জনসংখ্যা আরও বাড়াতে চীনের বিশেষ পরিকল্পনা
jugantor
জনসংখ্যা আরও বাড়াতে চীনের বিশেষ পরিকল্পনা

  অনলাইন ডেস্ক  

২৪ নভেম্বর ২০২০, ২২:৫৭:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বেশি সন্তান নেয়াকে উৎসাহিত করতে দম্পতিদের বাড়তি আর্থিক সহায়তা দেবে চীন সরকার। ফাইল ছবি

এক সন্তান নীতি শিথিল করে দিলেও চীনের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ক্রমহ্রাসমান। বাড়ছে বয়স্ক মানুষের সংখ্যাও। জনসংখ্যা বাড়াতে তাই পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা (২০২১-২০২৫) গ্রহণ করেছে চীন।সোমবার এক খবর জানিয়েছেদেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম চায়না ডেইলির।

খবরে বলা হয়েছে, নতুন নীতিমালার আওতায় বেশি সন্তান নেয়াকে উৎসাহিত করতে দম্পতিদের বাড়তি আর্থিক ও নীতিগত সহায়তা দেয়া হবে।

চীনের জনসংখ্যা সংস্থার ভাইস প্রেসিডেন্ট ইউয়ান শিন বলেছেন, জন্মহার বাড়ানো, কর্মক্ষেত্রের মানোন্নয়ন, জনসংখ্যার কাঠামোর উন্নতির ওপরও নজর দেয়া হবে নতুন নীতিমালার আওতায়।

দারিদ্র্যের হার হ্রাস ও অর্থনীতির উন্নয়নে ১৯৭৮ সালে চীন বিতর্কিত ‘এক সন্তান’র নীতি ঘোষণা করেছিল। ২০১৫ সাল থেকে চীন এক্ষেত্রে ছাড় দেয়া শুরু করে।

জনসংখ্যা আরও বাড়াতে চীনের বিশেষ পরিকল্পনা

 অনলাইন ডেস্ক 
২৪ নভেম্বর ২০২০, ১০:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বেশি সন্তান নেয়াকে উৎসাহিত করতে দম্পতিদের বাড়তি আর্থিক সহায়তা দেবে চীন সরকার। ফাইল ছবি
বেশি সন্তান নেয়াকে উৎসাহিত করতে দম্পতিদের বাড়তি আর্থিক সহায়তা দেবে চীন সরকার। ফাইল ছবি

এক সন্তান নীতি শিথিল করে দিলেও চীনের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ক্রমহ্রাসমান। বাড়ছে বয়স্ক মানুষের সংখ্যাও। জনসংখ্যা বাড়াতে তাই পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা (২০২১-২০২৫) গ্রহণ করেছে চীন। সোমবার এক খবর জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম চায়না ডেইলির।

খবরে বলা হয়েছে, নতুন নীতিমালার আওতায় বেশি সন্তান নেয়াকে উৎসাহিত করতে দম্পতিদের বাড়তি আর্থিক ও নীতিগত সহায়তা দেয়া হবে। 

চীনের জনসংখ্যা সংস্থার ভাইস প্রেসিডেন্ট ইউয়ান শিন বলেছেন, জন্মহার বাড়ানো, কর্মক্ষেত্রের মানোন্নয়ন, জনসংখ্যার কাঠামোর উন্নতির ওপরও নজর দেয়া হবে নতুন নীতিমালার আওতায়।  

দারিদ্র্যের হার হ্রাস ও অর্থনীতির উন্নয়নে ১৯৭৮ সালে চীন বিতর্কিত ‘এক সন্তান’র নীতি ঘোষণা করেছিল।  ২০১৫ সাল থেকে চীন এক্ষেত্রে ছাড় দেয়া শুরু করে।