যর্থ আলোচনাও হয়েছে। সবশেষ সোমবার চীনের মোল্ডো এলাকায় আলোচনার আগেই লাদাখ সীমান্তে অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান রাফায়েল উড়িয়েছে ভারতীয় বাহিনী। খবর-টাইমস অব ইন্ডিয়া।

ভারত-চীন সীমান্ত অসন্তোষের মধ্যে সদ্য ফ্রান্স থেকে কেনা এই বিমানবহরের লাদাখের আকাশে আনাগোনা বহু প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।

রোববার প্রতিরক্ষা সূত্র জানিয়েছে, ১০ সেপ্টেম্বর আমবালা বিমান ঘাঁটিতে রাখা যুদ্ধবিমানগুলো সাম্প্রতিক দিনগুলোতে পরীক্ষামূলক মহড়া হিসেবে লাদাখে উড়েছে।

গালওয়ান সংঘর্ষের পরই ভারত-চীন নিজেদের আকাশসীমায় যুদ্ধবিমানের মহড়া দিচ্ছে। ভারতীয় বিমান বাহিনীর মিগ-২১ এবং তেজস যুদ্ধবিমান নিয়মিত আকাশে উড়ছে। চিনুক এবং অ্যাপাচি হেলিকপটারও দেখা যাচ্ছে। কিন্তু নতুন কেনা রাফাল কেন লাদাখের আকাশে তাই নিয়ে জল্পনা এখন তুঙ্গে।

এদিকে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, সোমবার সকাল থেকে লাদাখের আকাশে উড়ছে রাফায়েল যুদ্ধবিমান।

এর আগে রোববার সন্ধ্যার পড়ে আম্বালা এয়ারবেস থেকে লাদাখের উদ্দেশে রওনা দেয় রাফাল যুদ্ধবিমান। লাদাখে পরিস্থিতির ওপর নজর রাখতেই রাফালকে কাজে লাগানো হয়েছিল বলে মনে করা হচ্ছে।

বলা হচ্ছে, ভারতীয় বিমান বাহিনী এসব যুদ্ধবিমানের মহড়া দিয়ে চীনা বাহিনীর ওপর নজর রাখছে।

সীমান্তে মুখোমুখি অবস্থানের মধ্যেই ভারতের রাফায়েল উড়ল লাদাখে

 অনলাইন ডেস্ক 
২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রাফায়েল যুদ্ধবিমান
রাফায়েল যুদ্ধবিমান। ছবি: সংগৃহীত

চীনের সঙ্গে পাঁচ ধরে সীমান্তে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে ভারত। দুই দেশের পক্ষ থেকেই অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে কয়েকবার ব্যর্থ আলোচনাও হয়েছে। সবশেষ সোমবার চীনের  মোল্ডো এলাকায় আলোচনার আগেই লাদাখ সীমান্তে অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান রাফায়েল উড়িয়েছে ভারতীয় বাহিনী। খবর-টাইমস অব ইন্ডিয়া।   

ভারত-চীন সীমান্ত অসন্তোষের মধ্যে সদ্য ফ্রান্স থেকে কেনা এই বিমানবহরের লাদাখের আকাশে আনাগোনা বহু প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।

রোববার প্রতিরক্ষা সূত্র জানিয়েছে, ১০ সেপ্টেম্বর আমবালা বিমান ঘাঁটিতে রাখা যুদ্ধবিমানগুলো সাম্প্রতিক দিনগুলোতে পরীক্ষামূলক মহড়া হিসেবে লাদাখে উড়েছে। 

গালওয়ান সংঘর্ষের পরই ভারত-চীন নিজেদের আকাশসীমায় যুদ্ধবিমানের মহড়া দিচ্ছে। ভারতীয় বিমান বাহিনীর মিগ-২১ এবং তেজস যুদ্ধবিমান নিয়মিত আকাশে উড়ছে। চিনুক এবং অ্যাপাচি হেলিকপটারও দেখা যাচ্ছে। কিন্তু নতুন কেনা রাফাল কেন লাদাখের আকাশে তাই নিয়ে জল্পনা এখন তুঙ্গে।

এদিকে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, সোমবার সকাল থেকে লাদাখের আকাশে উড়ছে রাফায়েল যুদ্ধবিমান। 

এর আগে রোববার সন্ধ্যার পড়ে আম্বালা এয়ারবেস থেকে লাদাখের উদ্দেশে রওনা দেয় রাফাল যুদ্ধবিমান। লাদাখে পরিস্থিতির ওপর নজর রাখতেই রাফালকে কাজে লাগানো হয়েছিল বলে মনে করা হচ্ছে।

বলা হচ্ছে, ভারতীয় বিমান বাহিনী এসব যুদ্ধবিমানের মহড়া দিয়ে চীনা বাহিনীর ওপর নজর রাখছে। 

 

 

ঘটনাপ্রবাহ : সীমান্তে চীন-ভারত উত্তেজনা