স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে আগাম ভোট দিলেন বাইডেন
jugantor
স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে আগাম ভোট দিলেন বাইডেন

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৯ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৩:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে আগাম ভোট দিলেন বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে আগাম ভোট দিয়েছেন ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী জো বাইডেন ও তার স্ত্রী জিল বাইডেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ছয় দিন আগে স্থানীয় সময় বুধবার ডেলাওয়ার অঙ্গরাজ্যের উইলমিংটনে আগাম ভোট দেন বাইডেন দম্পতি। খবর মেইল অনলাইনের।

বাইডেনের আগে গত শনিবার আগাম ভোট দেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের আগেই দেশটির সাড়ে সাত কোটি ভোটার আগাম ভোট দিলেন।

ভোট দেয়ার পর বাইডেন বলেন, তিনিসহ অন্য ডেমোক্র্যাটরা আশা করছেন, নির্বাচনে জয়ী হবেন। কারণ তারা আমেরিকার জনগণের অবস্থার বদল করতে পারবেন। তিনি স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেবেন বলে জানান। তিনি স্বাস্থসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। জনগণের ব্যক্তিগত ইনস্যুরেন্স করে দিয়ে স্বাস্থ্যসেবা মানুষের জন্য সহজলভ্য করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন এ প্রেসিডেন্ট প্রার্থী।

বাইডেন বলেন, তিনি যদি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন, তা হলে প্রথম দিন থেকেই করোনা মোকাবেলায় সচেষ্ট হবেন।

তবে বাইডেন এই বলে সতর্কও করেছেন, করোনা মহামারী শেষ করার জন্য কোনো ‘ম্যাজিক সুইচ’ নেই।

‘আমি একটি সুইচ টিপে এই মহামারী শেষ করতে সক্ষম হওয়ার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি না। কিন্তু আমি আপনাদের যে প্রতিশ্রুতি দিতে পারি তা হলো– আমরা সঠিক কাজটি প্রথম দিনই শুরু করব। আমাদের সিদ্ধান্ত হবে বিজ্ঞান অনুযায়ী।’

গত শনিবার ফ্লোরিডায় আগাম ভোট দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি ফ্লোরিডার ওয়েস্ট পাম বিচ এলাকায় আগাম ভোট দেন। পরে নিজেই প্রকাশ্যে জানিয়ে দেন, তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্প নামের একজনকে ভোট দিয়েছেন।

ট্রাম্পের বাসস্থান ফ্লোরিডায়। সেখানে তার দুটি বিশাল গলফ রিসোর্ট আছে। এর মধ্যে একটি আছে ওয়েস্ট পাম বিচের আটলান্টিক বিচ টাউনে। আর নিজ শহর ডেলাওয়ারে ভোট দিলেন বাইডেন।

আগামী ৩ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এবারের নির্বাচনে আগাম ভোট বেশি পড়ছে। গত মঙ্গলবার পর্যন্ত আগাম ভোটই পড়েছে ৭ কোটির বেশি, যা ২০১৬ সালের নির্বাচনে মোট ভোটের অর্ধেকের বেশি।

মূলত নির্বাচনের দিনে ভিড়ভাট্টা এড়াতেই করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে অনেক মার্কিন নাগরিক এবার আগাম ভোটে উৎসাহী হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে আগাম ভোট দিলেন বাইডেন

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৯ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে আগাম ভোট দিলেন বাইডেন
ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে আগাম ভোট দিয়েছেন ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী জো বাইডেন ও তার স্ত্রী জিল বাইডেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ছয় দিন আগে স্থানীয় সময় বুধবার ডেলাওয়ার অঙ্গরাজ্যের উইলমিংটনে আগাম ভোট দেন বাইডেন দম্পতি। খবর মেইল অনলাইনের। 

বাইডেনের আগে গত শনিবার আগাম ভোট দেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের আগেই দেশটির সাড়ে সাত কোটি ভোটার আগাম ভোট দিলেন।

ভোট দেয়ার পর বাইডেন বলেন, তিনিসহ অন্য ডেমোক্র্যাটরা আশা করছেন, নির্বাচনে জয়ী হবেন। কারণ তারা আমেরিকার জনগণের অবস্থার বদল করতে পারবেন। তিনি স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেবেন বলে জানান। তিনি স্বাস্থসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। জনগণের ব্যক্তিগত ইনস্যুরেন্স করে দিয়ে স্বাস্থ্যসেবা মানুষের জন্য সহজলভ্য করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন এ প্রেসিডেন্ট প্রার্থী।

বাইডেন বলেন, তিনি যদি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন, তা হলে প্রথম দিন থেকেই করোনা মোকাবেলায় সচেষ্ট হবেন।

তবে বাইডেন এই বলে সতর্কও করেছেন, করোনা মহামারী শেষ করার জন্য কোনো ‘ম্যাজিক সুইচ’ নেই।

‘আমি একটি সুইচ টিপে এই মহামারী শেষ করতে সক্ষম হওয়ার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি না। কিন্তু আমি আপনাদের যে প্রতিশ্রুতি দিতে পারি তা হলো– আমরা সঠিক কাজটি প্রথম দিনই শুরু করব। আমাদের সিদ্ধান্ত হবে বিজ্ঞান অনুযায়ী।’

গত শনিবার ফ্লোরিডায় আগাম ভোট দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি ফ্লোরিডার ওয়েস্ট পাম বিচ এলাকায় আগাম ভোট দেন। পরে নিজেই প্রকাশ্যে জানিয়ে দেন, তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্প নামের একজনকে ভোট দিয়েছেন।

ট্রাম্পের বাসস্থান ফ্লোরিডায়। সেখানে তার দুটি বিশাল গলফ রিসোর্ট আছে। এর মধ্যে একটি আছে ওয়েস্ট পাম বিচের আটলান্টিক বিচ টাউনে। আর নিজ শহর ডেলাওয়ারে ভোট দিলেন বাইডেন।

আগামী ৩ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এবারের নির্বাচনে আগাম ভোট বেশি পড়ছে। গত মঙ্গলবার পর্যন্ত আগাম ভোটই পড়েছে ৭ কোটির বেশি, যা ২০১৬ সালের নির্বাচনে মোট ভোটের অর্ধেকের বেশি।

মূলত নির্বাচনের দিনে ভিড়ভাট্টা এড়াতেই করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে অনেক মার্কিন নাগরিক এবার আগাম ভোটে উৎসাহী হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। 
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০