বিদেশি কর্মীকে মালয়েশীয় পুলিশের লাথি, ভিডিও ভাইরাল
jugantor
বিদেশি কর্মীকে মালয়েশীয় পুলিশের লাথি, ভিডিও ভাইরাল

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে  

০২ ডিসেম্বর ২০২০, ২২:০৭:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় বিদেশি কর্মীকে পুলিশ লাথি মারছিলেন- এমন দৃশ্যের একটি ভিডিও যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মালয়েশিয়ার সেরাম্বানে। ২৯ নভেম্বর সেরাম্বানের সেনাভাংয়ের একটি কারখানার শ্রমিকের ওপর পুলিশি বর্বরতার অভিযোগ আসার পর ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে চলছে তদন্ত।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, একজন পুলিশ অফিসার বিদেশি কর্মীকে লাথি মারছিলেন। ওই কর্মী তার সহকর্মীদের সঙ্গে রাস্তার পাশে একটি লাইনে বসে একটি বাসের অপেক্ষায় ছিলেন।

এ ঘটনার রেশ টেনে অনেকে বলছেন, আমরা পুলিশ আধিকারিকদের প্রশংসা করি, কারণ তারা দেশের নাগরিকদের সুরক্ষার জন্য প্রতিনিয়ত নিজেকে আত্মনিয়োগ করেন। তবে দুঃখের বিষয়, অনেক সময় এমন কিছু ব্যক্তিও থাকতে পারে যারা কর্তৃপক্ষের সুযোগটি তাদের কাজের অধিকার হিসেবে গ্রহণ করে।
কোনোভাবেই পুলিশের এমন নিষ্ঠুর আচরণ করা উচিত নয় বলে অনেকে বলছেন।

এদিকে পুলিশের মুখ্য সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ সাইদ ইব্রাহিম বলছেন, তাকে ভিডিও ক্লিপ সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে এবং পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল কিনা, তা সত্য কিনা- এটা নিশ্চিত করার জন্য তদন্ত করা হচ্ছে।

যদি সত্য হয় তবে একটি পুলিশ রিপোর্ট দায়ের করা হবে এবং যথাযথ তদন্ত করা হবে। বিদ্যমান আইনে কাউকেই ওভাররাইড করার অনুমতি নেই বলে জানিয়েছেন পুলিশের মুখ্য সহকারী কমিশনার।

বিদেশি কর্মীকে মালয়েশীয় পুলিশের লাথি, ভিডিও ভাইরাল

 আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে 
০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মালয়েশিয়ায় বিদেশি কর্মীকে পুলিশ লাথি মারছিলেন- এমন দৃশ্যের একটি ভিডিও যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মালয়েশিয়ার সেরাম্বানে। ২৯ নভেম্বর সেরাম্বানের সেনাভাংয়ের একটি কারখানার শ্রমিকের ওপর পুলিশি বর্বরতার অভিযোগ আসার পর ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে চলছে তদন্ত।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, একজন পুলিশ অফিসার বিদেশি কর্মীকে লাথি মারছিলেন। ওই কর্মী তার সহকর্মীদের সঙ্গে রাস্তার পাশে একটি লাইনে বসে একটি বাসের অপেক্ষায় ছিলেন।

এ ঘটনার রেশ টেনে অনেকে বলছেন, আমরা পুলিশ আধিকারিকদের প্রশংসা করি, কারণ তারা দেশের নাগরিকদের সুরক্ষার জন্য প্রতিনিয়ত নিজেকে আত্মনিয়োগ করেন। তবে দুঃখের বিষয়, অনেক সময় এমন কিছু ব্যক্তিও থাকতে পারে যারা কর্তৃপক্ষের সুযোগটি তাদের কাজের অধিকার হিসেবে গ্রহণ করে।
কোনোভাবেই পুলিশের এমন নিষ্ঠুর আচরণ করা উচিত নয় বলে অনেকে বলছেন।

এদিকে পুলিশের মুখ্য সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ সাইদ ইব্রাহিম বলছেন, তাকে ভিডিও ক্লিপ সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে এবং পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল কিনা, তা সত্য কিনা- এটা নিশ্চিত করার জন্য তদন্ত করা হচ্ছে।

যদি সত্য হয় তবে একটি পুলিশ রিপোর্ট দায়ের করা হবে এবং যথাযথ তদন্ত করা হবে। বিদ্যমান আইনে কাউকেই ওভাররাইড করার অনুমতি নেই বলে জানিয়েছেন পুলিশের মুখ্য সহকারী কমিশনার।