২৭ লাখ মানুষকে ফ্রি ভিটামিন-ডি দেবে ইংল্যান্ড সরকার
jugantor
২৭ লাখ মানুষকে ফ্রি ভিটামিন-ডি দেবে ইংল্যান্ড সরকার

  অনলাইন ডেস্ক  

২৮ নভেম্বর ২০২০, ২০:১৪:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

ভিটামিন ডি

২৭ লাখেরও বেশি মানুষকেফ্রি ভিটামিন- ডি সরবরাহ করার পরিকল্পনা নিয়েছে ইংল্যান্ডে সরকার। শনিবার দেশটির সরকার এ নিয়ে বিশেষ ঘোষণা দিয়েছে।খবর গার্ডিয়ানের।

এর আগে ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগ আসন্ন বসন্ত ও গ্রীষ্মকালে মানুষকে ভিটামিন ডি গ্রহণ করতে পরামর্শ দেয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী জানুয়ারি থেকে চার মাস যাবৎ ২৭ লাখেরও বেশি মানুষকে চার মাস ফ্রি ভিটামিন ডি সরবরাহ করা হবে।

ভিটামিন-ডি খুব সহজেই আমরা গ্রহণ করতে পারি। শরীরে রোদ লাগলে আমাদের ত্বক ভিটামিন ডি তৈরি করে।

সূর্যালোক, ভিটামিন ও অন্যান্য উপাদান আমাদের শরীরকে সবল রাখতে সাহায্য করে এবং রোগ সংক্রমণ থেকে বাঁচায় - যা মহামারি পরিস্থিতিতে খুবই প্রয়োজনীয়।

ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, অক্টোবর থেকে মার্চ পর্যন্ত প্রত্যেকের জন্য প্রতিদিন ১০ মাইক্রোগ্রাম ভিটামিন প্রয়োজন। বিশেষ করে যে বয়স্ক মানুষ ঘর থেকে বের হন না, যারা সূর্যের আলো গায়ে লাগান না তাদের জন্য এটি খুবই প্রয়োজন।

ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগ মনে করছে, করোনাভাইরাসে লকডাউনের সময় মানুষকে ঘরে থাকতে বলার কারণে তারা সূর্যালোকের সংস্পর্শ বঞ্চিত এবং ফলে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ডি বঞ্চিত হতে পারে।

যাদের জন্য ভিটামিন ডি বিশেষ প্রয়োজন

ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগের মতে যেসব মানুষের ভিটামিন-ডি বিশেষ প্রয়োজন তারা হলেন-

যারা নিয়মিত ভিত্তিতে ঘরের বাইরে না যান।

যারা যদি বৃদ্ধনিবাসে থাকেন।

বাইরে গেলে এমন পোশাক পরেন, যা তার শরীরের অধিকাংশই ঢেকে রাখে।

আবার অপেক্ষাকৃত কৃষ্ণবর্ণের মানুষের ত্বকের পিগনেন্ট মেলানিন সূর্য থেকে যথেষ্ট পরিমাণ রশ্মি শোষণ করতে দেয় না, যার ফলে ত্বক প্রয়োজনীয় পরিমাণ ভিটামিন ডি তৈরি করতে পারে না। তাদের জন্যও ভিটামিন ডি বিশেষ প্রয়োজন।

২৭ লাখ মানুষকে ফ্রি ভিটামিন-ডি দেবে ইংল্যান্ড সরকার

 অনলাইন ডেস্ক 
২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৮:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ভিটামিন ডি
প্রতীকী ছবি

২৭ লাখেরও বেশি মানুষকে ফ্রি ভিটামিন- ডি সরবরাহ করার পরিকল্পনা নিয়েছে ইংল্যান্ডে সরকার। শনিবার দেশটির সরকার এ নিয়ে বিশেষ ঘোষণা দিয়েছে। খবর গার্ডিয়ানের। 

এর আগে ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগ আসন্ন বসন্ত ও গ্রীষ্মকালে মানুষকে ভিটামিন ডি গ্রহণ করতে পরামর্শ দেয়। 

প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী জানুয়ারি থেকে চার মাস যাবৎ ২৭ লাখেরও বেশি মানুষকে চার মাস ফ্রি ভিটামিন ডি সরবরাহ করা হবে। 

ভিটামিন-ডি খুব সহজেই আমরা গ্রহণ করতে পারি।  শরীরে রোদ লাগলে আমাদের ত্বক ভিটামিন ডি তৈরি করে।

সূর্যালোক, ভিটামিন ও অন্যান্য উপাদান আমাদের শরীরকে সবল রাখতে সাহায্য করে এবং রোগ সংক্রমণ থেকে বাঁচায় - যা মহামারি পরিস্থিতিতে খুবই প্রয়োজনীয়।

ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, অক্টোবর থেকে মার্চ পর্যন্ত প্রত্যেকের জন্য প্রতিদিন ১০ মাইক্রোগ্রাম ভিটামিন প্রয়োজন। বিশেষ করে যে বয়স্ক মানুষ ঘর থেকে বের হন না, যারা সূর্যের আলো গায়ে লাগান না তাদের জন্য এটি খুবই প্রয়োজন। 

ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগ মনে করছে, করোনাভাইরাসে লকডাউনের সময় মানুষকে ঘরে থাকতে বলার কারণে তারা সূর্যালোকের সংস্পর্শ বঞ্চিত এবং ফলে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ডি বঞ্চিত হতে পারে।

যাদের জন্য ভিটামিন ডি বিশেষ প্রয়োজন

ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগের মতে যেসব মানুষের ভিটামিন-ডি বিশেষ প্রয়োজন তারা হলেন-

যারা নিয়মিত ভিত্তিতে ঘরের বাইরে না যান।

যারা যদি বৃদ্ধনিবাসে থাকেন।

বাইরে গেলে এমন পোশাক পরেন, যা তার শরীরের অধিকাংশই ঢেকে রাখে।

আবার অপেক্ষাকৃত কৃষ্ণবর্ণের মানুষের ত্বকের পিগনেন্ট মেলানিন সূর্য থেকে যথেষ্ট পরিমাণ রশ্মি শোষণ করতে দেয় না, যার ফলে ত্বক প্রয়োজনীয় পরিমাণ ভিটামিন ডি তৈরি করতে পারে না। তাদের জন্যও ভিটামিন ডি বিশেষ প্রয়োজন।