সৌদি ও আরব আমিরাত যাচ্ছেন ভারতীয় সেনাপ্রধান
jugantor
সৌদি ও আরব আমিরাত যাচ্ছেন ভারতীয় সেনাপ্রধান

  অনলাইন ডেস্ক  

০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯:২১:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রথমে ভারতীয় সেনাপ্রধান সৌদি আরব যাবেন। পরে তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাত যাবেন।

সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরে যাচ্ছেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে। উপসাগরীয় অঞ্চলের দুই প্রভাবশালী দেশের সঙ্গে ভারতের নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা বিষয়ক সম্পর্ক বৃদ্ধি করতে তার এ সফর অনুষ্ঠিত হচ্ছে। খবর পিটিআইয়ের।

খবরে বলা হয়, আগামী রোববার সম্ভবত ওই দুই দেশে সফরের জন্য তিনি রওনা হতে পারেন। সৌদি আরব ও আরব আমিরাতের দুই দেশেই তিনি দুই দিন করে সফরের কথা রয়েছে।

পিটিআইয়ের খবরে আরও বলা হয়, প্রথমে ভারতীয় সেনাপ্রধান সৌদি আরব যাবেন। পরে তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাত যাবেন। সফরে তিনি ওই দুই দেশের সেনাপ্রধান ও উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

এর আগে গত নভেম্বরে ভারতীয় সেনাপ্রধান তিন দিনের সফরে নেপাল যান। এর আগে অক্টোবরে তিনি পররাষ্ট্রসচিব হর্ষ বর্ধন শ্রীংলার সঙ্গে মিয়ানমার সফর করেন। ভারত ওই দেশটিকে অ্যাটাক সাবমেরিন সরবরাহ করবে।

ভারতের সেনাপ্রধান সৌদি আরবে এমন সময় সফর করছেন যখন ওই দুই দেশের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্কের টানাপড়েন চলছে। এদিকে তুরস্ক ও মালয়েশিয়ার সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক দৃঢ় হওয়ার কারণেই মূলত মধ্যপ্রাচ্যের ওই দুই দেশের সঙ্গে ইমরান খান সরকারের সম্পর্ক অবনতি হয়েছে। গত আগস্ট মাসে কাশ্মীর ইস্যুতে সৌদি আরব ওআইসির বৈঠক আহ্বান না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশী।


আরও ৬টি সাবমেরিন কিনছে ভারত

সীমান্ত নিয়ে চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যে এবার আরও ৬টি সাবমেরিন কিনছে ভারত। বিষয়টি জানিয়েছেন দেশটির নৌবাহিনী প্রধান কর্মবীর সিংহ। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

তিনি জানান, পরিস্থিতি মোকাবিলায় আরও ৬টি সাবমেরিনসহ বেশ কিছু যান ও উপকরণ কিনবে ভারতীয় নৌবাহিনী। তৃতীয় বিমানবাহী জাহাজের প্রয়োজনীয়তার ওপরও জোর দেন তিনি।


চীনের সঙ্গে উত্তেজনা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রধান কর্মবীর সিংহ বলেন, ‘আমরা বিষয়টি নিয়ে ওয়াকিবহাল। ভারত মহাসাগরে আমাদের এলাকায় চীনা অনুপ্রবেশের মোকাবিলায় নির্দিষ্ট প্রোটোকল তৈরি করা হয়েছে। পাশাপাশি আমাদের লড়াইয়ের ক্ষমতা বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।’

কর্মবীর জানান, কিছু দিনের মধ্যেই ‘মেরিটাইম থিয়েটার কমান্ড’ তৈরির কথা ভাবছে নৌবাহিনী। তাতে সশস্ত্র বাহিনীর তিন শাখার মধ্যে সমুদ্রপথে যৌথ পরিকল্পনার মাধ্যমে কাজ করার সুযোগ বাড়বে। ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চীনের আগ্রাসী নীতির মোকাবিলায় ‘কোয়াড’ অক্ষ গড়েছে ভারত, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান। সম্প্রতি ভারত-আমেরিকা-জাপানের নৌবাহিনীর মহড়া ‘মালাবার’-এ যোগ দিয়েছে অস্ট্রেলিয়াও। তবে ভারতের নৌবাহিনী প্রধানের বক্তব্য, ‘এই অক্ষ কোনও দেশকে নিশানা করে গড়া হয়নি।

তিনি বলেন, ‘মালাবার অংশগ্রহণকারী বাহিনীগুলির মধ্যে একটি পেশাদারি মহড়া। এটা ১৯৯২ সালে শুরু হয়েছিল।’

