আফগানিস্তানে জোড়া বোমা হামলায় পুলিশসহ নিহত ১৭
jugantor
আফগানিস্তানে জোড়া বোমা হামলায় পুলিশসহ নিহত ১৭

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০:৫০:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের মধ্যাঞ্চলীয় বামিয়ান প্রদেশের রাজধানী বামিয়ান শহরে জোড়া বোমা হামলায় দুই পুলিশসহ অন্তত ১৭ জন নিহত এবং অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।

শিয়া হাজারা মুসলিম সম্প্রদায় অধ্যুষিত বামিয়ান শহরে মঙ্গলবার ওই হামলা দুটি চালানো হয়। খবর দ্য টেলিগ্রাফ ও সিনহুয়ার।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তারিখ আরিয়ান জানান, মঙ্গলবার সকালের ব্যস্ত সময়ে একটি মার্কেটে দুটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটে।

পুলিশ জানিয়েছে, মার্কেটের একটি রাস্তার পাশে ওই বোমা পেতে রাখা হয়েছিল। নিহতদের মধ্যে শিশুসহ ১৫ জন বেসামরিক নাগরিক রয়েছেন।

এ ছাড়া দুই ট্রাফিক পুলিশ নিহত হয়েছেন। কোনো গোষ্ঠী ওই হামলার কথা স্বীকার করেনি।

গত কয়েক বছর ধরে বহুবার আফগানিস্তানে শিয়া হাজারা মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকজন হামলার শিকার হয়েছেন। গত মে মাসে রাজধানী কাবুলে হাজারা সম্প্রদায়ের একটি আবাসিক এলাকার মা ও শিশু হাসপাতালে উগ্র সন্ত্রাসীরা দিনের বেলায় হামলা চালিয়ে হত্যাকাণ্ড ঘটায় এবং তাতে কয়েকজন মা নিহত হন।

সম্প্রতি আফগান তালেবান ও আমেরিকার মধ্যে শান্তিচুক্তি সই এবং কাবুল সরকারের সঙ্গে তালেবানের শান্তি আলোচনা চললেও দেশটিতে প্রকৃতপক্ষে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয়নি।

বরং সাম্প্রতিক দিনগুলোতে কাবুলে সহিংসতা বেড়েছে। এসব সহিংসতায় শুধু যে তালেবান অংশ নিচ্ছে তা নয়; বরং উগ্রবাদী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসেরও অংশগ্রহণ রয়েছে।

আফগানিস্তানে জোড়া বোমা হামলায় পুলিশসহ নিহত ১৭

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০:৫০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের মধ্যাঞ্চলীয় বামিয়ান প্রদেশের রাজধানী বামিয়ান শহরে জোড়া বোমা হামলায় দুই পুলিশসহ অন্তত ১৭ জন নিহত এবং অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।

শিয়া হাজারা মুসলিম সম্প্রদায় অধ্যুষিত বামিয়ান শহরে মঙ্গলবার ওই হামলা দুটি চালানো হয়। খবর দ্য টেলিগ্রাফ ও সিনহুয়ার।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তারিখ আরিয়ান জানান, মঙ্গলবার সকালের ব্যস্ত সময়ে একটি মার্কেটে দুটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটে।

পুলিশ জানিয়েছে, মার্কেটের একটি রাস্তার পাশে ওই বোমা পেতে রাখা হয়েছিল। নিহতদের মধ্যে শিশুসহ ১৫ জন বেসামরিক নাগরিক রয়েছেন।

এ ছাড়া দুই ট্রাফিক পুলিশ নিহত হয়েছেন। কোনো গোষ্ঠী ওই হামলার কথা স্বীকার করেনি।

গত কয়েক বছর ধরে বহুবার আফগানিস্তানে শিয়া হাজারা মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকজন হামলার শিকার হয়েছেন। গত মে মাসে রাজধানী কাবুলে হাজারা সম্প্রদায়ের একটি আবাসিক এলাকার মা ও শিশু হাসপাতালে উগ্র সন্ত্রাসীরা দিনের বেলায় হামলা চালিয়ে হত্যাকাণ্ড ঘটায় এবং তাতে কয়েকজন মা নিহত হন।

সম্প্রতি আফগান তালেবান ও আমেরিকার মধ্যে শান্তিচুক্তি সই এবং কাবুল সরকারের সঙ্গে তালেবানের শান্তি আলোচনা চললেও দেশটিতে প্রকৃতপক্ষে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয়নি।

বরং সাম্প্রতিক দিনগুলোতে কাবুলে সহিংসতা বেড়েছে। এসব সহিংসতায় শুধু যে তালেবান অংশ নিচ্ছে তা নয়; বরং উগ্রবাদী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসেরও অংশগ্রহণ রয়েছে।