চীনে প্রেসিডেন্টের সমালোচনা করায় বিলিয়নিয়ারের ১৮ বছরের জেল
jugantor
চীনে প্রেসিডেন্টের সমালোচনা করায় বিলিয়নিয়ারের ১৮ বছরের জেল

  অনলাইন ডেস্ক  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:১৩:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সমালোচনা করায় দুর্নীতির অভিযোগ এনে দেশটির এক বিলিয়নিয়ার ব্যবসায়ীকে ১৮ বছরের জেল দেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাস মোকাবেলা নিয়ে শি জিনপিংয়ের সমালোচনা করেছিলেন রেন ঝিকিং নামে ওই ধণকুবের। খবর সিএনএনের।

দেশটির এক আদালত মঙ্গলবার তাকে এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত ওই ব্যবসায়ী সাবেক রিয়াল এস্টেট ব্যবসায়ী।

চীন সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের একসময় খুব ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল রেন ঝিকিংয়ের। মার্চ মাসে দেশটিতে করোনাভাইরাস মোকাবেলা ব্যবস্থা নিয়ে প্রেসিডেন্ট শির সমালোচনা করার পর থেকে নিরুদ্দেশ হন। পরে তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়।

মঙ্গলবার সেই অভিযোগের মামলার রায়ে রেন ঝিকিংয়াংকে ১৮ বছরের শাস্তি দিয়েছেন বেইজিংয়ের একটি আদালত।

রায়ে বলা হয়, জনগণের প্রায় ১ কোটি ৬৩ লাখ ডলার মেরে খাওয়া, ঘুষ নেয়া এবং ক্ষমতার অপব্যবহার করাসহ রেনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির একাধিক অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ১৮ বছরের জেলের পাশাপাশি ৬ লাখ ২০ ডলার জরিমানা করা হয়েছে।

আদালতের রায়ে বলা হয়েছে, রেন তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ স্বীকার করেছেন। শাস্তিও মেনে নিয়েছেন। বিচার পর্যবেক্ষকদের মতে, চীনের আদালতে দুর্নীতিবিষয়ক অভিযোগগুলোতে দোষীদের দোষ স্বীকারের হার প্রায় ৯৯ শতাংশ।

চীনে প্রেসিডেন্টের সমালোচনা করায় বিলিয়নিয়ারের ১৮ বছরের জেল

 অনলাইন ডেস্ক 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সমালোচনা করায় দুর্নীতির অভিযোগ এনে দেশটির এক বিলিয়নিয়ার ব্যবসায়ীকে ১৮ বছরের জেল দেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাস মোকাবেলা নিয়ে শি জিনপিংয়ের সমালোচনা করেছিলেন রেন ঝিকিং নামে ওই ধণকুবের। খবর সিএনএনের।

দেশটির এক আদালত মঙ্গলবার তাকে এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত ওই ব্যবসায়ী সাবেক রিয়াল এস্টেট ব্যবসায়ী।

চীন সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের একসময় খুব ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল রেন ঝিকিংয়ের। মার্চ মাসে দেশটিতে করোনাভাইরাস মোকাবেলা ব্যবস্থা নিয়ে প্রেসিডেন্ট শির সমালোচনা করার পর থেকে নিরুদ্দেশ হন। পরে তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়।

মঙ্গলবার সেই অভিযোগের মামলার রায়ে রেন ঝিকিংয়াংকে ১৮ বছরের শাস্তি দিয়েছেন বেইজিংয়ের একটি আদালত।

রায়ে বলা হয়, জনগণের প্রায় ১ কোটি ৬৩ লাখ ডলার মেরে খাওয়া, ঘুষ নেয়া এবং ক্ষমতার অপব্যবহার করাসহ রেনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির একাধিক অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ১৮ বছরের জেলের পাশাপাশি ৬ লাখ ২০ ডলার জরিমানা করা হয়েছে।

আদালতের রায়ে বলা হয়েছে, রেন তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ স্বীকার করেছেন। শাস্তিও মেনে নিয়েছেন। বিচার পর্যবেক্ষকদের মতে, চীনের আদালতে দুর্নীতিবিষয়ক অভিযোগগুলোতে দোষীদের দোষ স্বীকারের হার প্রায় ৯৯ শতাংশ।