ফ্রান্স শিগগিরই ম্যাক্রোঁর হাত থেকে মুক্তি পাবে: এরদোগান
jugantor
ফ্রান্স শিগগিরই ম্যাক্রোঁর হাত থেকে মুক্তি পাবে: এরদোগান

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯:২১:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ফ্রান্স শিগগিরই ম্যাক্রোঁর হাত থেকে মুক্তি পাবে: এরদোগান

ফরাসিরা শিগগিরই প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর হাত থেকে মুক্তি পাবে বলে মন্তব্য করেছেনতুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

শুক্রবার ইস্তাম্বুলে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ম্যাক্রোঁ হচ্ছেন ফ্রান্সের জন্য একটি বোঝা। প্রকৃতপক্ষে ফ্রান্স এবং ম্যাক্রোঁ একটি বিপজ্জনক সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। আমি আশা করছি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ফ্রান্স ম্যাক্রোঁ থেকে মুক্তি পাবে।

প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর জনপ্রিয়তা কমে যাওয়ার পর তিনি ইসলাম ও মুসলিমদের সমালোচনায় মেতে উঠেছেন। সম্প্রতি তিনি বলেছিলেন, ইসলাম বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে সঙ্কটাপর্ণ ধর্ম।

তারপর আবারও দেশটিতে মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন ও সে ঘটনাকে কেন্দ্র করে একজন স্কুল শিক্ষকের খুনের ঘটনায় উত্তেজনা তৈরি হয়।

বিশ্বজুড়ে মুসলিম দেশগুলোতে ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভ-মিছিল ও ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক আসে।

এতে সামনের সারিতে থেকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ফরাসি পণ্য ভয়কটের ডাক দেয় তুরস্ক। ফলে দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়।

এ অবস্থায় সর্বশেষ ম্যাক্রোঁ বলেছেন, তুরস্কের নীতি ভালো নয়। তার দেশ মধ্যপ্রাচ্য সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মিসরের সঙ্গে কাজ করছে।

শিগগিরই মিসরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাতাহ আল সিসির সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। তারপরই ম্যাক্রোঁর হাত থেকে দ্রুত ফ্রান্স মুক্তি পাবে বলে মন্তব্য করেছেন এরদোগান ।


ফ্রান্স শিগগিরই ম্যাক্রোঁর হাত থেকে মুক্তি পাবে: এরদোগান

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ০৭:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফ্রান্স শিগগিরই ম্যাক্রোঁর হাত থেকে মুক্তি পাবে: এরদোগান
ছবি: সংগৃহীত

ফরাসিরা শিগগিরই প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর হাত থেকে মুক্তি পাবে বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান। 

শুক্রবার ইস্তাম্বুলে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ম্যাক্রোঁ হচ্ছেন ফ্রান্সের জন্য একটি বোঝা। প্রকৃতপক্ষে ফ্রান্স এবং ম্যাক্রোঁ একটি বিপজ্জনক সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। আমি আশা করছি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ফ্রান্স ম্যাক্রোঁ থেকে মুক্তি পাবে।

প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর জনপ্রিয়তা কমে যাওয়ার পর তিনি ইসলাম ও মুসলিমদের সমালোচনায় মেতে উঠেছেন। সম্প্রতি তিনি বলেছিলেন, ইসলাম বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে সঙ্কটাপর্ণ ধর্ম। 

তারপর আবারও দেশটিতে মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন ও সে ঘটনাকে কেন্দ্র করে একজন স্কুল শিক্ষকের খুনের ঘটনায় উত্তেজনা তৈরি হয়। 

বিশ্বজুড়ে মুসলিম দেশগুলোতে ফ্রান্সবিরোধী বিক্ষোভ-মিছিল ও ফরাসি পণ্য বয়কটের ডাক আসে। 

এতে সামনের সারিতে থেকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ফরাসি পণ্য ভয়কটের ডাক দেয় তুরস্ক। ফলে দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়। 

এ অবস্থায় সর্বশেষ ম্যাক্রোঁ বলেছেন, তুরস্কের নীতি ভালো নয়। তার দেশ মধ্যপ্রাচ্য সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মিসরের সঙ্গে কাজ করছে। 

শিগগিরই মিসরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাতাহ আল সিসির সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। তারপরই ম্যাক্রোঁর হাত থেকে দ্রুত ফ্রান্স মুক্তি পাবে বলে মন্তব্য করেছেন এরদোগান । 


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ফ্রান্সে ইসলাম অবমাননা

আরও খবর