ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে তলব করছে পাকিস্তান
jugantor
ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে তলব করছে পাকিস্তান

  অনলাইন ডেস্ক  

২৬ অক্টোবর ২০২০, ১৫:১৫:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তানে নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে তলব করছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ইসলামকে কটাক্ষ করে অবিবেচকের মতো মন্তব্য করে সম্প্রতি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ায় দেশটির রাষ্ট্রদূতকে তলব করে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি সোমবার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানান। খবর আনাদোলুর।

বিবৃতিতে বলা হয়, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর কাণ্ডজ্ঞানহীন মন্তব্যে বিশ্বে বিভিন্ন দেশের মতো পাকিস্তানেও উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

এতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি আরও উল্লেখ করেন, আগামী বছরের ১৫ মার্চে অনুষ্ঠিতব্য ওআইসির বার্ষিক সভায় ইসলাম ফোবিয়া নিয়ে আলোচনা করার প্রস্তাব করেছে পাকিস্তান।

বিশ্বের কোটি কোটি মুসলিমের ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত হানার অধিকার কারও নেই। তিনি জাতিসংঘকে এ ধরনের ঘৃণাবিদ্বেষ ছড়ানোর বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান।

এ মাসের প্রথম দিকে মহানবীকে (সা.) নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র ছাপানোকে ব্যক্তিস্বাধীনতা উল্লেখ করে এবং এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা ফ্রান্সের মুসলমানদের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বিচ্ছিন্নতাবাদী দাবি করে এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দেন।

ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে তলব করছে পাকিস্তান

 অনলাইন ডেস্ক 
২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৩:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তানে নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে তলব করছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ইসলামকে কটাক্ষ করে অবিবেচকের মতো মন্তব্য করে সম্প্রতি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ায় দেশটির রাষ্ট্রদূতকে তলব করে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি সোমবার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানান। খবর আনাদোলুর।

বিবৃতিতে বলা হয়, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর কাণ্ডজ্ঞানহীন মন্তব্যে বিশ্বে বিভিন্ন দেশের মতো পাকিস্তানেও উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।
 
এতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি আরও উল্লেখ করেন, আগামী বছরের ১৫ মার্চে অনুষ্ঠিতব্য ওআইসির বার্ষিক সভায় ইসলাম ফোবিয়া নিয়ে আলোচনা করার প্রস্তাব করেছে পাকিস্তান।

বিশ্বের কোটি কোটি মুসলিমের ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত হানার অধিকার কারও নেই। তিনি জাতিসংঘকে এ ধরনের ঘৃণাবিদ্বেষ ছড়ানোর বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান।
 
এ মাসের প্রথম দিকে মহানবীকে (সা.) নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র ছাপানোকে ব্যক্তিস্বাধীনতা উল্লেখ করে এবং এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা ফ্রান্সের মুসলমানদের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বিচ্ছিন্নতাবাদী দাবি করে এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দেন।