প্রথমবারের মতো অ্যাম্বুলেন্স চালকের আসনে যে সৌদি নারী
jugantor
প্রথমবারের মতো অ্যাম্বুলেন্স চালকের আসনে যে সৌদি নারী

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:৪৯:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রথমবারের মতো অ্যাম্বুলেন্স চালকের আসনে যে সৌদি নারী

গাড়ির পর এবার প্রথমবারের মতো সৌদি কোনো নারী অ্যাম্বুলেন্স চালকের আসনে বসলেন। সম্প্রতি সারাহ খলফ আল আনজি নামক এক সৌদি নারী প্রথম অ্যাম্বুলেন্স চালিকা হিসেবে দেশটিতে আলোচনায় এসেছেন।

এই নারী একটি অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবার মাধ্যমে রোগীদের বাড়ি থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়াসহ তাদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দিয়ে এ রেকর্ড তৈরি করেছেন।

আল আরাবিয়া উর্দু জানিয়েছে, সারা আল আনজি জর্ডানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। জর্ডানে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত প্রিন্স খালিদ বিন তুর্কি আল সৌদ তাকে বিশেষ সম্মানে ভূষিত করেছেন।

তিনি বলেন, আমি একজন নারী হিসেবে অ্যাম্বুলেন্স চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ ছিল না; তবে সম্প্রতি সমাজকে করোনার মহামারী থেকে বাঁচানোর জন্যই এ সিদ্ধান্ত নিতে হয়। আমার দেশবাসী আমাকে এ পেশায় স্বাগত জানিয়েছেন। আমি দেশপ্রেমের চেতনা নিয়ে এ সেবা করছি।

সারাহ বলেন, সৌদি আরবে এর আগে কখনও কোন মহিলাকে অ্যাম্বুলেন্স চালাতে দেখা যায়নি। এবারের মহামারী চলাকালীন আমি যখন অ্যাম্বুলেন্স চালিয়ে রোগীদের সেবা দিচ্ছি তখন বহু মানুষ ফোন করে আমাকে উৎসাহ জুগিয়েছেন।

আমার আগ্রহ দেখে আমার পরিবার আমাকে এই কাজে বিশেষ সমর্থন দিয়েছে। আমি মনে করি এটি এমন একটি ক্ষেত্র যেখানে নারীদেরও এগিয়ে আসা উচিত।

তিনি জীবনের সব পর্যায়ে নারীদের নিজের পায়ে দাঁড়াতে পরামর্শ দেন। অ্যাম্বুলেন্স চালিকা সারাহ তিন ভাইবোনদের মধ্যে ছোট। তাদের পরিবারের সবাই স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত।

উৎসাহ ও ভালোবাসার জন্য সারাহ ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আমি এমন একটি কাজ করছি, যা আমার আগে কোনো সৌদি নারী করার সাহস করেনি।

উর্দু নিউজ অবলম্বনে- তোফায়েল গাজালি

প্রথমবারের মতো অ্যাম্বুলেন্স চালকের আসনে যে সৌদি নারী

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
প্রথমবারের মতো অ্যাম্বুলেন্স চালকের আসনে যে সৌদি নারী
ছবি: উর্দূ নিউজ

গাড়ির পর এবার প্রথমবারের মতো সৌদি কোনো নারী অ্যাম্বুলেন্স চালকের আসনে বসলেন। সম্প্রতি সারাহ খলফ আল আনজি নামক এক সৌদি নারী প্রথম অ্যাম্বুলেন্স চালিকা হিসেবে দেশটিতে আলোচনায় এসেছেন। 

এই নারী একটি অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবার মাধ্যমে রোগীদের বাড়ি থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়াসহ তাদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দিয়ে এ রেকর্ড তৈরি করেছেন।

আল আরাবিয়া উর্দু জানিয়েছে, সারা আল আনজি জর্ডানের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। জর্ডানে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত প্রিন্স খালিদ বিন তুর্কি আল সৌদ তাকে বিশেষ সম্মানে ভূষিত করেছেন। 

তিনি বলেন, আমি একজন নারী হিসেবে অ্যাম্বুলেন্স চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ ছিল না; তবে সম্প্রতি সমাজকে করোনার মহামারী থেকে বাঁচানোর জন্যই এ সিদ্ধান্ত নিতে হয়। আমার দেশবাসী আমাকে এ পেশায় স্বাগত জানিয়েছেন। আমি দেশপ্রেমের চেতনা নিয়ে এ সেবা করছি।

সারাহ বলেন, সৌদি আরবে এর আগে কখনও কোন মহিলাকে অ্যাম্বুলেন্স চালাতে দেখা যায়নি। এবারের মহামারী চলাকালীন আমি যখন অ্যাম্বুলেন্স চালিয়ে রোগীদের সেবা দিচ্ছি তখন বহু মানুষ ফোন করে আমাকে উৎসাহ জুগিয়েছেন।

আমার আগ্রহ দেখে আমার পরিবার আমাকে এই কাজে বিশেষ সমর্থন দিয়েছে। আমি মনে করি এটি এমন একটি ক্ষেত্র যেখানে নারীদেরও এগিয়ে আসা উচিত।

তিনি জীবনের সব পর্যায়ে নারীদের নিজের পায়ে দাঁড়াতে পরামর্শ দেন। অ্যাম্বুলেন্স চালিকা সারাহ তিন ভাইবোনদের মধ্যে ছোট। তাদের পরিবারের সবাই স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত। 

উৎসাহ ও ভালোবাসার জন্য সারাহ ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আমি এমন একটি কাজ করছি, যা আমার আগে কোনো সৌদি নারী করার সাহস করেনি।

 

উর্দু নিউজ অবলম্বনে- তোফায়েল গাজালি