সৌদি ও আরব আমিরাত যাচ্ছেন ভারতীয় সেনাপ্রধান

 অনলাইন ডেস্ক 
০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০৭:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
প্রথমে ভারতীয় সেনাপ্রধান সৌদি আরব যাবেন। পরে তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাত যাবেন।
প্রথমে ভারতীয় সেনাপ্রধান সৌদি আরব যাবেন। পরে তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাত যাবেন। ফাইল ছবি

সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরে যাচ্ছেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে।  উপসাগরীয় অঞ্চলের দুই প্রভাবশালী দেশের সঙ্গে ভারতের নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা বিষয়ক সম্পর্ক বৃদ্ধি করতে তার এ সফর অনুষ্ঠিত হচ্ছে।  খবর পিটিআইয়ের। 

খবরে বলা হয়, আগামী রোববার সম্ভবত ওই দুই দেশে সফরের জন্য তিনি রওনা হতে পারেন।  সৌদি আরব ও আরব আমিরাতের দুই দেশেই তিনি দুই দিন করে সফরের কথা রয়েছে। 

পিটিআইয়ের খবরে আরও বলা হয়, প্রথমে ভারতীয় সেনাপ্রধান সৌদি আরব যাবেন। পরে তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাত যাবেন।  সফরে তিনি ওই দুই দেশের সেনাপ্রধান ও উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। 

এর আগে গত নভেম্বরে ভারতীয় সেনাপ্রধান তিন দিনের সফরে নেপাল যান।  এর আগে অক্টোবরে তিনি পররাষ্ট্রসচিব হর্ষ বর্ধন শ্রীংলার সঙ্গে মিয়ানমার সফর করেন।  ভারত ওই দেশটিকে অ্যাটাক সাবমেরিন সরবরাহ করবে।  

ভারতের সেনাপ্রধান সৌদি আরবে এমন সময় সফর করছেন যখন ওই দুই দেশের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্কের টানাপড়েন চলছে।  এদিকে তুরস্ক ও মালয়েশিয়ার সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক দৃঢ় হওয়ার কারণেই মূলত মধ্যপ্রাচ্যের ওই দুই দেশের সঙ্গে ইমরান খান সরকারের সম্পর্ক অবনতি হয়েছে।  গত আগস্ট মাসে কাশ্মীর ইস্যুতে সৌদি আরব ওআইসির বৈঠক আহ্বান না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশী। 


আরও ৬টি সাবমেরিন কিনছে ভারত

সীমান্ত নিয়ে চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যে এবার আরও ৬টি সাবমেরিন কিনছে ভারত।  বিষয়টি জানিয়েছেন দেশটির নৌবাহিনী প্রধান কর্মবীর সিংহ।  খবর আনন্দবাজার পত্রিকার। 

তিনি জানান, পরিস্থিতি মোকাবিলায় আরও ৬টি সাবমেরিনসহ বেশ কিছু যান ও উপকরণ কিনবে ভারতীয় নৌবাহিনী।  তৃতীয় বিমানবাহী জাহাজের প্রয়োজনীয়তার ওপরও জোর দেন তিনি।


চীনের সঙ্গে উত্তেজনা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রধান কর্মবীর সিংহ বলেন, ‘আমরা বিষয়টি নিয়ে ওয়াকিবহাল। ভারত মহাসাগরে আমাদের এলাকায় চীনা অনুপ্রবেশের মোকাবিলায় নির্দিষ্ট প্রোটোকল তৈরি করা হয়েছে।  পাশাপাশি আমাদের লড়াইয়ের ক্ষমতা বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।’

কর্মবীর জানান, কিছু দিনের মধ্যেই ‘মেরিটাইম থিয়েটার কমান্ড’ তৈরির কথা ভাবছে নৌবাহিনী।  তাতে সশস্ত্র বাহিনীর তিন শাখার মধ্যে সমুদ্রপথে যৌথ পরিকল্পনার মাধ্যমে কাজ করার সুযোগ বাড়বে। ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চীনের আগ্রাসী নীতির মোকাবিলায় ‘কোয়াড’ অক্ষ গড়েছে ভারত, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান।  সম্প্রতি ভারত-আমেরিকা-জাপানের নৌবাহিনীর মহড়া ‘মালাবার’-এ যোগ দিয়েছে অস্ট্রেলিয়াও।  তবে ভারতের নৌবাহিনী প্রধানের বক্তব্য, ‘এই অক্ষ কোনও দেশকে নিশানা করে গড়া হয়নি।

তিনি বলেন, ‘মালাবার অংশগ্রহণকারী বাহিনীগুলির মধ্যে একটি পেশাদারি মহড়া। এটা ১৯৯২ সালে শুরু হয়েছিল।’

 
আরও খবর