সিরিয়ায় ছয় শতাধিক আইএস সদস্যকে মুক্তি দিয়েছে কুর্দি গেরিলারা
jugantor
সিরিয়ায় ছয় শতাধিক আইএস সদস্যকে মুক্তি দিয়েছে কুর্দি গেরিলারা

  অনলাইন ডেস্ক  

১৭ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫১:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন সরকার সমর্থিত ও কুর্দি নিয়ন্ত্রিত কথিত সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেসের সদস্যরা (এসডিএফ) ৬৩১ আইএস সদস্যকে মুক্তি দিয়েছে।

আইএসকে সহযোগিতার সন্দেহে এসব ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছিল। খবর আল জাজিরার।

এসডিএফ গেরিলারা কামিশলি শহরের আলাইয়া বন্দীশালা থেকে গত বৃহস্পতিবার ৬৩১ জন বন্দিকে মুক্তি দেয়।

সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক কাউন্সিলের কো-চেয়ারম্যান আমিনা ওমর কামিশলি শহরে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, মুক্তি দেয়া সবাই সিরিয়ার নাগরিক।

তিনি বলেন, এসব ব্যক্তি তাদের সাজার অর্ধেক পূরণ করেছে এবং তারা কোনো মানুষ হত্যায় জড়িত নয় বলে প্রমাণিত হয়েছে।

কামিশলি শহরটি রাজধানী দামেস্ক থেকে ৬৩ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে অবস্থিত। সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে এসব ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছিল এবং সম্প্রতি ঘোষিত সাধারণ ক্ষমার আওতায় তাদেরকে মুক্তি দেয়া হলো।

এসডিএফ গেরিলাদের হাতে হাজার হাজার ব্যক্তি আটক রয়েছে যারা আইএস এবং অন্য সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর সহযোগী হিসেবে কাজ করছিল বলে সন্দেহ করা হয়।

এসব বন্দীর বেশিরভাগই সিরিয়া ও ইরাকের নাগরিক। এছাড়া, এসডিএফ’র হাতে অনেক বিদেশী নাগরিকও আটক রয়েছে। তবে তাদেরকে নিজ নিজ দেশ ফিরিয়ে নিতে রাজি হয়নি।

সিরিয়ায় ছয় শতাধিক আইএস সদস্যকে মুক্তি দিয়েছে কুর্দি গেরিলারা

 অনলাইন ডেস্ক 
১৭ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন সরকার সমর্থিত ও কুর্দি নিয়ন্ত্রিত কথিত সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেসের সদস্যরা (এসডিএফ) ৬৩১ আইএস সদস্যকে মুক্তি দিয়েছে।

আইএসকে সহযোগিতার সন্দেহে এসব ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছিল। খবর আল জাজিরার।

এসডিএফ গেরিলারা কামিশলি শহরের আলাইয়া বন্দীশালা থেকে গত বৃহস্পতিবার ৬৩১ জন বন্দিকে মুক্তি দেয়।

সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক কাউন্সিলের কো-চেয়ারম্যান আমিনা ওমর কামিশলি শহরে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, মুক্তি দেয়া সবাই সিরিয়ার নাগরিক।

তিনি বলেন, এসব ব্যক্তি তাদের সাজার অর্ধেক পূরণ করেছে এবং তারা কোনো মানুষ হত্যায় জড়িত নয় বলে প্রমাণিত হয়েছে।

কামিশলি শহরটি রাজধানী দামেস্ক থেকে ৬৩ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে অবস্থিত। সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে এসব ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছিল এবং সম্প্রতি ঘোষিত সাধারণ ক্ষমার আওতায় তাদেরকে মুক্তি দেয়া হলো।

এসডিএফ গেরিলাদের হাতে হাজার হাজার ব্যক্তি আটক রয়েছে যারা আইএস এবং অন্য সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর সহযোগী হিসেবে কাজ করছিল বলে সন্দেহ করা হয়।

এসব বন্দীর বেশিরভাগই সিরিয়া ও ইরাকের নাগরিক। এছাড়া, এসডিএফ’র হাতে অনেক বিদেশী নাগরিকও আটক রয়েছে। তবে তাদেরকে নিজ নিজ দেশ ফিরিয়ে নিতে রাজি হয়নি।