একদিনে দেশের ২৫ লাখ মানুষের করোনা পরীক্ষা
jugantor
একদিনে দেশের ২৫ লাখ মানুষের করোনা পরীক্ষা

  অনলাইন ডেস্ক  

০১ নভেম্বর ২০২০, ২১:৫০:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

স্লোভাকিয়া

স্লোভাকিয়ায় একদিনে দেশের প্রায় অর্ধেক জনগোষ্ঠীর করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। শনিবার থেকে দুইদিন ব্যাপী দেশ জুড়ে করোনা টেস্টের আয়োজন করা হয়েছে। প্রথম দিনে ২৫ লাখ ৮০ হাজার মানুষের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এই সংখ্যা দেশের মোট জনগোষ্ঠীর অর্ধেক।

রোববার গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সরকার মনে করছে, সারা দেশে করোনা পরীক্ষা চালালে কঠিন লকডাউনের হাত থেকে দেশকে বাঁচানো যাবে।

স্লোভাকিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী জারোস্লাভ নাড বলেন, শনিবার ২৫ লাখ ৮০ হাজার মানুষের করোনা টেস্ট করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১ শতাংশ বা ২৫ হাজার ৮৫০ জন পজিটিভ পাওয়া গেছে। তাদেরকে কোয়ারেন্টিনে যেতে হবে।

ইউরোপের দেশটিতে মোট জনসংখ্যা ৫৫ লাখ। ১০ বছরের শিশু ছাড়া দেশের সবার করোনা শনাক্ত পরীক্ষার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, শনাক্ত পরীক্ষাকালে ৪০ হাজারের বেশি চিকিৎসাকর্মী এবং সহযোগী দল হিসেবে সেনা, পুলিশ, প্রশাসনিক কর্মী এবং স্বেচ্ছাসেবকরা কাজ করেছে। পাঁচ হাজার কেন্দ্রে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা হয়েছে। এই পরীক্ষা ছিলো বিনামূল্যে এবং স্বেচ্ছামূলক। তবে যারা এতে অংশ নেয়নি তাদেরকে লকডাউনের আওতায় রাখা হবে, যার মধ্যে কর্মস্থলে যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞাও রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ইগর মাতোভিক বলেছেন, জনগণকে পরীক্ষায় অংশ নিতে চাপপ্রয়োগের জন্য তিনি দুঃখিত। তবে এটি প্রয়োজন ছিল।

একদিনে দেশের ২৫ লাখ মানুষের করোনা পরীক্ষা

 অনলাইন ডেস্ক 
০১ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
স্লোভাকিয়া
ছবি: গার্ডিয়ান

স্লোভাকিয়ায় একদিনে দেশের প্রায় অর্ধেক জনগোষ্ঠীর করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। শনিবার থেকে দুইদিন ব্যাপী দেশ জুড়ে করোনা টেস্টের আয়োজন করা হয়েছে।  প্রথম দিনে ২৫ লাখ ৮০ হাজার মানুষের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে।  এই সংখ্যা দেশের মোট জনগোষ্ঠীর অর্ধেক। 

রোববার গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,  সরকার মনে করছে, সারা দেশে করোনা পরীক্ষা চালালে কঠিন লকডাউনের হাত থেকে দেশকে বাঁচানো যাবে।   

স্লোভাকিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী জারোস্লাভ নাড বলেন, শনিবার ২৫ লাখ ৮০ হাজার মানুষের করোনা টেস্ট করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১ শতাংশ বা ২৫ হাজার ৮৫০ জন পজিটিভ পাওয়া গেছে। তাদেরকে কোয়ারেন্টিনে যেতে হবে। 

ইউরোপের দেশটিতে মোট জনসংখ্যা ৫৫ লাখ। ১০ বছরের শিশু ছাড়া দেশের সবার করোনা শনাক্ত পরীক্ষার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, শনাক্ত পরীক্ষাকালে ৪০ হাজারের বেশি চিকিৎসাকর্মী এবং সহযোগী দল হিসেবে সেনা, পুলিশ, প্রশাসনিক কর্মী এবং স্বেচ্ছাসেবকরা কাজ করেছে। পাঁচ হাজার কেন্দ্রে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা হয়েছে। এই পরীক্ষা ছিলো বিনামূল্যে এবং স্বেচ্ছামূলক। তবে যারা এতে অংশ নেয়নি তাদেরকে লকডাউনের আওতায় রাখা হবে, যার মধ্যে কর্মস্থলে যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞাও রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ইগর মাতোভিক বলেছেন, জনগণকে পরীক্ষায় অংশ নিতে চাপপ্রয়োগের জন্য তিনি দুঃখিত। তবে এটি প্রয়োজন ছিল।
 
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস