অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকায় ব্রাজিলে স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল
jugantor
অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকায় ব্রাজিলে স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ অক্টোবর ২০২০, ১১:৫৩:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনে ব্রাজিলে স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল

অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি করোনাভাইরাসের টিকার ট্রায়ালের সময় ব্রাজিলে এক স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু হলেও ট্রায়াল এখনই বন্ধ করছে না দেশটি।

বুধবার ওই স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যুর খবর এলেও টিকা নেয়ার কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে কিনা, তা নিশ্চিত করেনি ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। তবে এ ঘটনার জেরে ট্রায়ালের প্রক্রিয়া বন্ধ থাকবে না বলে জানিয়েছেন তারা।

স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যুর কারণ নিয়ে এখনও বিস্তারিত কোনো তথ্য দেয়নি ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। তবে ওই ব্যক্তি যে ট্রায়ালের সঙ্গে জড়িত ছিলেন তা নিশ্চিত করা হয়েছে।

সিএনএন জানিয়েছে, রিয়ো ডি নামের ২৮ বছরের ওই ব্যক্তি জেনিরোর বাসিন্দা ছিলেন। করোনার কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

এ বিষয়ে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ব্রাজিলের ঘটনাটির পর পুরো বিষয়টির পর্যালোচনা করা হয়েছে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের নিরাপত্তার কোনো সমস্যা নেই বলেও দাবি তাদের।

তারা বলছেন, এ টিকাতে কোনো ঝুঁকিও নেই। সে কারণে ব্রাজিলের স্বাধীন নিয়ন্ত্রক সংস্থা টিকার ট্রায়াল চালিয়ে যেতে নির্দেশ দিয়েছে।

এর আগে সেপ্টেম্বরের শুরুতে অক্সফোর্ডের টিকার ট্রায়াল চলাকালীন ব্রিটেনে এক স্বেচ্ছাসেবক অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। যার কারণে সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছিল ট্রায়াল প্রক্রিয়া।

অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকায় ব্রাজিলে স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ অক্টোবর ২০২০, ১১:৫৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনে ব্রাজিলে স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল
ছবি: আনন্দবাজার পত্রিকা

অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি করোনাভাইরাসের টিকার ট্রায়ালের সময় ব্রাজিলে এক স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যু হলেও ট্রায়াল এখনই বন্ধ করছে না দেশটি।  

বুধবার ওই স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যুর খবর এলেও টিকা নেয়ার কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে কিনা, তা নিশ্চিত করেনি ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। তবে এ ঘটনার জেরে ট্রায়ালের প্রক্রিয়া বন্ধ থাকবে না বলে জানিয়েছেন তারা।  

স্বেচ্ছাসেবকের মৃত্যুর কারণ নিয়ে এখনও বিস্তারিত কোনো তথ্য দেয়নি ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। তবে ওই ব্যক্তি যে ট্রায়ালের সঙ্গে জড়িত ছিলেন তা নিশ্চিত করা হয়েছে। 

সিএনএন জানিয়েছে, রিয়ো ডি নামের ২৮ বছরের ওই ব্যক্তি জেনিরোর বাসিন্দা ছিলেন। করোনার কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।  

এ বিষয়ে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ব্রাজিলের ঘটনাটির পর পুরো বিষয়টির পর্যালোচনা করা হয়েছে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের নিরাপত্তার কোনো সমস্যা নেই বলেও দাবি তাদের। 

তারা বলছেন, এ টিকাতে কোনো ঝুঁকিও নেই। সে কারণে ব্রাজিলের স্বাধীন নিয়ন্ত্রক সংস্থা টিকার ট্রায়াল চালিয়ে যেতে নির্দেশ দিয়েছে।

এর আগে সেপ্টেম্বরের শুরুতে অক্সফোর্ডের টিকার ট্রায়াল চলাকালীন ব্রিটেনে এক স্বেচ্ছাসেবক অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। যার কারণে সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছিল ট্রায়াল প্রক্রিয়া।