ভারতে চার সন্তানকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে মারল পাষণ্ড বাবা
jugantor
ভারতে চার সন্তানকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে মারল পাষণ্ড বাবা

  অনলাইন ডেস্ক  

০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:২৩:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের বিহারে ভগবানপুর এলাকায় এক পাষণ্ড বাবা তার চার সন্তানকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে।

এ সময় কুড়ালের আঘাতে তার আরেক মেয়ে এবং স্ত্রীও গুরুতর আহত হয়েছেন। নিহত ৪ সন্তানের মধ্যে ৩টি মেয়ে একটি ছেলে শিশু। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

ভগবানপুর থানার পুলিশ জানায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে অদেস চৌধুরী নামে ওই ব্যক্তি গত সোমবার রাতে কুড়াল নিয়ে পরিবারের সদস্যদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে।

মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকা ওই ব্যক্তি একে একে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে চার সন্তানকে খুন করে। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে।

ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান তার স্ত্রী রীতা দেবী এবং ছোট মেয়ে মেয়ে অঞ্জলি (১৪)। পুলিশ তাদের উদ্ধার করে পাটনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কুড়ালের আঘাতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায় তিন ছেলে অভিষেক কুমার (১৪), মুকেশ কুমার (১০), ভোলা কুমার (১২) ও বড় মেয়ে জ্যোতি কুমার (১৮)।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারণা, অভিযুক্ত ব্যক্তি মানসিক অবসাদগ্রস্ত। সে কারণেই এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে।

ভারতে চার সন্তানকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে মারল পাষণ্ড বাবা

 অনলাইন ডেস্ক 
০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:২৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের বিহারে ভগবানপুর এলাকায় এক পাষণ্ড বাবা তার চার সন্তানকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে।

এ সময় কুড়ালের আঘাতে তার আরেক মেয়ে এবং স্ত্রীও গুরুতর আহত হয়েছেন। নিহত ৪ সন্তানের মধ্যে ৩টি মেয়ে একটি ছেলে শিশু। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

ভগবানপুর থানার পুলিশ জানায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে অদেস চৌধুরী নামে ওই ব্যক্তি গত সোমবার রাতে কুড়াল নিয়ে পরিবারের সদস্যদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে।

মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকা ওই ব্যক্তি একে একে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে চার সন্তানকে খুন করে। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে।

ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান তার স্ত্রী রীতা দেবী এবং ছোট মেয়ে মেয়ে অঞ্জলি (১৪)। পুলিশ তাদের উদ্ধার করে পাটনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কুড়ালের আঘাতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায় তিন ছেলে অভিষেক কুমার (১৪), মুকেশ কুমার (১০), ভোলা কুমার (১২) ও বড় মেয়ে জ্যোতি কুমার (১৮)।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারণা, অভিযুক্ত ব্যক্তি মানসিক অবসাদগ্রস্ত। সে কারণেই এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে।

 
আরও খবর