সরাসরি বিতর্কে ট্রাম্পকে 'ভাঁড়' বললেন বাইডেন
jugantor
সরাসরি বিতর্কে ট্রাম্পকে 'ভাঁড়' বললেন বাইডেন

  যুগান্তর ডেস্ক  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩:১৩:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

সরাসরি বিতর্কে ট্রাম্পকে 'ভাঁড়' বললেন বাইডেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থীদের সরাসরি বিতর্ক শুরু হয়ে গেছে। ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকান শিবির দুই প্রার্থীর বিতর্ক উপভোগ করছেন। প্রথম বিতর্কে দুই প্রার্থী ব্যক্তিগত আক্রমণে জড়িয়ে গেছেন। কেউ কাউকে ছেড়ে কথা বলেননি। ডোনাল্ড ট্রাম্পের চোখ রাঙানি ভয় ধরাতে পারেনি বাইডেনকে। উল্টো পাল্টা আক্রমণ করে ট্রাম্পকে ভাঁড় বলে বলেন ডেমোক্র্যাটদলীয় প্রার্থী জো বাইডেন।

৩ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে তিন বিতর্কের প্রথমটিতে বাংলাদেশ সময় বুধবার সকালে এভাবে পরস্পর মারমুখি অবস্থানে ছিলেন হন দুই প্রতিদ্বন্দ্বী বাইডেন-ট্রাম্প। দুজনকে সামলাতে হিমশিম খেতে দেখা গেছে মডারেটর ক্রিস ওয়ালেসকে। ফক্স নিউজের এই উপস্থাপক বেশ কয়েকবার হাত উঁচিয়ে দুজনকে থামিয়েছেন।

বিতর্কের অনেকটা সময় জুড়ে দুজনে করোনা এবং যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিক অবস্থা নিয়ে কথা বলেন। বাইডেন এক পর্যায়ে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বলে ওঠেন, এই ভাঁড়টা কী করার চেষ্টায় আছে, সে বিষয়ে আপনাদের কোনো ধারণা আছে?

ট্রাম্প এটি শুনেই তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন। কথার মাঝে বলেন, 'এই, আপনি কি থামবেন?'

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিতর্কজুড়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প কখনো চোখ রাঙান। কখনো হাত উঁচু করেন। পুরোটা সময় আক্রমনাত্বক মেজাজে ছিলেন। যুতসই জবাব দিয়েছেন আনেকটা ঠাণ্ডা মাথার জো বাইডেন।

এক পর্যায়ে ট্রাম্প বাইডেনকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করে বলেন, আপনি খুব একটা স্মার্ট নন, জো। বাইডেনও এসময় ট্রাম্পকে 'আপনি চুপ করবেন' বলে থামানোর চেষ্টা করেন।

বিবিসি জানিয়েছে, ট্রাম্পের বক্তব্য মানেই শব্দের জাদু। এমন সব শব্দ তিনি ব্যবহার করেন, যা অনেক সময় 'বহু অর্থ' ইঙ্গিত করে। এদিনের বিতর্কেও একই কাজ করেছেন তিনি। নিজস্ব বাক্যাংশের পুনরাবৃত্তি করে বাইডেনকে চেষ্টা করেছেন নিজের টপিকসের ভেতরে ঢোকানোর। যখনই বাইডেন আমেরিকার অন্যায়-অবিচার নিয়ে কথা বলেছেন ট্রাম্প সেটিকে ঘুরিয়েছেন অন্য প্রসঙ্গে।

৯০ মিনিটের এ বিতর্কে সুপ্রিম কোর্টের মনোনয়ন, করোনাভাইরাস মহামারি, বর্ণবাদ, জলবায়ু পরিবর্তন ও মেইলের মাধ্যমে ভোটদান নিয়ে বিতর্ক করেছেন ট্রাম্প ও বাইডেন।

বিতর্কে ট্রাম্পের ট্যাক্স কম দেয়ার বিষয়টিও সামনে নিয়ে আসেন জো বাইডেন। সেইসঙ্গে ট্রাম্পকে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে অযোগ্য প্রেসিডেন্ট বলেন তিনি।

তবে সঞ্চালক ওয়ালেস ট্রাম্পকে ট্যাক্সের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, আমি লাখ লাখ ডলার ট্যাক্স দিয়েছি।

এদিন অডিয়েন্স রুলস অমান্য করে ট্রাম্প পরিবারের কয়েকজনকে মাস্ক পরতে দেখা যায়নি।

প্রথম বিতর্ক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প ও জো বাইডেনের স্ত্রী জিল বাইডেনও।

সরাসরি বিতর্কে ট্রাম্পকে 'ভাঁড়' বললেন বাইডেন

 যুগান্তর ডেস্ক 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সরাসরি বিতর্কে ট্রাম্পকে 'ভাঁড়' বললেন বাইডেন
ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থীদের সরাসরি বিতর্ক শুরু হয়ে গেছে। ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকান শিবির দুই প্রার্থীর বিতর্ক উপভোগ করছেন। প্রথম বিতর্কে দুই প্রার্থী ব্যক্তিগত আক্রমণে জড়িয়ে গেছেন। কেউ কাউকে ছেড়ে কথা বলেননি। ডোনাল্ড ট্রাম্পের চোখ রাঙানি ভয় ধরাতে পারেনি বাইডেনকে। উল্টো পাল্টা আক্রমণ করে ট্রাম্পকে ভাঁড় বলে বলেন ডেমোক্র্যাটদলীয় প্রার্থী জো বাইডেন।

৩ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে তিন বিতর্কের প্রথমটিতে বাংলাদেশ সময় বুধবার সকালে এভাবে পরস্পর মারমুখি অবস্থানে ছিলেন হন দুই প্রতিদ্বন্দ্বী বাইডেন-ট্রাম্প। দুজনকে সামলাতে হিমশিম খেতে দেখা গেছে মডারেটর ক্রিস ওয়ালেসকে। ফক্স নিউজের এই উপস্থাপক বেশ কয়েকবার হাত উঁচিয়ে দুজনকে থামিয়েছেন।

বিতর্কের অনেকটা সময় জুড়ে দুজনে করোনা এবং যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিক অবস্থা নিয়ে কথা বলেন। বাইডেন এক পর্যায়ে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বলে ওঠেন, এই ভাঁড়টা কী করার চেষ্টায় আছে, সে বিষয়ে আপনাদের কোনো ধারণা আছে?

ট্রাম্প এটি শুনেই তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠেন। কথার মাঝে বলেন, 'এই, আপনি কি থামবেন?'

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিতর্কজুড়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প কখনো চোখ রাঙান। কখনো হাত উঁচু করেন। পুরোটা সময় আক্রমনাত্বক মেজাজে ছিলেন। যুতসই জবাব দিয়েছেন আনেকটা ঠাণ্ডা মাথার জো বাইডেন। 

এক পর্যায়ে ট্রাম্প বাইডেনকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করে বলেন, আপনি খুব একটা স্মার্ট নন, জো। বাইডেনও এসময় ট্রাম্পকে 'আপনি চুপ করবেন' বলে থামানোর চেষ্টা করেন।

বিবিসি জানিয়েছে, ট্রাম্পের বক্তব্য মানেই শব্দের জাদু। এমন সব শব্দ তিনি ব্যবহার করেন, যা অনেক সময় 'বহু অর্থ' ইঙ্গিত করে। এদিনের বিতর্কেও একই কাজ করেছেন তিনি। নিজস্ব বাক্যাংশের পুনরাবৃত্তি করে বাইডেনকে চেষ্টা করেছেন নিজের টপিকসের ভেতরে ঢোকানোর। যখনই বাইডেন আমেরিকার অন্যায়-অবিচার নিয়ে কথা বলেছেন ট্রাম্প সেটিকে ঘুরিয়েছেন অন্য প্রসঙ্গে।

৯০ মিনিটের এ বিতর্কে সুপ্রিম কোর্টের মনোনয়ন, করোনাভাইরাস মহামারি, বর্ণবাদ, জলবায়ু পরিবর্তন ও মেইলের মাধ্যমে ভোটদান নিয়ে বিতর্ক করেছেন ট্রাম্প ও বাইডেন।

বিতর্কে ট্রাম্পের ট্যাক্স কম দেয়ার বিষয়টিও সামনে নিয়ে আসেন জো বাইডেন। সেইসঙ্গে ট্রাম্পকে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে অযোগ্য প্রেসিডেন্ট বলেন তিনি।

তবে সঞ্চালক ওয়ালেস ট্রাম্পকে ট্যাক্সের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, আমি লাখ লাখ ডলার ট্যাক্স দিয়েছি।

এদিন অডিয়েন্স রুলস অমান্য করে ট্রাম্প পরিবারের কয়েকজনকে মাস্ক পরতে দেখা যায়নি।

প্রথম বিতর্ক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প ও জো বাইডেনের স্ত্রী জিল বাইডেনও।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০