আজারবাইজানে হামলা, আর্মেনিয়াকে চূড়ান্ত সতর্কতা
jugantor
আজারবাইজানে হামলা, আর্মেনিয়াকে চূড়ান্ত সতর্কতা

  অনলাইন ডেস্ক  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:০৫:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আর্মেনিয়াার সেনাবাহিনী

আজারবাইজানের বেসামারিক এলাকায় হামলা চালিয়েছে আর্মেনিয়ার সামরিক বাহিনী। এ ঘটনায় সোমবার দেশটিকে চূড়ান্ত সতর্ককরেছে আজারবাইজান।

বাকুর প্রতিরক্ষামন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আজারবাইজানীয় শহর টেরটারে আজ সকাল থেকেই আর্মেনিয়ান বাহিনীর হামলায় আগুন লেগেছে।

এতে বলা হয়, আর্মেনিয়াকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে শেষ বারের মতো সতর্কতা দেয়া হচ্ছে, যদি প্রয়োজন হয় তাদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংঘর্ষের সময় আর্মেনিয়ার ট্যাংক ও সাঁজোয়া যান ধ্বংসের ছবিও শেয়ার করেছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

তুর্কি সংবাদ মাধ্যম আনাদলুর খবরে বলা হয়, রোববার সীমান্তে আর্মেনিয়ার বাহিনী আজারবাইজানের বেসামরিক এলাকায় স্থানীয় বসতিতে হামলা চালায়।পাশাপাশি কারবাখ অঞ্চলে দেশটির সামরিক বাহিনীর ঘাঁটিকে হামলার লক্ষ্যবস্তু বানানো হয়।

রোববারে শুরু হওয়া সংঘর্ষে অনন্ত ২৩ জন নিহত হয়েছে বলে গণমাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। বলা হচ্ছে, প্রকৃত পক্ষে নিহতের সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পেতে পারে।

একসময় আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান– উভয় দেশই সোভিয়েত ইউনিয়নের অংশ ছিল। ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার পর দেশ দুটি স্বাধীন হয়। তার পর থেকে নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে গত চার দশক ধরে বিরোধে জড়িয়ে আছে দুই প্রতিবেশী।

আজারবাইজানে হামলা, আর্মেনিয়াকে চূড়ান্ত সতর্কতা

 অনলাইন ডেস্ক 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আর্মেনিয়াার সেনাবাহিনী
আর্মেনিয়াার সেনাবাহিনী। ফাইল ছবি

আজারবাইজানের বেসামারিক এলাকায় হামলা চালিয়েছে আর্মেনিয়ার সামরিক বাহিনী। এ ঘটনায় সোমবার দেশটিকে চূড়ান্ত সতর্ক করেছে আজারবাইজান।

বাকুর প্রতিরক্ষামন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আজারবাইজানীয় শহর টেরটারে আজ সকাল থেকেই আর্মেনিয়ান বাহিনীর হামলায় আগুন লেগেছে।

এতে বলা হয়, আর্মেনিয়াকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে শেষ বারের মতো সতর্কতা দেয়া হচ্ছে, যদি প্রয়োজন হয় তাদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।  

সংঘর্ষের সময় আর্মেনিয়ার ট্যাংক ও সাঁজোয়া যান ধ্বংসের ছবিও শেয়ার করেছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। 

তুর্কি সংবাদ মাধ্যম আনাদলুর খবরে বলা হয়, রোববার সীমান্তে আর্মেনিয়ার বাহিনী আজারবাইজানের বেসামরিক এলাকায় স্থানীয় বসতিতে হামলা চালায়।পাশাপাশি কারবাখ অঞ্চলে দেশটির সামরিক বাহিনীর ঘাঁটিকে হামলার লক্ষ্যবস্তু বানানো হয়।  

রোববারে শুরু হওয়া সংঘর্ষে অনন্ত ২৩ জন নিহত হয়েছে বলে গণমাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। বলা হচ্ছে, প্রকৃত পক্ষে নিহতের সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পেতে পারে। 

একসময় আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান– উভয় দেশই সোভিয়েত ইউনিয়নের অংশ ছিল। ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার পর দেশ দুটি স্বাধীন হয়। তার পর থেকে নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে গত চার দশক ধরে বিরোধে জড়িয়ে আছে দুই প্রতিবেশী।

 

ঘটনাপ্রবাহ : আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সংঘাত