যুক্তরাষ্ট্রে ৬৭ বছর পর নারীর মৃত্যুদণ্ড
jugantor
যুক্তরাষ্ট্রে ৬৭ বছর পর নারীর মৃত্যুদণ্ড

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৭ অক্টোবর ২০২০, ২১:১৩:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রে ৬৭ বছর পর নারীর মৃত্যুদণ্ড

দীর্ঘ ৬৭ বছর পর প্রথমবারের মতো কোনো নারীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে মার্কিন বিচার বিভাগ জানিয়েছে, ৮ ডিসেম্বর ইন্ডিয়ানার টেরে হাউতে কারাগারে বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করে লিসা মন্টগোমারি নামের ওই আসামির মৃত্যু কার্যকর করা হবে।

ডেইলি মেইল জানিয়েছে, ২০০৪ সালে মিসৌরিতে ববি জো স্টিনেট (২৩) নামের এক অন্তঃসত্তা নারীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর সিজারিয়ানের মাধ্যমে তার গর্ভের সন্তানকে বের করেন লিসা।

সদ্যোজাত শিশুকে নিয়ে পালানোর পরদিনই পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। শিশু ভিক্টোরিয়া জো স্টিনেটের বয়স এখন ১৬।

২০০৭ সালে লিসার মৃত্যুদণ্ডের রায় দেন মিসৌরির একটি জেলা আদালত। লিসার আইনজীবি কেলি হেনরির দাবি, লিসা মন্টগোমারি ছোটবেলায় নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন এবং সন্তান ধারণে অক্ষমতা তাকে মানসিকভাবে অসুস্থ করে ফেলেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে ৬৭ বছর পর নারীর মৃত্যুদণ্ড

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
যুক্তরাষ্ট্রে ৬৭ বছর পর নারীর মৃত্যুদণ্ড
ছবি: ডয়চে ভেলে

দীর্ঘ ৬৭ বছর পর প্রথমবারের মতো কোনো নারীর মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। 

শুক্রবার এক বিবৃতিতে মার্কিন বিচার বিভাগ জানিয়েছে, ৮ ডিসেম্বর ইন্ডিয়ানার টেরে হাউতে কারাগারে বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করে লিসা মন্টগোমারি নামের ওই আসামির মৃত্যু কার্যকর করা হবে। 

ডেইলি মেইল জানিয়েছে, ২০০৪ সালে মিসৌরিতে ববি জো স্টিনেট (২৩) নামের এক অন্তঃসত্তা নারীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর সিজারিয়ানের মাধ্যমে তার গর্ভের সন্তানকে বের করেন লিসা। 

সদ্যোজাত শিশুকে নিয়ে পালানোর পরদিনই পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। শিশু ভিক্টোরিয়া জো স্টিনেটের বয়স এখন ১৬। 

২০০৭ সালে লিসার মৃত্যুদণ্ডের রায় দেন মিসৌরির একটি জেলা আদালত। লিসার আইনজীবি কেলি হেনরির দাবি, লিসা মন্টগোমারি ছোটবেলায় নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন এবং সন্তান ধারণে অক্ষমতা তাকে মানসিকভাবে অসুস্থ করে ফেলেছে।