ধর্ষণের অপরাধে ইন্দোনেশিয়ায় তরুণকে প্রকাশ্যে ১৬৪ চাবুকের ঘা
jugantor
ধর্ষণের অপরাধে ইন্দোনেশিয়ায় তরুণকে প্রকাশ্যে ১৬৪ চাবুকের ঘা

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ নভেম্বর ২০২০, ২২:৫০:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

ইন্দোনেশিয়ায় ধর্ষণের অপরাধে এক তরুণকে শাস্তি দেয়া হচ্ছে।

এক শিশুকে ধর্ষণের অপরাধে ইন্দোনেশিয়ায় তরুণকে প্রকাশ্যে ১৬৪ বার চাবুকের ঘা দেওয়া হয়েছে। দেশটিতে ইসলামিক আইনের লঙ্ঘন করলে ইন্দোনেশিয়া চাবুকের ঘা লাগানোর সাজা সাধারণ ব্যাপার। তবে এতবার চাবুকের ঘা দেয়ার সাজা শুধুমাত্র গুরুতর অপরাধ করলেই দেয়া হয়। বৃহস্পতিবারএ খবর জানিয়েছে মেইল অনলাইন।

গত বছর এক নাবালিকাকে সে ধর্ষণ কররা অভিযোগ ছিল ১৯ বছরের ওই তরুণের বিরুদ্ধে। এ জন্য তাকে সবার সামনে ১৪৬ বার চাবুকের শাস্তি দেওয়া হয়েছিল।

চাবুকের কয়েক ঘা খাওয়ার পরই সেই ধর্ষক মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকে। কিন্তু প্রশাসনের পক্ষ থেকে সেখানে একজন ডাক্তারকে রাখা হয়েছিল। তিনি সেই ধর্ষকের সুস্থ করে তোলেন। এর পর আবার তাকে চাবুকের ঘা দেওয়া হয়।

ধর্ষণের অপরাধে ইন্দোনেশিয়ায় তরুণকে প্রকাশ্যে ১৬৪ চাবুকের ঘা

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ নভেম্বর ২০২০, ১০:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ইন্দোনেশিয়ায় ধর্ষণের অপরাধে এক তরুণকে শাস্তি দেয়া হচ্ছে।
ইন্দোনেশিয়ায় ধর্ষণের অপরাধে এক তরুণকে শাস্তি দেয়া হচ্ছে। ছবি: মেইল অনলাইন

এক শিশুকে ধর্ষণের অপরাধে ইন্দোনেশিয়ায় তরুণকে প্রকাশ্যে ১৬৪ বার চাবুকের ঘা দেওয়া হয়েছে। দেশটিতে ইসলামিক আইনের লঙ্ঘন করলে ইন্দোনেশিয়া চাবুকের ঘা লাগানোর সাজা সাধারণ ব্যাপার। তবে এতবার চাবুকের ঘা দেয়ার সাজা শুধুমাত্র গুরুতর অপরাধ করলেই দেয়া হয়। বৃহস্পতিবার এ খবর জানিয়েছে মেইল অনলাইন।

গত বছর এক নাবালিকাকে সে ধর্ষণ কররা অভিযোগ ছিল ১৯ বছরের ওই তরুণের বিরুদ্ধে। এ জন্য তাকে সবার সামনে ১৪৬ বার চাবুকের শাস্তি দেওয়া হয়েছিল। 

চাবুকের কয়েক ঘা খাওয়ার পরই সেই ধর্ষক মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকে। কিন্তু প্রশাসনের পক্ষ থেকে সেখানে একজন ডাক্তারকে রাখা হয়েছিল। তিনি সেই ধর্ষকের সুস্থ করে তোলেন। এর পর আবার তাকে চাবুকের ঘা দেওয়া হয়।