ভারতে আরেকটি চীনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা 
jugantor
ভারতে আরেকটি চীনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা 

  অনলাইন ডেস্ক  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:৫১:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনা ভাইরাসং

করোনাভাইরাসের মধ্যে ভারতে আরেকটি চীনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)-এর বিজ্ঞানীরা বলছেন, ভারতে তারা আরেকটি চীনা ক্যাট কিউ ভাইরাস বা সিকিউভি নামের ভাইরাস শনাক্ত করেছেন। এটি ভারতে রোগ ছড়াতে পারে বলে সতর্ক করেছেন তারা।

হিন্দুস্তান টাইসমের খবরে বলা হয়েছে, এই ভাইরাসটি আর্থ্রোপড-বাহিত এবং শুকর ও কিউলেক্স মশার দেহে পাওয়া যাচ্ছে। সিকিউভি ভাইরাসটির উপস্থিতি চীন ও ভিয়েতনামে রয়েছে।

আইসিএমআর-এর ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব ভাইরোলজির বিজ্ঞানীরা ভাইরাসটির অ্যান্টিবডি আবিষ্কার করেছেন। রাজ্যের ৮৮৩ জন মানুষের নমুনার মধ্যে দুটিতে এই অ্যান্টিবডি শনাক্ত হয়েছে। এতে প্রমাণিত হয়, কোনো একসময় এই দুই ব্যক্তি সিকিউভি ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এদের একজনের ২০১৪ ও অপরজনের ২০১৭ সালে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। খবরে বলা হয়েছে, কর্নাটকে এই দু্ইজনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল।

গবেষণার পর বিজ্ঞানীরা সতর্ক করে জানিয়েছেন, মশার দেহে সিকিউভি ভাইরাসের প্রতিলিপিকরণের ফলে ভারতে রোগ ছড়ানোর আশঙ্কা থাকছে।

ভারতে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্যেই ৬০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। সোমবার দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রাণয় জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮২১৭০ জনের শরীরে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬০ লাখ ৭৪ হাজার ৭০৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

ভারতে আরেকটি চীনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা 

 অনলাইন ডেস্ক 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
চীনা ভাইরাসং
ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের মধ্যে ভারতে আরেকটি চীনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)-এর বিজ্ঞানীরা বলছেন, ভারতে তারা আরেকটি চীনা ক্যাট কিউ ভাইরাস বা সিকিউভি নামের ভাইরাস শনাক্ত করেছেন। এটি ভারতে রোগ ছড়াতে পারে বলে সতর্ক করেছেন তারা।  

হিন্দুস্তান টাইসমের খবরে বলা হয়েছে, এই ভাইরাসটি আর্থ্রোপড-বাহিত এবং শুকর ও কিউলেক্স মশার দেহে পাওয়া যাচ্ছে। সিকিউভি ভাইরাসটির উপস্থিতি চীন ও ভিয়েতনামে রয়েছে। 

আইসিএমআর-এর ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব ভাইরোলজির বিজ্ঞানীরা ভাইরাসটির অ্যান্টিবডি আবিষ্কার করেছেন। রাজ্যের ৮৮৩ জন মানুষের নমুনার মধ্যে দুটিতে এই অ্যান্টিবডি শনাক্ত হয়েছে। এতে প্রমাণিত হয়, কোনো একসময় এই দুই ব্যক্তি সিকিউভি ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এদের একজনের ২০১৪ ও অপরজনের ২০১৭ সালে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। খবরে বলা হয়েছে, কর্নাটকে এই দু্ইজনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। 

গবেষণার পর বিজ্ঞানীরা সতর্ক করে জানিয়েছেন, মশার দেহে সিকিউভি ভাইরাসের প্রতিলিপিকরণের ফলে ভারতে রোগ ছড়ানোর আশঙ্কা থাকছে। 

ভারতে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্যেই ৬০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। সোমবার দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রাণয় জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮২১৭০ জনের শরীরে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬০ লাখ ৭৪ হাজার ৭০৩ জনে দাঁড়িয়েছে।  

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস