আপনি স্মার্ট নন, বাইডেনকে ট্রাম্প
jugantor
আপনি স্মার্ট নন, বাইডেনকে ট্রাম্প

  যুগান্তর ডেস্ক  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৫৬:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে প্রথম প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কে মুখোমুখি হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জো বাইডেন। বুধবার ওহাইওর ক্লিভল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিতর্কে দুই প্রার্থী বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়েছেন।

রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দায়িত্বজ্ঞানহীন, মিথ্যাবাদী বলে অ্যাখ্যা দিয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন। এদিকে বাইডেনকে আনস্মার্ট আখ্যা দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ফক্স নিউজের ক্রিস ওয়ালেসের সঞ্চালনায় শুরু হওয়া এ বির্তকে একে অপরকে আক্রমণ পাল্টা আক্রমণ করেন দুইপ্রার্থী। পরিস্থিতি সামাল দিতে রীতিমত হিমশিম খেতে হয়েছে সঞ্চালককে।

সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, পুরো অনুষ্ঠানজুড়ে ট্রাম্পকে দেখা গেছে আক্রমণাত্মক ভূমিকায়। গঠনমূলক বিতর্কের চেয়ে ব্যক্তিগত আক্রমণেই বেশি আগ্রহী দেখা গেছে তাকে। এমনকি বাইডেনের প্রতি রীতিমতো অপমানজনক কিছু বাক্য ছুঁড়ে দিয়েছেন ট্রাম্প। এর এক পর্যায়ে ট্রাম্পকে ক্লাউন বা ভাঁড় হিসেবে আখ্যায়িত করেন বাইডেন। এমনকি তাকে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে প্রেসিডেন্ট হিসেবে আখ্যায়িত করেন তিনি।


ট্রাম্প প্রতিটি বিষয়ের ওপর দেয়া তার উত্তরে জো বাইডেনকে আক্রমণের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করেন। বাইডেনের উত্তরের সময়ও তিনি তাকে বাধা দেয়ার চেষ্টা করেন। রাত যত বাড়তে থাকে ট্রাম্প যেন তার ব্যক্তিগত আক্রমণ আরও শাণিত করতে থাকেন।

ব্যক্তিগত আক্রমণে ব্যস্ত রাখার মধ্য দিয়ে মূলত নির্বাচন সংক্রান্ত মৌলিক বিষয়গুলোর আলোচনা থেকে বাইডেনকে দূরে সরিয়ে রাখার কৌশল নেন ট্রাম্প।

এক পর্যায়ে ট্রাম্প বাইডেনকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করে বলেন, আপনি খুব একটা স্মার্ট নন, জো। তিনি বাইডেনকে বলেন, আপনি আপনার ক্লাসের সবচেয়ে বাজে ছাত্র। বাইডেনও এসময় ট্রাম্পকে 'আপনি চুপ করবেন' বলে থামানোর চেষ্টা করেন।

ট্রাম্প বাইডেনকে বলেন ৪৭ বছরের রাজনীতিকে যুক্তরাষ্ট্রবাসীকে কিছুই দিতে পারেননি। আপনি ব্যর্থ।

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিতর্কজুড়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প কখনো চোখ রাঙান। কখনো হাত উঁচু করেন। পুরোটা সময় আক্রমনাত্বক মেজাজে ছিলেন। যুতসই জবাব দিয়েছেন আনেকটা ঠাণ্ডা মাথার জো বাইডেন। তিনিও ছিলেন আক্রমনাত্মক।

আপনি স্মার্ট নন, বাইডেনকে ট্রাম্প

 যুগান্তর ডেস্ক 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে প্রথম প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কে মুখোমুখি হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জো বাইডেন। বুধবার ওহাইওর ক্লিভল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিতর্কে দুই প্রার্থী বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়েছেন।

রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দায়িত্বজ্ঞানহীন, মিথ্যাবাদী বলে অ্যাখ্যা দিয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন। এদিকে বাইডেনকে আনস্মার্ট আখ্যা দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ফক্স নিউজের ক্রিস ওয়ালেসের সঞ্চালনায় শুরু হওয়া এ বির্তকে একে অপরকে আক্রমণ পাল্টা আক্রমণ করেন দুইপ্রার্থী। পরিস্থিতি সামাল দিতে রীতিমত হিমশিম খেতে হয়েছে সঞ্চালককে।

সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, পুরো অনুষ্ঠানজুড়ে ট্রাম্পকে দেখা গেছে আক্রমণাত্মক ভূমিকায়। গঠনমূলক বিতর্কের চেয়ে ব্যক্তিগত আক্রমণেই বেশি আগ্রহী দেখা গেছে তাকে। এমনকি বাইডেনের প্রতি রীতিমতো অপমানজনক কিছু বাক্য ছুঁড়ে দিয়েছেন ট্রাম্প। এর এক পর্যায়ে ট্রাম্পকে ক্লাউন বা ভাঁড় হিসেবে আখ্যায়িত করেন বাইডেন। এমনকি তাকে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে প্রেসিডেন্ট হিসেবে আখ্যায়িত করেন তিনি।


ট্রাম্প প্রতিটি বিষয়ের ওপর দেয়া তার উত্তরে জো বাইডেনকে আক্রমণের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করেন। বাইডেনের উত্তরের সময়ও তিনি তাকে বাধা দেয়ার চেষ্টা করেন। রাত যত বাড়তে থাকে ট্রাম্প যেন তার ব্যক্তিগত আক্রমণ আরও শাণিত করতে থাকেন।

ব্যক্তিগত আক্রমণে ব্যস্ত রাখার মধ্য দিয়ে মূলত নির্বাচন সংক্রান্ত মৌলিক বিষয়গুলোর আলোচনা থেকে বাইডেনকে দূরে সরিয়ে রাখার কৌশল নেন ট্রাম্প।

এক পর্যায়ে ট্রাম্প বাইডেনকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করে বলেন, আপনি খুব একটা স্মার্ট নন, জো। তিনি বাইডেনকে বলেন, আপনি আপনার ক্লাসের সবচেয়ে বাজে ছাত্র। বাইডেনও এসময় ট্রাম্পকে 'আপনি চুপ করবেন' বলে থামানোর চেষ্টা করেন।

ট্রাম্প বাইডেনকে বলেন ৪৭ বছরের রাজনীতিকে যুক্তরাষ্ট্রবাসীকে কিছুই দিতে পারেননি। আপনি ব্যর্থ।

এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিতর্কজুড়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প কখনো চোখ রাঙান। কখনো হাত উঁচু করেন। পুরোটা সময় আক্রমনাত্বক মেজাজে ছিলেন। যুতসই জবাব দিয়েছেন আনেকটা ঠাণ্ডা মাথার জো বাইডেন। তিনিও ছিলেন আক্রমনাত্মক।
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০