‘লাভ জিহাদ’ ঠেকাতে যোগী রাজ্যে নতুন আইন
jugantor
‘লাভ জিহাদ’ ঠেকাতে যোগী রাজ্যে নতুন আইন

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৫ নভেম্বর ২০২০, ২১:২৯:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

‘লাভ জিহাদ’ ঠেকাতে যোগী রাজ্যে নতুন আইন

এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়ের পরও লাভ জিহাদ রুখতে উত্তর প্রদেশে অর্ডিন্যান্স জারি করেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের কট্টর হিন্দুত্ববাদী যোগী আদিত্যনাথের সরকার।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজ্য ক্যাবিনেটের জরুরি বৈঠকে এই অর্ডিন্যান্সটি পাস করানো হয়, যাতে বলা হয়েছে শুধুমাত্র একটি মেয়ের ধর্ম পরিবর্তনের উদ্দেশ্য নিয়ে দুই ধর্মের মধ্যে কোনো বিয়ে হলে দোষী ব্যক্তির দশ বছর পর্যন্ত কারাদন্ড হতে পারবে।

একদিন আগেই এলাহাবাদ হাইকোর্ট জানিয়েছিল, বিয়ের ক্ষেত্রে প্রাপ্তবয়স্ক ছেলেমেয়ের সম্মতিই হলো আসল কথা। সেখানে ধর্ম দেখা হবে না।

সংবিধান দেখিয়ে আদালত জানিয়েছিল, সবারই নিজের মতো করে জীবন কাটানোর অধিকার আছে। কিন্তু এরপরই উত্তর প্রদেশে যোগী আদিত্যনাথ সরকার এ অর্ডিন্যান্স নিয়ে এসেছে।

অর্ডিন্যান্স অনুযায়ী, ধর্ম পরিবর্তন করার জন্য বিয়ে করা হলে, সেই বিয়ে বাতিল বলে গণ্য হবে। আর জোর করে ধর্ম পরিবর্তন করার জন্য এক থেকে পাঁচ বছরের জেল হবে। সঙ্গে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা।

দলিত ও আদিবাসীদের ক্ষেত্রে জেলের মেয়াদ হবে তিন থেকে দশ বছর। জরিমানা দিতে হবে ২৫ হাজার টাকা।

আর মিথ্যা কথা বলে, প্রলোভন দেখিয়ে গণহারে ধর্মান্তর করলে দশ বছর পর্যন্ত জেলের পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা হবে। নাবালিকাকে বিয়ের জন্য ধর্মান্তর করলেও একই সাজা হবে।

সূত্র: বিবিসি ও ডয়চে ভেলে

‘লাভ জিহাদ’ ঠেকাতে যোগী রাজ্যে নতুন আইন

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৯:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
‘লাভ জিহাদ’ ঠেকাতে যোগী রাজ্যে নতুন আইন
ছবি: ডয়চে ভেলে

এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়ের পরও লাভ জিহাদ রুখতে উত্তর প্রদেশে অর্ডিন্যান্স জারি করেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের কট্টর হিন্দুত্ববাদী যোগী আদিত্যনাথের সরকার। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজ্য ক্যাবিনেটের জরুরি বৈঠকে এই অর্ডিন্যান্সটি পাস করানো হয়, যাতে বলা হয়েছে শুধুমাত্র একটি মেয়ের ধর্ম পরিবর্তনের উদ্দেশ্য নিয়ে দুই ধর্মের মধ্যে কোনো বিয়ে হলে দোষী ব্যক্তির দশ বছর পর্যন্ত কারাদন্ড হতে পারবে।

একদিন আগেই এলাহাবাদ হাইকোর্ট জানিয়েছিল, বিয়ের ক্ষেত্রে প্রাপ্তবয়স্ক ছেলেমেয়ের সম্মতিই হলো আসল কথা। সেখানে ধর্ম দেখা হবে না। 

সংবিধান দেখিয়ে আদালত জানিয়েছিল, সবারই নিজের মতো করে জীবন কাটানোর অধিকার আছে। কিন্তু এরপরই উত্তর প্রদেশে যোগী আদিত্যনাথ সরকার এ অর্ডিন্যান্স নিয়ে এসেছে। 

অর্ডিন্যান্স অনুযায়ী, ধর্ম পরিবর্তন করার জন্য বিয়ে করা হলে, সেই বিয়ে বাতিল বলে গণ্য হবে। আর জোর করে ধর্ম পরিবর্তন করার জন্য এক থেকে পাঁচ বছরের জেল হবে। সঙ্গে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা। 

দলিত ও আদিবাসীদের ক্ষেত্রে জেলের মেয়াদ হবে তিন থেকে দশ বছর। জরিমানা দিতে হবে ২৫ হাজার টাকা। 

আর মিথ্যা কথা বলে, প্রলোভন দেখিয়ে গণহারে ধর্মান্তর করলে দশ বছর পর্যন্ত জেলের পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা হবে। নাবালিকাকে বিয়ের জন্য ধর্মান্তর করলেও একই সাজা হবে।

 

সূত্র: বিবিসি ও ডয়চে ভেলে