নারীদের ‘জানোয়ারের’ সঙ্গে তুলনা করলেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী
jugantor
নারীদের ‘জানোয়ারের’ সঙ্গে তুলনা করলেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ নভেম্বর ২০২০, ১৯:৫৩:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ফাইল ছবি: টাইমস অব ইসরাইল

নারীদের ‘জানোয়ারের’ সঙ্গে তুলনা করেছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার প্রতিবাদ সমাবেশে বুধবার তিনি ওই বিতর্কিত বক্তব্য দেন। এ নিয়ে দেশটিতে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। খবর হারেৎজ ও টাইমস অব ইসরাইল।

খবরে বলা হয়, বুধবার ২৫ নভেম্বর ছিল ‘নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসা দূরীকরণ’ (ইন্টারন্যাশনাল ডে ফর দ্য এলিমিনেশন অব ভায়োলেন্স এগেইনস্ট উইমেন) বিষয়ক আন্তর্জাতিক দিবস। সেই উপলক্ষেই ইসরাইলের আইনসভা নেসেটে বক্তব্য রাখেন নেতানিয়াহু।

স্ত্রী সারা এবং নারী সংগঠনের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে নেতানিয়াহু বলেন, ‘নারীরা আপনার আমার সম্পদ নয়। কোনো পশু নয় যে তাদের ওপর অত্যাচার করা যাবে। নারীরা কোনো জানোয়ার নয় যে, তাকে আপনি পেটাতে পারেন। ইদানীং আমরা বলে থাকি, জানোয়ারদেরও আঘাত করো না। আমরা জানি যে, পশুদেরও বোধবুদ্ধি, চেতনা, অনুভূতি রয়েছে। সুতরাং পশুদের প্রতি যদি আমাদের সমবেদনা থাকে-সব নারীই পশু, সব শিশুও পশু, তবে তাদের প্রত্যেকেরই অধিকার রয়েছে।’

নেতানিয়াহুর এই মন্তব্য নিয়ে শুধু দেশেই নয়, আন্তর্জাতিক স্তরেও সমালোচনার ঝড় উঠেছে। একটি দেশের প্রধানমন্ত্রী কীভাবে জন্তু-জানোয়ারের সঙ্গে কীভাবে নারীদের তুলনা করলেন, সেই প্রশ্ন তুলে নেতানিয়াহুকে তুলোধোনাও করছেন অনেকে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর অফিস এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, ‘নারী সুরক্ষা ও নারীদের অধিকার নিয়ে মন খুলে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার প্রতিবাদেও সরব হয়েছেন। তার বক্তৃতার একটা ছোট অংশে হেনস্তার উদাহরণ দিতে গিয়ে পশুর প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন। কিন্তু তিনি কোনোভাবেই জন্তু-জানোয়ারের সঙ্গে নারীদের তুলনা করেননি।’

নারীদের ‘জানোয়ারের’ সঙ্গে তুলনা করলেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফাইল ছবি: টাইমস অব ইসরাইল
ফাইল ছবি: টাইমস অব ইসরাইল

নারীদের ‘জানোয়ারের’ সঙ্গে তুলনা করেছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার প্রতিবাদ সমাবেশে বুধবার তিনি ওই বিতর্কিত বক্তব্য দেন। এ নিয়ে দেশটিতে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। খবর হারেৎজ ও টাইমস অব ইসরাইল। 

খবরে বলা হয়, বুধবার ২৫ নভেম্বর ছিল ‘নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসা দূরীকরণ’ (ইন্টারন্যাশনাল ডে ফর দ্য এলিমিনেশন অব ভায়োলেন্স এগেইনস্ট উইমেন) বিষয়ক আন্তর্জাতিক দিবস। সেই উপলক্ষেই ইসরাইলের আইনসভা নেসেটে বক্তব্য রাখেন নেতানিয়াহু।  

স্ত্রী সারা এবং নারী সংগঠনের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে নেতানিয়াহু বলেন, ‘নারীরা আপনার আমার সম্পদ নয়। কোনো পশু নয় যে তাদের ওপর অত্যাচার করা যাবে। নারীরা কোনো জানোয়ার নয় যে, তাকে আপনি পেটাতে পারেন। ইদানীং আমরা বলে থাকি, জানোয়ারদেরও আঘাত করো না। আমরা জানি যে, পশুদেরও বোধবুদ্ধি, চেতনা, অনুভূতি রয়েছে। সুতরাং পশুদের প্রতি যদি আমাদের সমবেদনা থাকে-সব নারীই পশু, সব শিশুও পশু, তবে তাদের প্রত্যেকেরই অধিকার রয়েছে।’

নেতানিয়াহুর এই মন্তব্য নিয়ে শুধু দেশেই নয়, আন্তর্জাতিক স্তরেও সমালোচনার ঝড় উঠেছে। একটি দেশের প্রধানমন্ত্রী কীভাবে জন্তু-জানোয়ারের সঙ্গে কীভাবে নারীদের তুলনা করলেন, সেই প্রশ্ন তুলে নেতানিয়াহুকে তুলোধোনাও করছেন অনেকে।   

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর অফিস এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, ‘নারী সুরক্ষা ও নারীদের অধিকার নিয়ে মন খুলে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার প্রতিবাদেও সরব হয়েছেন। তার বক্তৃতার একটা ছোট অংশে হেনস্তার উদাহরণ দিতে গিয়ে পশুর প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন। কিন্তু তিনি কোনোভাবেই জন্তু-জানোয়ারের সঙ্গে নারীদের তুলনা করেননি।’