নিজেকে করোনামুক্ত দাবি ট্রাম্পের 
jugantor
নিজেকে করোনামুক্ত দাবি ট্রাম্পের 

  অনলাইন ডেস্ক  

১২ অক্টোবর ২০২০, ১৩:৩১:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

নিজেকে করোনামুক্ত দাবি ট্রাম্পের 

কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার ১০ দিনের মাথায় নিজেকে করোনামুক্ত হিসেবে দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

রোববার ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর তার দেহে ইমিউনিটি তৈরি হয়েছে। তার দেহে এখন আর কোভিড-১৯ নেই। খবর দ্য হিন্দু ও দ্য মিন্টের।

নিজেকে করোনাভাইরাসের চিকিৎসা প্রক্রিয়ার আওতামুক্ত হিসেবে দাবি করে ট্রাম্প বলেন, চীনের ভয়ঙ্কর ভাইরাসকে তিনি জয় করেছেন। তিনি মনে করছেন করোনার বিরুদ্ধে তার শরীর প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করতে পেরেছে।

ট্রাম্পের দাবি, তাকে সর্বোচ্চমানের পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। এখন তার অবস্থা ভালো। কোনো সমস্যা নেই।

ট্রাম্পের ব্যক্তিগত চিকিৎসক শন কোনলির দাবি, প্রেসিডেন্টের কাছ থেকে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আর কোনো ঝুঁকি নেই। তবে ট্রাম্প করোনা নেগেটিভ হয়েছেন; এমন কোনো তথ্য তিনি দেননি।

শনিবার ওই চিকিৎসক আরও জানিয়েছিলেন, সর্বশেষ পরীক্ষা থেকে দেখা গেছে প্রেসিডেন্ট আর করোনা সংক্রমণক্ষম নেই। তার দেহে ওই ভাইরাসের প্রতিলিপি তৈরিরও কোনো প্রমাণ মেলেনি।

তার আট ঘণ্টা আগেই ট্রাম্প হোয়াইট হাউসের বারান্দা থেকে সমাবেত সমর্থকদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন। এ সময় তাকে মাস্ক পরা দেখা যায়নি।

এদিকে ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারে অংশ নিতে মুখিয়ে আছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সোমবার ফ্লোরিডায় এক নির্বাচনী সমাবেশে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে তার।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে নির্বাচনী প্রচার থেকে দূরে আছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। কিন্তু সব কিছু থেকে দূরে থাকা মোটেও পছন্দ হচ্ছে না তার।

নিজেকে করোনামুক্ত দাবি ট্রাম্পের 

 অনলাইন ডেস্ক 
১২ অক্টোবর ২০২০, ০১:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নিজেকে করোনামুক্ত দাবি ট্রাম্পের 
ফাইল ছবি

কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার ১০ দিনের মাথায় নিজেকে করোনামুক্ত হিসেবে দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

রোববার ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর তার দেহে ইমিউনিটি তৈরি হয়েছে। তার দেহে এখন আর কোভিড-১৯ নেই। খবর দ্য হিন্দু ও দ্য মিন্টের।

নিজেকে করোনাভাইরাসের চিকিৎসা প্রক্রিয়ার আওতামুক্ত হিসেবে দাবি করে ট্রাম্প বলেন, চীনের ভয়ঙ্কর ভাইরাসকে তিনি জয় করেছেন। তিনি মনে করছেন করোনার বিরুদ্ধে তার শরীর প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করতে পেরেছে।

ট্রাম্পের দাবি, তাকে সর্বোচ্চমানের পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। এখন তার অবস্থা ভালো। কোনো সমস্যা নেই।

ট্রাম্পের ব্যক্তিগত চিকিৎসক শন কোনলির দাবি, প্রেসিডেন্টের কাছ থেকে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আর কোনো ঝুঁকি নেই। তবে ট্রাম্প করোনা নেগেটিভ হয়েছেন; এমন কোনো তথ্য তিনি দেননি।

শনিবার ওই চিকিৎসক আরও জানিয়েছিলেন, সর্বশেষ পরীক্ষা থেকে দেখা গেছে প্রেসিডেন্ট আর করোনা সংক্রমণক্ষম নেই। তার দেহে ওই ভাইরাসের প্রতিলিপি তৈরিরও কোনো প্রমাণ মেলেনি।

তার আট ঘণ্টা আগেই ট্রাম্প হোয়াইট হাউসের বারান্দা থেকে সমাবেত সমর্থকদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন। এ সময় তাকে মাস্ক পরা দেখা যায়নি। 

এদিকে ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারে অংশ নিতে মুখিয়ে আছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সোমবার ফ্লোরিডায় এক নির্বাচনী সমাবেশে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে তার।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে নির্বাচনী প্রচার থেকে দূরে আছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। কিন্তু সব কিছু থেকে দূরে থাকা মোটেও পছন্দ হচ্ছে না তার। 

 

ঘটনাপ্রবাহ : করোনা আক্রান্ত ডোনাল্ড ট্রাম্প