কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে যুক্তরাষ্ট্রের বিক্ষোভ, সংঘর্ষ
jugantor
কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে যুক্তরাষ্ট্রের বিক্ষোভ, সংঘর্ষ

  অনলাইন ডেস্ক  

২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩:৫৪:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে যুক্তরাষ্ট্রের বিক্ষোভ, সংঘর্ষ

পুলিশের গুলিতে এক কৃষ্ণাঙ্গ নিহত হওয়ার পর ফিলাডেলফিয়ায় মঙ্গলবারও দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়েছে।

ন্যায়বিচারের দাবিতে শত শত লোক রাস্তায় নেমে আসেন। এ সময়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ ও লুটপাটের ঘটনাও ঘটে।

পুলিশ বিভাগ টুইটারে সতর্ক করে বলেছে, ক্যাস্টর ও আরামিঙ্গো এলাকায় প্রায় এক হাজার লোক লুটপাটে অংশ নেন। নাগরিকদের এসব এলাকা এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

হেলিকপ্টার থেকে নেয়া ফুটেজে দেখা গেছে, লোকজন হুমড়ি খেয়ে পড়ে ফুটলকার স্টোরসহ অন্যান্য দোকানে লুটপাট চালাতে।

এদিকে পশ্চিম ফিলাডেলফিয়ায় আরও প্রায় এক হাজার লোক রাস্তায় জড়ো হলে পুলিশ তাদের লাঠিপেটা করে। এ সময় কিছু বিক্ষোভকারীর সঙ্গে পুলিশের তীব্র সংঘর্ষ হয়।

পেনসিলভানিয়ার গভর্নর টম ওলফের কার্যালয় থেকে এক ঘোষণায় বলা হয়েছে– নিরাপদ সমাবেশ ও জনগণের নিরাপত্তার লক্ষ্যে ওই শহরে ন্যাশনাল গার্ডের কয়েকশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

সোমবার পুলিশ ওয়াল্টার ওয়ালেস নামে ২৭ বছরের এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবককে গুলি করে হত্যার পর শত শত বিক্ষোভকারী রাস্তায় নেমে আসেন।

এ যুবক মানসিক সমস্যায় ভুগছিল বলে তার পরিবার থেকে বলা হয়েছে।

সোমবার প্রথম রাতের সংঘর্ষকালে ৯০ জনেরও বেশি লোককে আটক করা হয়েছে। এ সময় ৩০ জনেরও বেশি পুলিশ কর্মকর্তা আহত হন।

গত মে মাসে জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যার পর যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে তীব্র বিক্ষোভ ও দাঙ্গার ঘটনা ঘটে। তা দীর্ঘসময় ধরে চলে।

কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে যুক্তরাষ্ট্রের বিক্ষোভ, সংঘর্ষ

 অনলাইন ডেস্ক 
২৯ অক্টোবর ২০২০, ০১:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে যুক্তরাষ্ট্রের বিক্ষোভ, সংঘর্ষ
ছবি: সংগৃহীত

পুলিশের গুলিতে এক কৃষ্ণাঙ্গ নিহত হওয়ার পর ফিলাডেলফিয়ায় মঙ্গলবারও দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়েছে।

ন্যায়বিচারের দাবিতে শত শত লোক রাস্তায় নেমে আসেন। এ সময়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ ও লুটপাটের ঘটনাও ঘটে।

পুলিশ বিভাগ টুইটারে সতর্ক করে বলেছে, ক্যাস্টর ও আরামিঙ্গো এলাকায় প্রায় এক হাজার লোক লুটপাটে অংশ নেন। নাগরিকদের এসব এলাকা এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

হেলিকপ্টার থেকে নেয়া ফুটেজে দেখা গেছে, লোকজন হুমড়ি খেয়ে পড়ে ফুটলকার স্টোরসহ অন্যান্য দোকানে লুটপাট চালাতে।

এদিকে পশ্চিম ফিলাডেলফিয়ায় আরও প্রায় এক হাজার লোক রাস্তায় জড়ো হলে পুলিশ তাদের লাঠিপেটা করে। এ সময় কিছু বিক্ষোভকারীর সঙ্গে পুলিশের তীব্র সংঘর্ষ হয়।

পেনসিলভানিয়ার গভর্নর টম ওলফের কার্যালয় থেকে এক ঘোষণায় বলা হয়েছে– নিরাপদ সমাবেশ ও জনগণের নিরাপত্তার লক্ষ্যে ওই শহরে ন্যাশনাল গার্ডের কয়েকশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

সোমবার পুলিশ ওয়াল্টার ওয়ালেস নামে ২৭ বছরের এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবককে গুলি করে হত্যার পর শত শত বিক্ষোভকারী রাস্তায় নেমে আসেন।

এ যুবক মানসিক সমস্যায় ভুগছিল বলে তার পরিবার থেকে বলা হয়েছে।

সোমবার প্রথম রাতের সংঘর্ষকালে ৯০ জনেরও বেশি লোককে আটক করা হয়েছে। এ সময় ৩০ জনেরও বেশি পুলিশ কর্মকর্তা আহত হন।

গত মে মাসে জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যার পর যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে তীব্র বিক্ষোভ ও দাঙ্গার ঘটনা ঘটে। তা দীর্ঘসময় ধরে চলে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় অগ্নিগর্ভ যুক্তরাষ্ট্র