ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে যা বললেন শাইখুল আজহার
jugantor
ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে যা বললেন শাইখুল আজহার

  অনলাইন ডেস্ক  

০৯ নভেম্বর ২০২০, ১৮:১১:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে যা বললেন শাইখুল আজহার

উত্তেজনা কমাতে মিসর সফরে গিয়ে ঐতিহাসিক আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যান্ড ইমামের(শাইখুল আজহার) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিন-ইয়েভস লে ড্রিয়ান।

এসময় মহানবীকে (সা.) অপমানের বিষয়টি মানা যেতে পারে না বলে ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানিয়ে দিয়েছেন মিসরের গ্রান্ড মুফতি শাইখ আহমদ আত তাইয়্যেব।

ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের নবীকে (সা.) অপমানের বিষয়টিকেও যদি আপনারা বাকস্বাধীনতা বলে বিবেচনা করেন, তাহলে আমরা এটিকে সম্পূর্ণরুপে প্রত্যাখ্যান করি।

আমাদের মহানবীকে (সা.) অপমান করা মানা যেতে পারে না। যে ব্যক্তি তাকে অপমান করবে, আমরা তার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে যাব। আমরা আমাদের বাকি জীবন সেই কাজেই ব্যয় করব।’

আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল পেইজে প্রকাশিত বিবৃতিতে এসব কথা জানানো হয়েছে।

আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান হিসেবে বিশ্ব জুড়ে সুন্নি মুসলিমদের মধ্যে শাইখুল আজহারের ভিন্ন একটি প্রভাব রয়েছে।

ডয়চে ভেলের খবরে বলা হয়, ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে ধর্মের নামে সন্ত্রাসবাদেরও নিন্দা করেছেন শাইখ আহমদ আত তাইয়্যেব।

তিনি বলেছেন, ইসলামে সন্ত্রাসবাদের কোনো স্থান নেই। আল আজহার ২০০ কোটি মুসলিমের প্রতিনিধিত্ব করে। আমি বলছি, সন্ত্রাসীরা আমাদের প্রতিনিধি নয়। তাদের কাজের জন্য আমরা দায়ী নই।

বৈঠক শেষে ফরাসি পররষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ইমামের সঙ্গে খোলাখুলি আলোচনা হয়েছে। ইমাম বলেছেন, যেখানে মতের মিল আছে, সেখানে আমরা একসঙ্গে কাজ করব।’

ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে যা বললেন শাইখুল আজহার

 অনলাইন ডেস্ক 
০৯ নভেম্বর ২০২০, ০৬:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে যা বললেন শাইখুল আজহার
ছবিটি আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল পেইজ থেকে সংগৃহীত

উত্তেজনা কমাতে মিসর সফরে গিয়ে ঐতিহাসিক আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যান্ড ইমামের(শাইখুল আজহার) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিন-ইয়েভস লে ড্রিয়ান। 

এসময় মহানবীকে (সা.) অপমানের বিষয়টি মানা যেতে পারে না বলে ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানিয়ে দিয়েছেন মিসরের গ্রান্ড মুফতি শাইখ আহমদ আত তাইয়্যেব। 

ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের নবীকে (সা.) অপমানের বিষয়টিকেও যদি আপনারা বাকস্বাধীনতা বলে বিবেচনা করেন, তাহলে আমরা এটিকে সম্পূর্ণরুপে প্রত্যাখ্যান করি। 

আমাদের মহানবীকে (সা.) অপমান করা মানা যেতে পারে না। যে ব্যক্তি তাকে অপমান করবে, আমরা তার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে যাব। আমরা আমাদের বাকি জীবন সেই কাজেই ব্যয় করব।’

আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল পেইজে প্রকাশিত বিবৃতিতে এসব কথা জানানো হয়েছে।  

আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান হিসেবে বিশ্ব জুড়ে সুন্নি মুসলিমদের মধ্যে শাইখুল আজহারের ভিন্ন একটি প্রভাব রয়েছে।  

ডয়চে ভেলের খবরে বলা হয়, ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে ধর্মের নামে সন্ত্রাসবাদেরও নিন্দা করেছেন শাইখ আহমদ আত তাইয়্যেব। 

তিনি বলেছেন, ইসলামে সন্ত্রাসবাদের কোনো স্থান নেই। আল আজহার ২০০ কোটি মুসলিমের প্রতিনিধিত্ব করে। আমি বলছি, সন্ত্রাসীরা আমাদের প্রতিনিধি নয়। তাদের কাজের জন্য আমরা দায়ী নই।

বৈঠক শেষে ফরাসি পররষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ইমামের সঙ্গে খোলাখুলি আলোচনা হয়েছে। ইমাম বলেছেন, যেখানে মতের মিল আছে, সেখানে আমরা একসঙ্গে কাজ করব।’
  

 

ঘটনাপ্রবাহ : ফ্রান্সে ইসলাম অবমাননা