করোনায় চাকরি খুইয়ে পাইলট এখন ফুচকাওয়ালা
jugantor
করোনায় চাকরি খুইয়ে পাইলট এখন ফুচকাওয়ালা

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৪ নভেম্বর ২০২০, ১৯:১৩:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনায় চাকরি খুইয়ে পাইলট এখন ফুচকাওয়ালা

দূর থেকে দেখলে স্পষ্টভাবেই বোঝা যায় তিনি একজন পাইলট। মাথায় কালো টুপি। গায়ে সাদা পোশাক। তবে এখন আর তার হাতে নেই উড়োজাহাজের কন্ট্রোলার। বরং রাস্তার পাশে বসেই বর্তমানে ফুটপাত দোকানদার।

করোনাকালে চাকরি হারিয়ে রাস্তার ধারে ফুচকা বিক্রি করছেন পাইলট আজরিন মোহম্মাদ জাওয়ায়ি। প্রতিদিন সকালে নিজের প্রিয় ইউনিফর্মটি পড়ে এভাবেই হাজির হন রাজধানি কুয়ালালামপুরের পাশের সুবাংজায়া শহরের ফুটপাতে।

চলতি মাসেই মালয়েশিয়ার মালিন্দ এয়ার থেকে চাকরি হারানো এই পাইলটের দোকানের নাম ‘ক্যাপ্টেন কর্নার’। চাকরি যাওয়ার পর সংসার সামলাতে রাস্তার পাশে খাবারের দোকানই খুলে বসেছেন জাওয়ায়ি।খবর এনডিটিভি ও হিন্দুস্তান টাইমসের।

হঠাৎ চাকরি হারিয়ে দিশেহার হয়ে পড়েন চার সন্তানের জনক জাওয়ায়ি। সংসার খরচ চালানোর অন্য উপায় না দেখে নিজের স্ত্রীকে নিয়ে শুরু করেন ‘ক্যাপ্টেন কর্নার ’ব্যাবসা।

পাইলটের পোশাক পরে নিজেই রান্না করেন নুডলস, ফুচকাসহ বিভিন্ন মালয়েশিয়ান ফুড। পরিবেশনও করেন ওই পোশাকেই। এরইমধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তাও পেয়েছেন তিনি।

পরিবেশনও করেন ওই পোশাকেই। এ প্রসঙ্গে আজরিন জানান, করোনা সংক্রমণের কারণে অনেক উড়োজাহাজ চালকেরই চাকরি চলে গেছে। তাদের মতো আমি একজন ।

করোনায় চাকরি খুইয়ে পাইলট এখন ফুচকাওয়ালা

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৪ নভেম্বর ২০২০, ০৭:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনায় চাকরি খুইয়ে পাইলট এখন ফুচকাওয়ালা
ছবি: সংগৃহীত

দূর থেকে দেখলে স্পষ্টভাবেই বোঝা যায় তিনি একজন পাইলট। মাথায় কালো টুপি। গায়ে সাদা পোশাক। তবে এখন আর তার হাতে নেই উড়োজাহাজের কন্ট্রোলার। বরং রাস্তার পাশে বসেই বর্তমানে ফুটপাত দোকানদার। 

করোনাকালে চাকরি হারিয়ে রাস্তার ধারে ফুচকা বিক্রি করছেন পাইলট আজরিন মোহম্মাদ জাওয়ায়ি। প্রতিদিন সকালে নিজের প্রিয় ইউনিফর্মটি পড়ে এভাবেই হাজির হন রাজধানি কুয়ালালামপুরের পাশের সুবাংজায়া শহরের ফুটপাতে। 

চলতি মাসেই মালয়েশিয়ার মালিন্দ এয়ার থেকে  চাকরি হারানো এই পাইলটের দোকানের নাম ‘ক্যাপ্টেন কর্নার’। চাকরি যাওয়ার পর সংসার সামলাতে রাস্তার পাশে খাবারের দোকানই খুলে বসেছেন জাওয়ায়ি। খবর এনডিটিভি ও হিন্দুস্তান টাইমসের। 

হঠাৎ চাকরি হারিয়ে দিশেহার হয়ে পড়েন চার সন্তানের জনক জাওয়ায়ি। সংসার খরচ চালানোর অন্য উপায় না দেখে নিজের স্ত্রীকে নিয়ে শুরু করেন ‘ক্যাপ্টেন কর্নার ’ব্যাবসা।  

পাইলটের পোশাক পরে নিজেই রান্না করেন নুডলস, ফুচকাসহ বিভিন্ন মালয়েশিয়ান ফুড। পরিবেশনও করেন ওই পোশাকেই।  এরইমধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তাও পেয়েছেন তিনি।

পরিবেশনও করেন ওই পোশাকেই। এ প্রসঙ্গে আজরিন জানান, করোনা সংক্রমণের কারণে অনেক উড়োজাহাজ চালকেরই চাকরি চলে গেছে। তাদের মতো আমি একজন ।