কারাবাখ সীমান্তে এবার ইরানের সেনা মোতায়েন
jugantor
কারাবাখ সীমান্তে এবার ইরানের সেনা মোতায়েন

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৬ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৩৯:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

কারাবাখ সীমান্তে এবার সেনা মোতায়েন করছে ইরান

আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়ার মধ্যে চলমান সংঘাতে সীমান্ত এলাকায় সেনা মোতায়েন করেছে ইরান।

রোববার দেশটির বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র স্থল বিভাগের মেকানাইজড ব্রিগেড মোতায়েন করা হয়েছে বলে ইরনা জানিয়েছে।

আইআরসিসি পরিচালিত সেপাহ নিউজের বরাতে দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, খোদা আফারিন ও জুলফা এলাকায় ট্যাংক এবং অন্যান্য আর্টিলারি সরঞ্জামাদিসহ ইমামেজামান মেকানাইজড ব্রিগেড মোতায়েন করা হয়।

উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় সীমান্তের নিরাপত্তা রক্ষায় সতর্কতামূলক এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে দেশটির বিপ্লবী গার্ড বাহিনী জানিয়েছে।

২৭ সেপ্টেম্বর থেকে বিরোধীয় নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান নতুন করে যুদ্ধে জড়ায়।পরবর্তীতে ১০ অক্টোবর রাশিয়ার মধ্যস্থতায় আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে ম্যারথন আলোচনা হয়।

১১ অক্টোবর থেকে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু যুদ্ধবিরতির কয়েক মিনিটের মধ্যেই আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান পরস্পরকে সাময়িক যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘেনের জন্য অভিযুক্ত করে।

দ্বিতীয়বারের মতো ১৭ অক্টোবর রাত থেকে যুদ্ধবিরতির পরপরই গানজাতে আর্মেনিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ১৩ জন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে চারজন নারী ও তিনজন শিশু রয়েছে। এ ছাড়া হামলায় আহত হয়েছেন ৫০ জন। এরপরই দুই দেশের মধ্যে তুমুল লড়াই শুরু হয়।

কারাবাখ সীমান্তে এবার ইরানের সেনা মোতায়েন

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কারাবাখ সীমান্তে এবার সেনা মোতায়েন করছে ইরান
ছবি: সংগৃহীত

আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়ার মধ্যে চলমান সংঘাতে সীমান্ত এলাকায় সেনা মোতায়েন করেছে ইরান। 

রোববার দেশটির বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র স্থল বিভাগের মেকানাইজড ব্রিগেড মোতায়েন করা হয়েছে বলে ইরনা জানিয়েছে। 

আইআরসিসি পরিচালিত সেপাহ নিউজের বরাতে দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, খোদা আফারিন ও জুলফা এলাকায় ট্যাংক এবং অন্যান্য আর্টিলারি সরঞ্জামাদিসহ ইমামেজামান মেকানাইজড ব্রিগেড মোতায়েন করা হয়। 

উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় সীমান্তের নিরাপত্তা রক্ষায় সতর্কতামূলক এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে দেশটির বিপ্লবী গার্ড বাহিনী জানিয়েছে। 

২৭ সেপ্টেম্বর থেকে বিরোধীয় নাগোরনো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান নতুন করে যুদ্ধে জড়ায়।পরবর্তীতে ১০ অক্টোবর রাশিয়ার মধ্যস্থতায় আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে ম্যারথন আলোচনা হয়।

১১ অক্টোবর থেকে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু যুদ্ধবিরতির কয়েক মিনিটের মধ্যেই আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান পরস্পরকে সাময়িক যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘেনের জন্য অভিযুক্ত করে।

দ্বিতীয়বারের মতো ১৭ অক্টোবর রাত থেকে যুদ্ধবিরতির পরপরই গানজাতে আর্মেনিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ১৩ জন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে চারজন নারী ও তিনজন শিশু রয়েছে। এ ছাড়া হামলায় আহত হয়েছেন ৫০ জন। এরপরই দুই দেশের মধ্যে তুমুল লড়াই শুরু হয়। 

 

ঘটনাপ্রবাহ : আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সংঘাত

আরও খবর